বলিউডের সঙ্গে মাদকযোগ নিয়ে জোর জলঘোলা শুরু  হয়েছে।সুশান্তের মৃত্যু মামলা খতিয়ে দেখতে তদন্তভার নিয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এনসিবি জেরায় বলিউডের বড়  বড় রাঘববোয়ালদের নামও ফাঁস করেছেন রিয়া চক্রবর্তী । বড়সড় মাদকচক্রে উঠে এসেছে দীপিকা পাড়ুকোনের নাম । ইতিমধ্যেই  এনসিবি- র দফতরে পৌঁছে গেলেন দীপিকা পাড়ুকোন। সকাল ১০ টায় এনসিবি-র গেস্ট হাউজে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল দীপিকার। তবে তার ১০ মিনিট আগেই  পৌঁছে গেলেন দীপিকা। মিডিয়ার উপচে পড়া ভিড় এড়িয়ে ১০ মিনিট আগে এনসিবি জেরায় গেলেন দীপিকা।

সকাল থেকে দীপিকার অ্যাপার্টমেন্টে চোখ ছিল পাপারাৎজির। কিন্তু সময় যত বাড়ে জল্পনাও তত বাড়ে। সূত্র থেকে জানা যায় দীপিকা নাকি ভোর রাতেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। যাতে মিডিয়ায় কড়া নজরদার্ এড়িয়ে যেতে পারেন। সকাল বেলাতেই ৯.৫০ মিনিটে ধূসর সালোয়ার কামিজ পরে এনসিবি-দফতরে হাজির হন দীপিকা।

 

ফের বিপাকে বলিউডের টপমোস্ট অভিনেত্রী। প্রায় ৩ বছরের পুরোনো চ্যাট থেকেই দীপিকার সঙ্গেই মাদকযোগের হদিশ পেয়েছে এনসিবি। আজই  এনসিবি-র মুখোমুখি হয়েছেন দীপিকা।  সূত্র থেকে আরও জানা গেছে,রাত প্রায় ৩ টে নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়েছেন দীপিকা। তারপর মুম্বইয়ের হোটেল রণবীর সিং, দীপিকা পাড়ুকোন এবং নায়িকার টিমের ম্যারাথন বৈঠক চলে। গতকালই  এনসিবি-র মুখোমুখি হয়েছেন দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা। এনসিবি-র জেরাতেই দীপিকার এই তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে।  সূত্র থেকে জানা গেছে, মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন স্বয়ং দীপিকা পাড়ুকোন। এমনই বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ করেছে অভিনেত্রীর ম্যানেজার করিশ্মা। সূত্র থেকে জানা গেছে, মাদক সংক্রান্ত যে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছিল তাতে করিশ্মা প্রকাশ, জয়া সাহা ও দীপিকা পাড়ুকোন ছিল। এবং সেই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা। গতকালই এনসিবি-র মুখোমুখি হয়েছেন অভিনেত্রী রকুল প্রীত সিং। ২০১৮ সালে মাদক সংক্রান্ত বিষয়ের কথা স্বীকারও করে নিয়েছেন রকুল।