হরর ফ্লিক মানেই জাম্প স্কেয়ারস, ভয়ঙ্কর চেহারা ভূত, প্রেতাত্মা। আবার কয়েক ধরনের হরর ছবি হয় যেখানে না জাম্প স্কেয়ারস, না কোনও ভয়ঙ্কর চেহারা। কেবল পাওয়ার প্যাকড চিত্রনাট্য। যা আপনাকে ছবিটি শেষ হওয়ার পরও ভাবাবে। চিন্তাভাবনায় উঁকি মারবে সময়-অসময়। এই দ্বিতীয় ধরনের হরর ফ্লিকের ফ্যান হলে অনুষ্কা শর্মার 'বুলবুল' আপনার জন্য প্রথম চয়েস। বড়ো হাভেলি বড়ো রহস্য চাপা পড়ে থাকে। তা জেনেও চুপ থাকাই মঙ্গল। কী সেই রহস্য তা মোটামুটি সকলের এতক্ষণে গুলিয়ে গিয়েছে বুলবুলের ট্রেলার দেখে। মহেন্দ্রের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে ছোট্ট বুলবুলের। আগেকার দিনে যা হত আর কি। প্রাপ্তবয়স্ক কিংবা তার থেকে বেশি বয়সের জমিদারের সঙ্গে বাচ্চা মেয়ের বিয়ে। 

আরও পড়ুনঃফের নক্ষত্রপতন, চলে গেলেন জনপ্রিয় পরিচালক

যদিও মনে প্রাণে বুলবুল সত্যকেই নিজেই ভাই মেনে এসেছে। সত্য, মহেন্দ্রর ভাই। সে বাইরে পরতে চেলে গেলে প্রকান্ড জমিদারবাড়িতে বড্ড একা হয়ে যায় বুলবুল। তবে একার থাকার চেয়েও অন্য কিছু যেন তাকে তাড়া করে বেড়ায় বাড়ির সমস্ত কোনা জুড়ে। মহেন্দ্রর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রাহুল বোস। ট্রেলার জুড়ে তাঁর দু'রকম রূপ বেরিয়ে এসেছে দর্শকের সামনে। সদ্যবিবাহিতা স্ত্রী বাচ্চা মেয়ে বলে তার সঙ্গে যতখানি নরম সুরে কথা বলছেন, তেমনই পরবর্তী দৃশ্যগুলিতে নৃশংসভাবে মারছেন কাউকে। সত্যের ভূমিকায় অবিনাশ তিওয়ারি। বিদেশ থেকে ফিরে বদলে যাওয়া গ্রামকে দেখে আতঙ্কিত অবস্থায় দেখা গেল তাঁকে। পাওলি দাম ছবিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায়। জমিদার বাড়ির বড় ঠাকুরন তিনি। চোখে, হাসিতে, কথায় ভুলবে যেকোনও মানুষ। চোখের সামনে সত্য জ্বলজ্বল করলেও তাঁর কথায় সত্যিও মিথ্যে হয়ে যাবে। 

আরও পড়ুনঃডিনারে সাফ না, বাড়ি থেকে খাবার নিয়েই শ্যুটিং-এ যান, কড়া ডায়েট অনুষ্কার

গাছে থাকা সেই ডাইনির রহস্য কি একমাত্র তাঁর কাছেই আছে। তা অবশ্য প্রকাশ পাবে ২৪ জুন। লম্বা চুল, আকাশের মধ্যে ভেসে ভেসে বেড়াচ্ছে পরীর মত একটি মেয়ে। এ গাছ থেকে অন্য গাছে উড়ে বেড়াচ্ছে সে। প্রথমে স্বপ্নের মত লাগলেও হঠাৎ যেন গায়ে কাঁটা দিয়ে উঠল। পায়ের দিকেই খেয়াল করতেই ছ্যাঁত করে উঠল বুকটা। দূর থেকে স্পষ্ট না হলেও মন বলছে বড়ই সুন্দর এই পরীর মত মেয়েটি। তবে পা দুটো এমন উল্টো কেন। তবে সে কি আদৌ পরী নয়। ডাইনি। হ্যাঁ, ডাইনিরই তো এমন উল্টো পা হয়। অনুষ্কার শর্মার নেটফ্লিক্সের সঙ্গে প্রথম ভেঞ্চার 'বুলবুল'। টিজার-ট্রেলারে হরর সাকারদের উন্মাদনা এখন তুঙ্গে। কয়েক সেকেন্ডের টিজারে যেন মিশ্র প্রতিক্রিয়া এল দর্শকদের কাছ থেকে। ভয় লাগছে অথচ ভারি সুন্দর একটা আবেগ লুকিয়ে ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোরে। মেয়েটির কাছে যেতে ইচ্ছে করলেও ডাইনির দেখা পাওয়ার ভয়ে কয়েক পা পিছিয়ে নিতে ইচ্ছে করছে। 

 

 

অনুষ্কার শর্মার প্রযোজনায় আসছে 'পরী' ছবির পর দ্বিতীয় হরর ফ্লিক বুলবুল। পরীর পর দ্বিতীয়বার পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় কাজ করলেন অনুষ্কার সঙ্গে। পরমব্রতের পাশাপাশি অভিনয় রয়েছেন পাওলি দাম, অবিনাশ তিওয়ারি, তৃপ্তি দিমরি, রাহুল বসু। সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে অমিত ত্রিবেদি। অনবিতা দত্ত রয়েছেন পরিচালনায়। নেটফ্লিক্সের সঙ্গে অনুষ্কার প্রথম ভেঞ্চার নিয়ে বেশ উত্তেজিত ভক্তরা। পাতাল লোকের অসামান্য রিভিউয়ের পর আশা কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছে বুলবুল নিয়ে। হরর ফ্লিকটি একটি বাংলা উপকথার ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে। অল্পবয়সী মেয়ে বুলবুল। তার জীবনের এক ভিন্ন কাহিনি এবং ডাইনির সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে গল্প বুনেছেন অনবিতা। হরর হলেও এক সুন্দর রহস্য এবং কাল্পনিক ঘটনা দিয়ে ঘুরবে গল্পের মোড়। হরর জনরাহ যারা পছন্দ করে, তাদের জন্য এই ভিন্ন ধারার ছবিটি পারফেক্ট। অনুষ্কার শর্মার ওয়েব কনটেন্ট প্রথমেই ব্লকবাস্টারের তালিকায় ঢুকে গিয়েছে। আশা করা যাচ্ছে বুলবুলও হিট করবে।