বাস্তুশাস্ত্রের প্রতি  মানুষ এখন আগের থেকে অনেক বেশী নির্ভরশীল। আসলে মানুষ ক্রমেই বাস্তুশাস্ত্রের দ্বারা অনেক বেশী উপকার পাচ্ছেন। তাই কার্যকারীতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা দুই বেড়েছে। আপনি হয়তো আপনার সন্তানের  লেখাপড়ায় মনোসংযোগ বাড়ানোর জন্য অনেক চেষ্টা করেছেন। কিন্তু কিছুই ফল মিলছে না। কিন্তু এর সমাধান রয়েছে বাস্তুশাস্ত্রে। তাহলে জেনে নিন, কীকরে আপনি আপনার সন্তানের সার্বিক উন্নতি করবেন-

কী করবেন জেনে নিন-

১। বাস্তুশাস্ত্র মতে,আপনার বাসস্থানের দশটি দিক আছে। প্রতিটি দিকের একজন দেবতা ও অধিপতি গ্রহ আছে। বাড়ির উত্তর-পূর্ব দিকের অধিপতি দেবতা হলেন শিব এবং অধিপতি গ্রহ হল দেবগুরু বৃহস্পতি। বৃহস্পতি আমাদের জ্ঞান ও শিক্ষা প্রদান করেন। তাই এদিকে ক্রিস্টাল বল ঝুলিয়ে রাখলে ছাত্র-ছাত্রীদের স্মৃতিশক্তি বাড়বে এবং ভবিষ্য়ত আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

২। আপনার বাড়ির উত্তর-পূর্ব কোণ সন্তানের পড়াশোনার ওপর প্রভাব বিস্তার করে। বাস্তু মতে ঈশান কোণ জ্ঞান ও শিক্ষার আধার। ঈশান কোণ অর্থাৎ উত্তর-পূর্ব কোণ। উত্তর-পূর্ব কোণে একটি ক্রিস্টাল বল ঝুলিয়ে রাখলে অবশ্যই উপকার পাবেন। ক্রিস্টাল বল থেকে বিচ্ছুরিত আলোকরশ্মি বিদ্যার্থীকে ধীরে ধীরে মানসিকভাবে শক্তিশালী করে তুলবে। 

কী করবেন না জেনে নিন-

আপনার বাড়ির উত্তর-পূর্ব কোণে, যদি কোনও নোংরা আবর্জনা থাকে তাহলে তা থেকে বাস্তু দোষ সৃষ্টি হবে। আর এই বাস্তু দোষ আপনার সন্তানের পড়াশোনাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। তাই অবশ্য়ই  এর থেকে উপযুক্ত প্রতিকার করা খুবই জরুরি।