কিশোর বয়সের পরম। মৃদু হাসি, মুখটা হালকা তুলে ক্যামেরার দিকে তাকানো, হাত দুটো পিছনে মোড়া। যতই চ্যালেঞ্জ দিক না কেন অভিনেতা, 'পরম' ভক্তদের তাঁকে চিনতে বিন্দুমাত্র অসুবিধা হয়নি। ফেসবুকে প্রায় তেইশ বছরের পুরনো ছবি শেয়ার করেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। ১৯৯৭ সালে তোলা সেই ছবি। বাড়িপ উঠোনে ভাই, বোন, বন্ধুর সঙ্গে তোলা সেই ছবিতে জড়িয়ে কত স্মৃতি, নস্টালজিয়া, আবেগ। সময় যে কতখানি দ্রুতগতিতে এগোচ্ছে তা হয়তো এই ছবি দেখে মাঝে মধ্যে ভেবে বসেন তিনি।

আরও পড়ুনঃভাই-বোন মিলে সুশান্তের টাকার নয়-ছয়, রিয়ার বিদেশ ভ্রমণের খরচ মেটাতেন অভিনেতা

করোনার প্রকোপে পুরনো ছবির শেয়ার করার ট্রেন্ডে কি গা ভাসালেন পরম। না! ট্রেন্ডের জোয়ারে এগিয়ে যাওয়ার মানুষ তিনি নন। পরিবারের এক সদস্য এই ছবি খুঁজে বের করে তাঁকে পাঠায়, সেই ছবিটি শেয়ার না করে আর থাকতে পারলেন না তিনি। চেনা-অচেনা পরমকে ক'জনের নজরে পড়ে সেটাই পরীক্ষা করলেন তিনি। ক্যাপশনে লিখেছেন, "দেখি তো চিনতে পার কি না।" না চিনে অনুরাগীরাই বা যায় কোথায়। নিমেষের মধ্যে ছবির ডান দিকে মেরুন শার্টে দাঁড়িয়ে থাকা ছেলেটি চিনে ফেলছে সকলে। 

আরও পড়ুনঃলন্ডনে ফিরে ভাঙলেন কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম, সোনমকে গ্রেফতার করার দাবি নেটিজেনদের

শার্টটি নিয়ে বেশ প্রশংসাই পেয়েছেন পরমব্রত। কেউ কমেন্টে লিখল, "হ্যাঁ পেরেছি তো ওই যে মেরুন জামা পরে পিছন দিকে হাত রেখে ইস্টাইল করে দাঁড়িয়ে", আবার কেউ লিখেছে, "বেশ চেনা যাচ্ছে। আজও তুমি এইভাবে দাঁড়িয়ে থাকো, বহু ফটো তে দেখেছি। এই মৃদু হাসিটিও এখনো মুখে মাখানো। ভালো থেকো।" এমন অনুরাগী পাওয়াও ভাগ্যের ব্যাপার। ১৯৯৭ সালের এই ছবিতে ষোলো-সতেরো বছরের পরমকে চিনতে এক চুলও ভুল করেনি ভক্তমহল।