খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না চিনা কোটিপতি তথা 'আলিবাবা' অনলাইন শপিং সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা-কে। গত দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে জনসমক্ষে দেখা যায়নি তাঁকে। এমনকী গত নভেম্বরে তাঁরই চালু করা একটি ট্যালেন্ট শো-এর চূড়ান্ত পর্বে তাঁর উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও, সেখানেও আসেননি তিনি। প্রসঙ্গত, গত অক্টোবর মাস থেকেই চিনের শি জিনপিং সরকারের সঙ্গে বিরোধ বেঁধেছে তাঁর। এরই মধ্যে দীর্ঘদিন তাঁর জনসমক্ষে অনুপস্থিতি নিয়ে রহস্য তৈরি হয়েছে। তবে কি তাঁকে গায়েব করে দিল চিন সরকার?

জানা গিয়েছে 'আফ্রিকাজ বিজনেস হিরোস' নামে জ্যাক মা, নতুন উদ্যোগপতিদের সন্ধানে প্রতি বছর একটি ট্যালেন্ট শো আয়োজন করেন। জয়ী উদীয়মান আফ্রিকান উদ্যোপতি ১৫ লক্ষ ডলার-এর পুরষ্কার পান। এই প্রতিযোগিতারই চূড়ান্ত পর্বে  বিচারক হিসাবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতার। কিন্তু, শেষ মুহূর্তে তাঁর বদলে অনুষ্ঠানে যোদ দেন আলিবাবার এক কার্যনির্বাহি কর্তা। এমনকী মা-এর ছবিও শোয়ের ওয়েবসাইট থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় এবং শোয়ের জন্য তৈরি প্রচারমূলক ভিডিও থেকেও তাঁকে বাদ দেওয়া হয়।

ঠিক তার আগেই, গত অক্টোবরে এই ৫৬ বছর বয়সী চিনা বিলিয়নেয়ার-এর সঙ্গে বিরোধ বেধেছিল চিন সরকারের। চিনের আর্থিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা এবং রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির তীব্র সমালোচনা করেছিলেন জ্যাক মা। বলেছিলেন চৈনির আর্থিক নিয়ন্ত্রকরা 'উদ্ভাবনী শক্তিকে দমিয়ে রাখে'। সেইসঙ্গে চিনের গ্লোবাল ব্যাঙ্কিং-এর নিয়মকে তিনি যুগোপযোগী নয় বলেছিলেন। এছাড়া চিনে দৃঢ় আর্থিক বাস্তুতন্ত্র নেই বলেও মন্তব্য করেছিলেন।

স্বাভাবিকভাবেই, চিনা কর্তৃপক্ষ তাঁর এই সমালোচনা মোটেই ভালোভাবে নেয়নি। চিন সরকার তাঁর অ্যান্ট গ্রুপের একটি আইপিও বন্ধ করে দিয়েছিল। অ্যান্ট গ্রুপ-কে তার কার্যক্রম পুনর্গঠন করার নির্দেশও দেওয়া হয়। ডিসেম্বর মাসে আবার জিনপিং সরকার আলিবাবা গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে একচেটিয়া ব্যবসা বিরোধী আইনের আওয়তায় তদন্ত শুরু করেছে। সব মিলিয়ে শি জিনপিং বনাম জ্যাক মা - দ্বন্দ্ব তুঙ্গে। এরই মধ্যে খোঁদ মিলছে না আলিবাবা প্রধানের।

তবে আলিবাবা গোষ্ঠী এখনও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি। ট্যালেন্ট শো-তে আগে ঘোষণা করেও পর উপস্থিত না থাকার বিষয়ে আলিবাবা সংস্থার মুখপাত্র দাবি করেছেন, অন্য কর্মসূচি পড়ে যাওয়ার কারণেই ট্যালেন্ট শো-টির চূড়ান্ত পর্বের অংশ নিতে পারেননি।