অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন ছোট থেকেই দেখছেন বিদ্যা বালান। কিন্তু কোথাও গিয়ে যেন বাস্তবে তা পূরণ করতে পারছিলেন না অভিনেত্রী। একের পর এক ছবির প্রস্তাব আসতে থাকে দক্ষিণী দুনিয়া থেকে। কিন্তু কিছু বোঝার আগেই তা হাত ছাড়া হয়ে যায় অভিনেত্রী। কীভাবে পরিস্থিতি সামাল দিয়ে অভিনেত্রী হয়ে উঠবেন বুঝতেন পারছিলেন না বিদ্যা। সম্প্রতি ক সাক্ষাৎকারে এমনই কথা তুলে ধরলেন বিদ্যা বালান। 

আরও পড়ুনঃ সহস্রতম পর্বে রাণী রাসমণি, রাসমণি-গদাধর-মথুরকে নিয়ে থাকছে নয়া চমক

বিদ্যা মানে এখন বলিউডে এক ভিন্ন ঘরানার ছবি। তাঁর লুক থেকে পর্দায় চরিত্রের উপস্থাপনা, এক কথায় বলতে গেলে বিদ্যাই তাঁর ছবির পরিচয়। তবে শুরুতে এতটা সহজ ছিল না পথ। বিদ্যা একাধিক ছবির প্রস্বাব পেয়েছিলেন। কিন্তু নিজের অজান্তেই তা চলে গিয়েছিল অন্যদের হাতে। এরপরই পেয়েছিলেন পরিণীতা ছবির প্রস্তাব। আর একটা সুযোগই বিদ্যার জন্য ছিল যথেষ্ট। অভিনয় গুণে তাক লাগিয়েছিলেন সকলকে। 

এরপর থেকে একে একে বড় ছবির প্রস্তাব আসতে শুরু করে। তবে ডার্টি পিকচারে তাঁর অভিনয় ঝড় তুলেছিল সিনে দুনিয়ায়। সেখান থেকেই বিদ্যার সাফল্যার পথ আরও বেশি প্রসস্থ হয়ে ওঠে। কাহানি থেকে শুরু মিশন মঙ্গল, বিদ্যার উপস্থিতিতেই যেন বক্স অফিসে লক্ষ্মী আসা। বর্তমানে মানব কম্পিউটর শকুন্তলা দেবী-র বায়োপিকে কাজ করেছেন তিনি। তা এখন মুক্তির অপেক্ষায়। শ্যুটিং শুরু হতে চলেছে শেরনি ছবিরও