ঈদেই মুক্তি পেল ছবি। শুধু তাই নয় ভাইজানের ছবি দেখতে ভক্তদের ঢল নামল বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে। প্রটিতি প্রেক্ষাগৃহের আসনই প্রায় ভর্তি। ফলেই প্রথম দিনে ঘরে তুলে আলন ভারত ৪২.৩ কোটি টাকা। কিন্তু সেই সাফল্যের পথে এবার অন্তরায় হয়ে দাঁড়াতে চলেছে অনলাইন। অনলাইল এক ওয়েবসাইটে ছবির দ্বিতীয় দিনেই মিলল ভারত-এর সম্পূর্ণ ভিডিও। ওয়েবসাইটের নাম তামিল রকার্স।

বুধবার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে সলমন খানের ভারত। বৃহস্পতিবার দিনই এই ছবির প্রিন্ট অধিকাংশ মানুষের কাছে পৌঁচ্ছে গেল। ফলেই বেশ কিছু মানুষের সংখ্যা কমল, যারা এই ছবি দেখার অপেক্ষায় ছিলেন। যার ফলে লাভের অংশ কমতে পারে বক্স অফিসে।

ছবি নির্মাতাদের ক্ষেত্রে এই ধরণের সংবাদ বেজায় দুর্ভাগ্য জনক। একটি ছবি তৈরির পেছনে থাকে হাজারও মানুষের পরিশ্রম। সেই ছবি তৈরিই হয় মানুষকে বিনোদন দেওয়ার জন্য। কিন্তু তা যদি ঘরে বসেই কেবল মাত্র নেট জগতের কারচুপিতে মানুষের হাতে পৌঁচ্ছে যায়, তবে পরিচালক, অভিনেতা থেকে শুরু করে সকলেই আশাহত হন। এবারে ভারত ছবির কর্মকর্তাদেরও অবস্থা সেই রকমই দাঁড়ালো। কেবল ভারত ছবি নয়, এর আগে ঠিক একই ভাবে প্রকাশ্যে এসেছিল আলাদিন, গর্ডজিলা, ও দেবী ২। প্রভৃতি ছবিই বক্স অফিসে সেভাবে প্রভাব ফেলতা পারেনি কেবল এই ঘটনার জন্য। শহরের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে প্রবেশের আগেই দেখে নেওয়া হয় ক্যামেরা বন্ধ আছে কি না, কিন্তু সেই পদ্ধতি দেশের সর্বত্রই যদি পালন করা হয়ে তবে অনেকাংশে এই সমস্যাগুলো বোধ হয় এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব হবে।