রাশিতত্ত্বের নিউমারলজি বা সংখ্যাতত্ব অনুযায়ী, আপনার জন্ম তারিখ শুধু একটি সংখ্যাই নয়, আপনার জীবনে এই সংখ্যার রয়েছে গভীর তাৎপর্য। এই জন্ম তারিখ ব্যবহার করে তার ব্যক্তিত্ব নির্ণয় করা যায় সহজেই। এই পদ্ধতিটি বেশ সহজ। কারও জন্মদিন ১ তারিখ হলে আপনার সংখ্যাও ১ হবে। কারও জন্ম তারিখ ২৬ হলে। তার সংখ্যা হবে (২+৬)= ৮। কারও জন্ম তারিখ যদি ১০ হয়, তবে তার জন্ম সংখ্যা হবে (১+০)=১। তবে যদি কারও জন্মদিন হয় ২৯ তবে সংখ্যা হবে (২+৯)= ১১ হবে। এবার এই ১১ কে আবারও যোগ করে (১+১)=২ হবে। 
যদি আপনার জন্ম তারিখ পাঁচ হয়। তবে সেই সংখ্যা আপনার জীবনে কী প্রভাব ফেলবে তা জেনে নেওয়া যাক-
এই ব্যক্তিরা বহুমুখী প্রতিভা সম্পন্ন হয়। এদের বৈশিষ্ট্য হল এরা খুবই স্বাধীনতা প্রিয় হন। সেই সঙ্গে বুদ্ধিমান। এরা যে কোনও পরিস্থিতিতে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে চেষ্টা করেন। এরা সাধারণত নমনীয় স্বভাবের। পরিবর্তন এদের খুব পছন্দ তাই এরা ঘুরতে খুব ভালোবাসেন। এরা অনেক সময় কাজ শুরু করেন কিন্তু সমান উদ্দীপনা নিয়ে তা শেষ করতে অসুবিধে হওয়ায় মাঝ পথেই তা বন্ধ করে দেন। মাঝে মাঝে দায়িত্ব পালনে এদের অনীহা দেখা যায়। এরা নতুন বন্ধু বানাতে খুব ভালোবাসেন। এদের সোশ্যাল স্কিল খুব ভালো হয়। যে কোনও প্রকার নেশার বস্তুর প্রতি এরা সহজেই আশক্ত হয়ে পড়েন।