স্ত্রী শিরলির সঙ্গে ৪৮ তম বিবাহবার্ষিকী পালনের অপেক্ষায় দিন তাঁর দিন কাটবে। করোনাভাইরাসের প্রথম টিকা গ্রহণ করে জানিয়ে দিয়েনে বিট্রের ৮২ বছরের বাসিন্দা ব্রায়ান পিঙ্কার। তিনি কিডনির সমস্যায় ভুগছেন হাসপাতালে ডায়ালিসিস চলে তাঁর। কিন্তু ভ্যাক্সিন নিয়ে মহামারির প্রকোপ থেকে বাঁচার আলো দেখতে পাচ্ছেন বলেই জানিয়েছেন ৮২র বৃদ্ধ। সোমবার থেকে ব্রিটেনে শুরু হয়েছে অক্সফোর্ড ও অস্ট্রোজেনেকার বিকাশ করা করোনাভাইরাস টিকা প্রদান। 

সোমবার ব্রিটেনের অস্ট্রফোন বিশ্ববিদ্যালয়ে কোভিড-ভ্যাক্সিনের টিকাকরণ শুরু হয়। হাসপাতালের পক্ষ থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে জানান হয়েছে ব্রায়ান পিঙ্কারের কথা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ৮২ বছরের অসুস্থ এই রোগীদের প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাক্সিনের শট দেওয়া হয়। টিকা পেয়ে উচ্ছসিত বৃদ্ধ সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, নার্স, চিকিৎসক, হাসপতালের কর্মী সকলের কাছেই তিনি কৃতজ্ঞ থাকবেন। তাঁদের জন্যই এই বছর শেষে তিনি বিবাহ বার্ষিকী পালন করতে সক্ষম হবেন বলেও আশা প্রকাশ করেছেন। পিঙ্কারকে প্রথম ইনজেকশন দিয়েছিলেন নার্স স্যাম ফস্টার। তিনি বসেছেন আগামী দিনে আরও বেশি রোগী ও সাধারণ মানুষকে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হবে বলেই প্রত্যাশা করছেন তিনি। 


ব্রিটেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ম্যাট গ্যানকক বলেছিলেন যে তিনি  অ্যাস্ট্রোজেনেকার কোভিড ১৯ ভ্যাক্সিন প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে গর্বিত। আগামী দিনে এই টিকা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। নতুন ভ্যাক্সিনের সরবরাহ নিশ্চিত করতে ব্রিটেনে আরও শতাধিক টিকাকরণ কেন্দ্রের অনুমতি দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। ব্রিটেনের ন্যানাশান হেলথ সার্ভিসের পক্ষ থেকে এটিকে জীবন রক্ষাকরী টিকা হিসেবে অভিহত করা হয়েছে। এটি টিকা গ্রহণ করেছেন অক্সফোর্ডেকর ভ্যাক্সিন দলের প্রধান ও ট্রায়ালের প্রধান অধ্যাপত অ্যান্ড্রু পোলার্ড। তিনি বসেল মহামারির হাত থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের রক্ষা করা তাঁদের প্রধান ও প্রথম কর্তব্য। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে ব্রিটেন ইতিমধ্যেই অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রোজেনেকার কোভিড১৯ ভ্যাক্সিনের ১-- মিলিয়ন ডোজ সংগ্রহ করেছে।