সারাদিনে প্রায় ২০০ বার ফোনটা বেজে ওঠে। ফোন ধরা মাত্রাই অন্যপ্রান্ত থেকে শোনা যায় একটাই প্রশ্ন, এটা কি সানি লিওনের নম্বর! ততবারই হতবাক হয়ে ফোন কেটে দেন দিল্লির এক যুবক। এক ছবিকে ঘিরে বর্তমানে ক্রমেই জল ঘোলা হয়ে চলেছে সানির ফোন নম্বর নিয়ে।

আরও পড়ুনঃ কিয়ারা গানও গাইতে পারেন! জন্মদিনে অভিনেত্রী সম্পর্কে জানুন কিছু অজানা তথ্য

সম্প্রতিই প্রকাশ পেয়েছে নতুন ছবি অর্জুন পাটিয়ালা। সেই ছবির চিত্রনাট্যকে ঘিরেই যত বিপত্তি। সেখানে এক সংলাপে দেখানো হয়েছে যে সানির ফোন নম্বর এত। দর্শক সেই দৃশ্য উপভোগ করল কম, আর বিপরীতে সানির ফোন নম্বর টুকলো চটজলদি। ব্যাস, আর দাঁদের পায় কে! সানির ভক্তরা একপ্রকার প্রেক্ষাগৃহ থেকেই ফোন করতে শুরু করলেন তাঁদের প্রিয় নায়িকাকে। এখান থেকেই শুরু সমস্যা।

ফোন নম্বরটি আসলে দিল্লির এক বাসিন্দা পুণিত আগরওয়ালের। তাঁর কাছে একের পর এক ফোন হাজির। প্রশ্ন নানা, এটা কি সানির নম্বর! সানি লিওনকে কখন পাওয়া যাবে, কথা বলতে চাওয়ার দাবী থেকে শুরু করে নানা প্রস্তাব। দিনে মিলল ২০০টিরও বেশি ফোন। ততবারই স্পষ্টভাষায় তিনি বোঝানোর চেষ্টা করলে যে না, এটা রং নাম্বার।

তবে রং নম্বরের এই যাঁতাকলে তাঁকে পড়তে হত না যদি ছবি নির্মানের সময় এই নম্বরটি একবার যাচাই করে দেখা হত। তবে সবমিলিয়ে এখন দিল্লির ২৭ বছরের এই যুবকের এখন সারা দিনে একটাই কাজ। ফোন ধরা, আর সানি লিওয়নের খোঁজ দেওয়া। তবে বাস্তবটা শোনার পর অপর প্রান্তের মন কতটা ভাঙছে তা বলাই বাহুল্য।