বনি কাপুরের বাড়িতে একের পর এক পরিচারকের করোন টেস্ট পজিটিভ আসার পর এবার করণ জোহারের বাড়িতেই পড়ল করোনার থাবা। বাড়ির দুই পরিচারকের করোনা টেস্ট পজিটিভ আসার পর বাকি সদস্যের টেস্ট করানো হয়েছে। তাদের পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে বলে জানিয়েছেন করণ। করণ জানান, "আমি সকলকে জানাতে চাই আমার বাড়ির দুই পরিচারক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা দিতেই তৎক্ষণাৎ টেস্ট হয় তাদের। লক্ষণ দেখা দিতেই বাড়ির বিশিষ্ট একটি জায়গায় তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল। বিএমসিকেও সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয়েছে। পুরো বিল্ডিংকে স্যানিসাইজ করানো হয়েছে।"

করণ এও জানান, বাড়ির অন্যান্য পরিচারকের টেস্ট নেগেটিভ আসে। তাদের মধ্যে কোনও লক্ষণ নেই। তারা সহ করণ এবং তাঁর মা ও সন্তানদের স্যোয়াব টেস্ট করানো হয়েছে। প্রতিটি টেস্টই নেগেটিভ এসেছে। তবুও আগামী ১৪ দিন সেল্ফ আইসোলেশনে থাকবেন সকলে। আমরা সকলের সুরক্ষা নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত। আমি নিশ্চিত করছি সমস্ত নিয়ম মেনেই আমরা হোম কোয়ারেন্টাইন থাকব। এবং যে দুজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে তারাও যাতে সমস্ত সঠিক চিকিৎসা পেয়ে সুস্থ হয়ে ওঠে সেই দায়িত্বও নিয়েছি। বাড়িতে থেকে এবং প্রতিটি নিয়ম মেনেই তবেই আমরা এই করোনা ভাইরাসকে রুখতে পারব।

 

 

জাহ্নবী কাপুরও দিন কতক আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের বাড়িতে করোনার প্রকোপ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। প্রথমদিকে কিছু বলতে চাননি বনি কাপুর। একজন পরিচারকের পর আরও দুজন পরিচারকের করোনা টেস্ট পজিটিভ আসার পর মুখ খোলেন বানি। বনির কাপুর সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করে জানান, বাড়ির একজনের পর আরও দুজন পরিচারক করোনায় আক্রান্ত হন। সেই পোস্টই শেয়ার করে জাহ্নবী লিখেছিলেন, এখন বাঁচার একটাই উপায়। নিজের এবং সকলের কথা ভেবে বাড়িতে থাকা ছাড়া আর কোনও বিক্লপ নেই। তার সঙ্গে মানতে হবে প্রতিটি নিয়ম।