ফের করোনার থাবা পড়েছে টলিউডে। একের পরে এক উজ্জ্বল ব্যক্তিত্ব করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ফের কোভিড-১৯ -এ আক্রান্ত হলেন টলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা সুরজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। মেগা সিরিয়াল থেকে সিনেমা সবেতেই তিনি জনপ্রিয়। তবে সুরজিৎ  শুধু একা নন, তার পরিবারের মেয়ে ও স্ত্রীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেতার মেয়ে নিজেই খবরটি জানিয়েছেন। কিছুদিন আগেও করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলিউডের জনপ্রিয় সঙ্গীত পরিচালক ওয়াজিদ খান। 

আরও পড়ুন-ইমরান হাশমির সঙ্গে ঘনিষ্ঠতায় মজে মাধুরী, রোম্যান্টিক দৃশ্য দেখে হতবাক করণ...

সুরজিতের মেয়ে দেবপ্রিয়া বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের সোশ্যালে জানিয়েছেন, লকডাউনে তারা সকলেই বাড়িতে ছিলেন। এই  তিনমাস করোনা আটকানোর জন্য যা যা সতর্কতার প্রয়োজন তার সবটাই প্রয়োগ করেছেন। কিন্তু আনলক প্রক্রিয়া শুরু হতেই ফের শুটিংয়ে যোগ দিয়েছিলেন তার বাবা। আর সেখান থেকেই কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন অভিনেতা। কিন্তু এত নিয়ম মানা সত্ত্বেও কীভাবে আক্রান্ত হলেন অভিনেতা, এই প্রশ্নই তুলেছেন মেয়ে। দেখে নিন পোস্টটি, 

 

এটা ফেসবুকে লেখার বিষয় নয় জানি | তবুও বিষয়টির গুরুত্ব রয়েছে বলে জানিয়ে রাখা | কারণ গোপন করাটা অশিক্ষিতের লক্ষণ | মায়ের...

Posted by Debopriya Bandopadhyay on Monday, July 20, 2020


অভিনেতার স্ত্রীর মধ্যেই এই লক্ষণ প্রথম দেখা যায়। জ্বর হওয়া থেকে গলায় সংক্রমণ দেখেই তড়িঘড়ি কোভিড টেস্ট করালে পরিবারের তিনজনেরই করোনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। আর সেই কারণেই তার গোটা পরিবারে দ্রুত রোগটি ছড়িয়ে পড়েছে।  মাস্ক ব্যবহার করা থেকে, সামাজিক দূরত্ব, স্যানিটাইজেশন-সবটাই  করেছিলেন তারা। তারপরেও এই মারণ ভাইরাসের থাবা পড়ল অভিনেতার জীবনে। নিজেদের থানা ও স্বাস্থ্য দফতরকে সমস্ত তথ্যই জানানো হয়েছে। তবে তিনজনই যেহেতু পজিটিভ, সেক্ষেত্রে করোনা রোগীকে যা যা পরিষেবা দেওয়ার কথা, তা কী করে সম্ভব হবে, তা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন অভিনেতার মেয়ে। এদিকে সুরজিতের আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে উদ্বিগ্ন দর্শকমহল।করোনা আতঙ্ক এখন ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। মুহূর্তের মধ্যে একজনের থেকে আরেকজনের শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ইতিমধ্যেই করোনা আতঙ্কে জেরবার বিশ্ববাসী । ইতিমধ্যেই করোনা রুখতে দেশে  লকডাউন শুরু হয়েছে। মানুষের সংস্পর্শেই সংক্রমিত হচ্ছে এই করোনা ভাইরাস । মানুষের নিঃশ্বাস প্রশ্বাসের সঙ্গেই ছড়িয়ে যাচ্ছে এই রোগের জীবানু। যত দিন যাচ্ছে ততই যেন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা। সারা দেশে  মহামারির আকার ধারণ করেছে এই করোনা ভাইরাস।