বলিউডে একের পর এক তর্জা যেন বেড়েই চলেছে।  সুশান্তের মৃত্যুর পর একের এক বোমা ফাটাচ্ছেন বলিউডের কন্ট্রোভার্সি কুইন কঙ্গনা রানাউত। তার মৃত্যুর পর থেকেই স্বজনপোষণ নিয়ে জোর জল্পনা দানা বেঁধেছে বি-টাউনের অন্দরে। সম্প্রতি  টুইট নিয়ে নতুন বিতর্কে আর এক ধাপ এগিয়ে গেলেন বলিউডের কুইন। হিমাচল প্রদেশই মাদকের আঁতুড়ঘর। সুতরাং মাদকের বিরুদ্ধে লড়তে গেলে সবার আগে নিজের রাজ্য থেকেই তা শুরু করা উচিত, এমনই মন্তব্য করেছিলেন রঙ্গিলা গার্ল উর্মিলা মাতন্ডকর। উর্মিলা এই মন্তব্যেই পাল্টা আক্রমণ শানিয়েছেন কঙ্গনা। সফট পর্নস্টার বলে কদর্য ভাষায় কটাক্ষ করেন কঙ্গনা রানাউত।

 

 

অভিনেত্রী হিসেবে উর্মিলা কেমন, তাও খোঁচা দিয়েছেন কঙ্গনা। দিন দিন শালীনতার মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছেন কঙ্গনা। উর্মিলাকে করা মন্তব্যে তেমনটাই মনে করছেন নেটিজেনদের একাংশ।  অভিনয় নিয়ে উর্মিলাকে কটাক্ষর পরই কঙ্গনাকে একহাত নিয়েছেন বলিউডের একাংশ তথা নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ার নেটজনতার কটাক্ষের মুখে পড়েছেন কঙ্গনা। একজন দক্ষ অভিনেত্রীকে কেন  সফট পর্নস্টারের তকমা দিলেন কঙ্গনা, সেই প্রশ্নও তুলেছেনে নেটিজেনরা।

 

 

কিছুদিন আগেও ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা কঙ্গনাকে দিয়েছিল কেন্দ্র। সাধারণ মানুষের টাকা দিয়ে কেন এই নিরাপত্তা দেওয়া হবে কঙ্গনাকে সেই প্রশ্নও তুলেছিলেন উর্মিলা। তিনি এও জানান, গলা ফাটালেই যে তিনি সত্যি বলছেন,এটা সম্পূর্ণ ভুল বলেও দাবি করেন উর্মিলা। উর্মিলাকে সফট পর্নস্টারে তকমা দেওয়ায় নেটিজেনরা যখন ফুঁসে উঠেছেন তখনও দমে না গিয়ে কঙ্গনা লিখেছেন, যখন উর্মিলা আমায় বেশ্যা ও রুদালি বলেছিল তখন আপনারা কোথায় ছিলেন? নকল ফেমিনিস্টরাই হলেন নারী জগতের লজ্জা। 

 


কিছুদিন আগেও সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো যোগ দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন কঙ্গনা। বি-টাউনের প্রথম সারির অভিনেতা রণবীর সিং, রণবীর কাপুর, ভিকি কৌশল, পরিচালক অয়ন মুখোপাধ্যায় সহ আর অনেক তারকাদের মাদক পরীক্ষার দাবি তুলে রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছেন কঙ্গনা রানাউত। এরই মধ্যে কঙ্গনা নিজে যে মাদক নিতেন সেই পুরোনো ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে সরগরম নেটদুনিয়া। একাধিক বিতর্কে জড়িয়ে গেছে কঙ্গনার নাম। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই তাবড় তাবড় প্রভাবশালীদের একহাত নিয়েছেন অভিনেত্রী।