সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে এবার মাঠে নেমে পড়েছে বিহার পুলিশ। সাত দিন আগে অভিনেতার বাবা কেকে সিং একটি দীর্ঘ অভিযোগ দায়ের করেছিলেন বিহারে। মুম্বই পুলিশের তদন্তে তাঁরা ভরসা হারাচ্ছেন। সঙ্গে একাধিক অভিযোগ আনেন রিয়া ও তাঁর পরিবারকে ঘিরে। এই অভিযোগ হাতে পাওয়ার পরই তড়িঘড়ি মাঠে নেমে পড়েছে বিহার পুলিশ। ইতিমধ্যেই চার সদস্যের টিম পৌঁচ্ছে যায় মুম্বইতে। তবে অদ্ভুত বিষয় ঘটল যখন মুম্বইতে পৌঁচ্ছলেন আইপিএস বিনয় তিওয়ারি। 

বিনয় তিওয়ারি দেখছেন সুশান্তের তদন্তের সমস্ত দিক। আগেই পাঠিয়েছিলেন চার সদস্যের টিমকে। তাঁদের রিপোর্ট অনুযায়ী তিনি নিজেই হাজির হয়েছিলেন মুম্বইতে। কিন্তু তাঁর ক্ষেত্রে ঘটে যায় বিপত্তি। তড়িঘড়ি কোয়ারেন্টাইন করা হয় তাঁকে। ফলে ১৪ দিনের জন্য এক কথায় তাঁর হাত পা বেঁধে ফেলা হল যাতে তদন্ত খানিকটা মনের মত করো সাজিয়ে নেওয়া যায়, খবর প্রকাশ্যে আসার পর একশ্রেণীর এমনটাই মত। 

 

 

বিএমসি থেকে নেওয়া এই সিদ্ধান্ত কেন লাঘু হল না চারদিন আগে মুম্বই পৌঁচ্ছনো চার সদস্যের জন্য, উঠছে প্রশ্ন। অন্যদিকে মুম্বই পৌঁচ্ছে বিনয় তিওয়ারি জানিয়েছিলেন বিহার পুলিশ এখনও পর্যন্ত দেখা পাননি রিয়া চক্রবর্তীর। সামনে আসে আরও এক তথ্য দিশা মৃত্যু কেসের ফাইলও ডিলিট করা হয়।

একাধিক প্রশ্ন উঠে আসছে এবার মুম্বই পুলিশের ভুমিকা নিয়ে। ইতিমধ্যেই দেখা দিয়েছিল রিয়া চক্রবর্তী আবেদন করেছিলেন এই কেস যেন মুম্বই পুলিশের হাতেই থাকে, বিহার পুলিশের কাছে নয়। তবে এবার বিনয় তিওয়ারির ক্ষেত্রে ঘটা ঘটনাই প্রশ্ন তুলে ধরছে সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে কী তবে সত্যি স্বচ্ছতার অভাব ছিল মুম্বই পুলিশের ক্ষেত্রে, উত্তদের অপেক্ষায় সুশান্ত ভক্তরা।