প্রয়াত হলেন বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা নাগাদ মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। বেশ কয়েকদিন ধরেই তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছিল। গত বৃহস্পতিবার শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কারণে তাঁকে জুহুর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির সময়ে তাঁর ফুসফুস ও হৃৎপিণ্ডের বেশকিছু সমস্যা ছিল বলে জানা যায়। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না, চলে গেলেন বিদ্যা সিনহা। খবর প্রকাশ্যে আসার পরই বিটাউন জুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া।

১৯৬৮ সালে প্রতিবেশি যুবক ভেঙ্কটেশ্বরন আইয়ারের সঙ্গে বিবাহ-বন্ধনে আবদ্ধ হন বিদ্যা। বিয়ের পরে এক কন্যা সন্তান দত্তকও নিয়েছিলেন। তবে সেই সংসার তাঁর বেশিদিনের জন্য করা হয়নি। প্রথম পক্ষের স্বামীর মৃত্যুর পর নেতাজি ভীমরাও নামে এক ব্যাক্তির সঙ্গে আবারও বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। পারিবারিক অশান্তির জেরে দ্বিতীয় বিয়েও স্থায়ী হয়নি। 

আরও পড়ুনঃ বলি- তারকাদের শুভেচ্ছা! স্বাধীনতা দিবসে কী বার্তা দিলেন সেলেবরা

মাত্র ১৮ বছর বয়সে মডেলিং দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন তিনি। ১৯৭৪ সালে 'রজনীগন্ধা' সিনেমার দ্বারা তিনি বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। আমোল পালেকর এর সঙ্গে তিনি বেশ কয়েকটি সিনেমাতে অভিনয় করেন।  'ছোটি সি বাত', 'পতি পত্নি অউর ও', 'রজনীগন্ধা' একের পর এক জনপ্রিয় সিনেমা মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন বিটাউনের প্রথম সারির বহু অভিনেতা। অশোক কুমার, সঞ্জীব কুমার প্রমুখেরা। অভিনয়ের দক্ষতার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরষ্কারও হাতে উঠে এসেছিল তাঁর। 

সম্প্রতি তাঁকে ধারাবাহিকেও দেখা গিয়েছে। সলমন খান ও করিনা কাপুর অভিনীত 'বডিগার্ড'-এ দেখা গিয়েছিল তাঁকে। তাঁর অভিনয় আজও মানুষের মনের উজ্জ্বল স্মৃতি। তাঁর মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বলিউড থেকে টলিউডের কলা কুশলীরাও।