সোমবার সকালেই প্রয়াত হন বীরু দেবগণ। তারপরই দেবগণ পরিবারে নেমে আসে শোকের ছায়া। সেই সংকট কাটতে না কাটতেই নতুন ঝড় কাজলের জীবনে। স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটে কাজলের মা তনুজার। তাকে অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি করা হয় মুম্বইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে।

সোমবার অজয় দেবগণের বাবা প্রয়াত হওয়ার খবর মুহুর্তে ছড়িয়ে পড়ে বিটাউনে। এরপর একে একে দিনভর সকল কলাকুশলীরা দেবগণ পরিবারের পাশে এসে দাঁড়ায়। ঐ দিনই সন্ধ্যে ৬টা নাগাদ শেষকৃর্ত সুসম্পন্ন করা হয়। শ্বশুরের মৃত্যু শোক কাটিয়ে ওঠার আগেই আবারও বড় ধাঁক্কার সন্মুখীন দেবগণ পরিবার। বেশ কয়েকদিন যাবতই নানান বার্ধক্যজনিত কারণে শরীর ভালো থাকছিলনা তনুজা মুখোপাধ্যায়ের। ডাক্তারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, পেটের ব্যথা নিয়েই তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। বাড়ির পরিস্থিতি সামাল দিয়েই সময় মত হাসপাতালে উপস্থিত থাকছেন কাজল।

বর্তমানে তনুজার শরীরের অবস্থা কেমন, সে বিষয় দেবগণ পরিবার এখনও কিছু জানাননি। বীরু দেবগণ হাসপাতালে ভর্তি থাকা অবস্থাতেও একবার তনুজা মুখোপাধ্যায়কে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। গত বছর নভেম্বর মাসে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন শ্বাসকষ্ট জণিত কারণের জন্য।

ফলেই এখন কাজল ব্যস্ত তার মায়ের দেখাশুনা নিয়ে। তনুজা মুখোপাধ্যায়, এই প্রবাদ প্রতীম অভিনেত্রী একসময় বলি-টলি দুই পর্দাই কাঁপিয়ে ছিলেন একই সঙ্গে। বাংলা ছবিতে তার হাতেখড়ি হয় দেওয়া নেওয়া ছবির মধ্যে দিয়ে। বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন উত্তম কুমার।