২০১৯-এর শেষেই তোলপাড় হয়েছিল গোটা ভারত। সিএএ নিয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছিল আন্দোলন, মিছিল মিটিং। আর সেই মিছিল মিটিং-এ সামিল হয়েছিল জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হন বেশ কয়েকজন। রাতভর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবাদের ঝড় তোলে সকলেই। গুরুত্বর আহত ঐশী দাশগুপ্তের সঙ্গে তড়িঘড়ি দেখা করতে ছুঁটে গিয়েছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। 

 

 

মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছিল সেই ছবি। এরপর ধীরে ধীরে পরিস্থিতি ঠাণ্ডা হয়, তবে বছর ঘুরতে না ঘুিরতেই সেই শিরোনামে থাকা খবরকে উষ্কে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন বলিউড কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত। জানালেন পাকিস্তানের থেকে ৫ কোটি টাকা নিয়েছিলেন দীপিকা। সেই অর্থের বিনিময়েই উপস্থিত হয়েছিলেন জেএনইউতে। ভাইরাল হওয়া দীপিকার সেই খবর আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং এ উঠে এল। 

 

 

প্রাক্তন র অফিসার এনকে সুদ এই তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। খবর সামনে উঠে আসা মাত্রই সেদিনে নজর যায় বলিউড কুইনের। কঙ্গনার মতে বলিউডের এই ধরনের সেলিব্রিটির থেকে এমন কাজ আশা করার নয়। পাশাপাশি এদিন কঙ্গনা আরও বলেন, দীপিকা কি সুশান্তের অবসাদের গল্প বিক্রির জন্যও টাকা পাচ্ছেন! এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই তা নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে ওঠে। যদিও েই নিয়ে এখনও কিছুই জানাননি দীপিকা পাড়ুকোন।