সোমবার মনে করা হয় শিবের দিন ৷  ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে শ্রাবণের সোমবারে শিব পুজোর তাত্পর্য রয়েছে কারণ এই ব্রত বা উপবাস পালনে সমস্ত দুর্ভোগ দূর হয়। অনেকেই মনে করেন, পর পর সোমবার শিবের পুজো করলে সকল মনের ইচ্ছে পূরণ হয়। তাই বিধি সহকারে প্রতি সোমবার অনেকেই মহাদেবের পুজো করে থাকেন। পুজো করার সময় মহাদেবকে চাল অর্পন করতে ভুলবেন না। এমনটা মনে করা হয়, এই পুজোর সময় চাল অর্পন করলে আর্থিক সমস্যা কমে যায় এবং অর্থ বৃদ্ধি পেতে থাকে। এই বারে পরপর ৫ টি সোমবার, বিধি মেনে মহাদেবের পুজো করলে মিলবে সুফল। 

আরও পড়ুন- বছরের প্রথম মাস কেমন কাটবে বৃশ্চিক রাশির, দেখে নিন

সোমবারে মহাদেবের পুজোয় তিল অর্পন করে মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র উচ্চারণ করলে দ্রুত সুফল পাওয়া যায়। 
শরীর থেকে সমস্ত রোগ দ্রুত নিরাময় হয়ে যায়। 
সোমবারে ব্রত পালনের সময় উপবাসের আগের দিন একবেলা নিরামিষ আহার গ্রহণ করার রীতি রয়েছে।  
একে পারন বলা হয়। পারনের দিন একবেলা সেদ্ধ খাওয়ার রীতি রয়েছে। এদিনে কোনও ফোঁড়ন দিয়ে রান্না করা খাবার খাওয়া নিষিদ্ধ। 

আরও পড়ুন- সোমবার ৪ রাশির ব্যবসার জন্য শুভ দিন, দেখে নিন আপনার রাশিফল

খাওয়ার পাতে এদিনে লবনের পরিবর্তে সন্ধব লবন ব্যবহার করা উচিত। উপবাসের দিন সকাল বেলায় স্নান সেরে চার প্রহরে শিবলিঙ্গে জল ঢালা উচিত।
নিঁখুত বেলপাতা, ধূতরা ফুল ও নীলকন্ঠ ফুল মহাদেবের অত্যন্ত পছন্দের। 
চার প্রহরে একে একে দুধ, মধু, ঘি ও গঙ্গাজল দিয়ে শিবের মাথায় জল ঢালার রীতি রয়েছে। 
মহাদেবের ব্রতর সময় জল পান করার নিয়ম নেই, নির্জলা থেকে উপবাস রাখতে হয়।  
তাই ব্রত ভাঙ্গার পর অন্তত ৬ থেকে ৮ গ্লাস জল অবশ্যই পান করুন। 
এতে শরীর সুস্থ থাকবে, বিধি মেনে সোমবারে মহাদেবের ব্রত পালন করলে সকল মনের ইচ্ছে পূরণ হয়।