হিমেশ রোশামিয়া। বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক। আজ  ৪৭ বছরে পা দিলেন হিমেশ। দীর্ঘ এত বছরের বলি কেরিয়ারের পিছনেই রয়েছে এক বড় কাহিনি। যা অনেকেরই অজানা। অনেকেই হয়তো জানেন না সলমন না থাকলে বলিউডে হিমেশের পরিচিতি সেভাবে তৈরিই হতো না। কারণ সকলে আস্থা হারালেও সলমনই একদিন হিমেশে কাজ দিয়েছিল বলিউডে। সলমন- হিমেশে জুটির জনপ্রিয় হিট নাম্বার ছিল তেরে নাম। সিনেমার প্রতিটি গানই সুপারহিট। তাই নিজের কেরিয়ার সাফল্যের পিছনে সলমনের প্রতি চির কৃতজ্ঞ হিমেশ।

আরও পড়ুন-সোয়াব রিপোর্ট নেগেটিভ অমিতাভের, দু-একদিনের মধ্যেই ছাড়া পাবেন হাসপাতাল থেকে...

হিমেশ সর্বদাই বলেন, সলমন আমাক ভাইজান। এবং তিনিই হলেন বলিউডেক সেরা। কীভাবে দর্শক টানতে হয় তার থেকে ভাল আর কেউ জানে না। সলমন প্রতি বছর যেভাবে দর্শকদের চমকে দেন, তাতে অনেক কিছুই শিক্ষণীয়। এবং আগামীদিনেই নাকি তিনি এভাবেই দর্শকমন জয় করবেন বলে আশাবাদী হিমেশ। একটা সময় হিমেশকে কেউই সেভাবে পাত্তা দেয়নি বলিউডে। এমনকী তার উপর বিশ্বাসটুকুও কেউ রাখতে পারেননি, সেইসময়ে সলমনই এসেছে তাকে সেই জায়গা থেকে তুলে বলিউডে নিয়ে এসেছিলেন। সলমনের হাত ধরে বলিউডে পা রেখেছিলেন হিমেশ রেশামিয়া।

আরও পড়ুন-সইফ-অমৃতার শেষ দেখা, কী ঘটেছিল সেই দিন, রহস্য ফাঁস সারার...

সলমনের প্যায়ার কিয়া তো ডরনা ক্যায়া ছবিতে প্রথম কাজ করেন হিমেশ। সেই ছবির গানও সুপারহিট হয়েছিল। তারপর থেকে সলমনের বেশ কয়েকটি ছবিতেই কাজ করেছিলেন তিনি। তবে সবথেকে জনপ্রিয় ছিল তেরে নাম ছবিটির গানগুলি। সম্প্রতি  নিজের ছবি গানে নেটদুনিয়ার নয়া সেনসেশন রাণু মন্ডলকেও সুযোগ দিয়েছিলেন হিমেশ।  সোশ্যাল মিডিয়ায় খুললেই তাকে নিয়ে কিছু না কিছু চলতেই থাকে। রানাগাট স্টেশন থেকে সোজা পাড়ি সুদূর মুম্বাইয়ে। হিমেশ রেশামিয়ার সঙ্গে  'তেরি মেরি কাহানি' গান গেয়েও রাতারাতি সেলিব্রিটি হয়ে উঠেছিলেন রাণু।