রঙ্গনাথন মাধবন, বা বলিউডের ম্যাডি, জীবনের শুরুটা করতে চেয়েছিলেন একটু ভিন্ন ধাঁচে। দেশের প্রতিরক্ষা বিভাগে  যোগ দেওয়ার স্বপ্ন দেখতেন তিনি। কলেজ জীবনে পড়াকালিনই এনসিসি-তে যোগদান করেছিলেন মাধবন। সেখান থেকেই একের পর এক ধাপ পেরনো।

২২ বছর বয়স থেকেই মিলিটারি  প্রশিক্ষণের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করেছিলেন তিনি। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে পাড়ি দিয়েছিলেন বিদেশে। মহারাষ্ট্রের এনসিসির ক্যাম্পের প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পরই সুযোগ আসে ইংল্যান্ডের সাতটি জায়গায় এনসিসি-র প্রশিক্ষণের। ব্রিটিশ আর্মি, রয়্যাল নেভি, রয়্যাল এয়ার ফোর্স-এর প্রশিক্ষণ শেষও করেছিলেন তিনি। কিন্তু ততক্ষণে সাময়িক দেরি হওয়ায় ঘটে বিপত্তি। আর্মিতে যোগদানের নির্দিষ্ট বয়সসীমা পেরিয়ে যায় মাধবনের। ফলেই সে পথে আর এগোতে পারেননি তিনি।

আজ নিজের ৪৯ তম জন্মদিনে এসেও কোথাও কি আক্ষেপ মনের কোণে দানা বাঁধে, সে প্রসঙ্গে কখনই মুখ খোলেন না অভিনেতা। কারণ বলিউডে তার জনপ্রিয়তা বরাবরই তুঙ্গে। মোটের ওপর ৫০টা ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত বলিউডে প্রথম ডেবিউ করেছিলেন তিনি ১৯৯৬ সালে ইস রাত কি সুভা নেহি ছবির মধ্যে দিয়ে। এরপর থেকেই একের পর এক ছবির প্রস্তাব পেতে থাকেন তিনি। ১৯৯৬ থেকে প্রতি বছরই অন্তত একটি করে ছবি তিনি দর্শকদের উপহার দিয়েছে। বেশ কিছু ওয়েব সিরিজেও এখন মাধবনের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। বর্তমানে রকেট্রি ছবির কাজ নিয়ে তিনি বেজায় ব্যস্ত। অভিনেতা ৪৯ বছরের জন্মদের বেশ কিছুটা সময় তাই শ্যুটিং ফ্লোরেই কাটাছেন।