গতকাল গভীর রাতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছেন সকলের প্রিয় মাস্টারজি সরোজ খান। ১৭ জুন থেকেই বান্দ্রার গুরুনানক  হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি কিংবদন্তী কোরিওগ্রাফারের মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোকাহত বলিউড। কিংবদন্তির মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে টিনসেল টাউনে। বি-টাউনে তার নাচের দক্ষতায় পঞ্চমুখ ছিল সকলেই। মাধুরী থেকে শ্রীদেবী,হালফিলের আলিয়া সহ বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কাছে তিনিই  ছিলেন  এক ও অদ্বিতীয়। সকলের অসামান্য নাচের পিছনে হাত ছিল মাস্টারজির।

ফের নক্ষত্রপতন বলিউডে।  ১৭ জুন থেকেই বান্দ্রার গুরুনানক  হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি।  সেখানে তার করোনা পরীক্ষাও করা হয়। যদিও তা নেগেটিভ আসে। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে টিনসেল টাউনে। বলিউডের  একটা যুগের অবসান হল তার মৃত্যুতে।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। কিংবদন্তী কোরিওগ্রাফারের মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোকাহত বলি তারকারা।

অমিতাভ বচ্চন মাস্টারজির প্রয়ানে শোকপ্রকাশ করেছেন, দেখে নিন টুইট পোস্টটি,

 

মাধুরী দীক্ষিত গভীর ভাবে শোকাহত, দেখে নিন টুইট পোস্টটি,

 

অক্ষয় কুমারও টুইটারে শোকপ্রকাশ করেছেন, 

 

তাপসী পান্নু শোকবার্তা জানিয়েছেন টুইটারে,

 

ফারহা খান কিংবদন্তীর মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপণ করেছেন,

 

রিতেশ দেশমুখ আত্মার শান্তি কামনা করে পোস্ট করেছেন,

জেনেলিয়া ডিসুজাও গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন,

 

নিমরত কৌর শোকজ্ঞাপণ করে টুইট করেছেন,

 

নাচের জগতে বিশাল বড় ক্ষতি, টুইটে জানিয়েছেন কোরিওগ্রাফার রেমো ডিসুজা,

মনীষা কৈরালাও টুইটারে শোকবার্তা প্রকাশ করেছেন,

 

অনুপম খের টুইটে শোকপ্রকাশ করেছেন,

 

নীল নীতিন মুকেশ শোকজ্ঞাপণ করে টুইট করেছেন,

 

কঙ্গনা রানাউত শোকপ্রকাশ করে টুইট করেছেন,

 

বলিউডে চার দশকের বেশি সময় ধরে জড়িত ছিলেন তিনি। দুহাজারের বেশি গানে কোরিওগ্রাফি করেছেন সরোজ। সালটা ১৯৭৪ । গীতা মেরা নাম ছবিতে কোরিওগ্রাফির মাধ্যমেই বলিউডে অভিষেক হয় সরোজ খান। একের পর এক ছবিতে কোরিওগ্রাফি করেছেন সরোজ। তিন বার জাতীয় পুরস্কার জয়ী কিংবদন্তীর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলিউডে।