অবশেষে হিমাচলের মেয়ে হিমাচলের পথে। কঙ্গনা রানাওয়াতের মুম্বই আসা নিয়েই বাড়ে এনিশ্চয়তা। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ্তুর পর থেকেই কুইনের এক ভিন্ন লুক দেখেছেন নেটিজেনরা। বরাবরই তিনি নেট দুনিয়ায় নিজের মতামত স্পষ্ট তুলে ধরতে পিছু পা হননি। এবারও তার ব্যতিক্রম হল না। সুশান্ত সিং রাজুপুতের মৃত্যুর পর একাধিক তথ্য ফাঁস করে দেওয়ার কথা প্রকাশ্যে এনেছিলেন কুইন। তখন থেকেই বিবাদ শুরু। 

আরও পড়ুনঃ নিশানায় এবার কঙ্গনার বাড়ি, বেআইইনি নির্মাণ ঘরের কোন কোন জায়গায়, প্রকাশ্যে তালিকা

তবে একাধিক সিকিউরিটি থাকা সত্ত্বেও মুম্বই ছাড়লেন কঙ্গনা! এত তাড়াতাড়ি কেন! ওঠে প্রশ্ন। বিএমসির অপর এক চাল থেকে বাঁচতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া। বিএমসির কথায় কঙ্গনাকে কোনও মতেই ঢুকতে দেওয়া যাবে না যদি তিনি পুরো পুরি থাকার জন্য এসে থাকেন। কারণ হিসেবে তাঁরা সাফ জানায় গাইডলাইন মেনেই তাঁকে করা হবে কোয়ারেন্টাইন। কিন্তু তখনই কঙ্গনা থাকতে দেওয়া হবে, যদি কঙ্গনা রানাওয়াত সাত দিনের মধ্যে ফেরত টিকিট দেখাতে পারেন। 

 

/p>

কঙ্গনা রানাওয়াত তাই সাত দিন হওয়ার আগেই মুম্বই ছাড়লেন। ঝটিকা সফরে মুম্বইতে এসে একাধিক ঘটনার সাক্ষী থাকলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। অফি ভাঙার কাজ থেকে শুরু করে অভিযোগ দায়ের। এবার মহারাষ্ট্র সরকারের নজরে কঙ্গনা রানাওয়াতের খারের বাড়ি। সেখানেও নির্মাণ কাজ নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়ে।ে এখন দেখার, এই সুযোগে আবারও কি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উত্তর চেয়ে ভেঙে দেওয়া হতে পারে কঙ্গনার বাড়ি! জল্পনা তুঙ্গে।