ফের নেটদুনিয়ায় কড়া সমালোচনার মুখে পায়েল রোহতগি। টুইটারে বলিউডের প্রতিভাবান অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিমকে নিন্দনীয় ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছেন পায়েল। ২০১৭ সালের একটি শ্লীলতাহানির ঘটনাকে কেন্দ্র করে পায়েলের এই আক্রমণ। সেই ঘটনাকে অবলম্বন করে পায়েল এমন একটি টুইট করেন যার নিশানা হয়েছে বলিউডের প্রতিভাবান অভিনেত্রী জায়রা।

আরও পড়ুন-চোখে কাজল কপালে বড় লাল টিপ, নয়া রূপে আত্মপ্রকাশ আলিয়ার...

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ায় ঝড় উঠেছে। পায়েলের টুইটকে অনেকে ধর্মান্ধ এবং এক সংকীর্ণ মনের মানুষের টুইট বলে ব্যাখা করেছেন। স্পষ্ট কথায় বলতে গেলে পায়েলের টুইট ঘিরে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন অসংখ্য নেটিজেন। কিছুদিন আগেই গান্ধী পরিবার নিয়ে বির্তকিত মন্তব্য করে আইনি হেফাজতে ছিলেন পায়েল।

 

আরও পড়ুন-সলমনের কোলে কার সন্তান,নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হল সেই ছবি...

পায়েল রোহতগি যে ঘটনাটির অবতারণা তার টুইটে করেছেন তাতে বিকাশ সচদেব নামে ৪১ বছরের এক বলিউড ব্যক্তিত্বকে  শ্লীলতাহানির অপরাধে তিন বছরের সাজা শুনিয়েছে আদালত। এই ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে  ঘটনাটি ঘটেছে।  বিমানে যাওয়ার সময় এই ঘটনার শিকার হয়েছিলেন অভিনেত্রী। ঘটনাটি যখন ঘটেছে তখন অভিনেত্রীর বয়স ছিল ১৭ বছর ।  পকসো আইনের আওতায় এ মামলার শুনানি হয়েছে।  আর সেই কারণেই পকসো আইনের আওতায় সংশ্লিষ্ট ধারার আওতাতে সচদেবকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।  প্রকাশ্যে আসা মাত্রই এই নিয়ে শোরগোল বি-টাউনে। ২০১৭ সালেই নির্যাতিতা নিজের সোশ্যালে পুরো ঘটনার কথা জানিয়েছিলেন। এমনকী গত বছরই অভিনয় জগত থেকে সরে যাওয়ারও ঘোষণা করেন তিনি। বিকাশ সচদেবকে তিন বছরের কারাদণ্ড এবং 25,500 রুপি জরিমানা করা হয়েছিল। কিন্তু তার আইনজীবি ন্যূনতম সাজার আর্জি ঘোষণা করেন। এর আগে তার কোনও অপরাধের রেকর্ড না ছিল না। কিন্তু সরকারের পক্ষের আইনজীবি অভিযুক্তের সাজার দাবি করেন।