Budget 2021-22 Live- পেট্রোপন্যে বসল কৃষি সেস, নিত্য পন্যের দাম আরও বাড়ার আশঙ্কা

Live Updates on Union Budget 2021-22 and Railway Budget 2021-22

3:45 PM IST

ভেকধারী সরকারের ফেকধারী বাজেট

ভেকধারী সরকারের ফেকধারী বাজেট - এমন ভাবেই কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-২২ বাজেটকে ব্যাখ্যা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন কৃষক মানুষ বিরোধী এই বাজেট। আরও দাবি করলেন, কলকাতা থেকে শিলিগুড়ির রাস্তা তাঁরাই বানিয়ে দিয়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন করে কিছু করার নেই।

3:40 PM IST

আত্মনির্ভরতার বাজেট

এই বাজেট ভারতে এবং বিশ্বে আত্মবিশ্বাস জাগিয়ে তুলবে। বাজেটের স্বাবলম্বনের দৃষ্টি রয়েছে এবং এতে সমাজের প্রতিটি বিভাগের কথা রয়েছে। কৃষকদের আয় বাড়ানোর দিকে জোর দেওয়া হয়েছে। কৃষকরা সহজেই ঋণ পাবেন।

2:40 PM IST

'রোড ফর ভোট'

'রোড ফর ভোট', অর্থাৎ ভোটের কথা মাায় রেখে রাস্তা তৈরি। এক কথায় কেন্দ্রীয় বাজেটকে এভাবেইব ব্যখ্যা করলেন কংগ্রেস পরিষদীয় দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী।

2:37 PM IST

বিশ্বাস তৈরি হয় ট্র্যাকরেকর্ড দেখে

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ভারতের অর্থনীতির পুনরুদ্ধারের বিষয়ে বিশ্বাস রাখতে বলছেন। কিন্তু বিশ্বাস তৈরি হয় ট্র্যাক রেকর্ড থেকে। মোদী সরকারের ট্র্যাক রেকর্ডে সেই বিশ্বাস তৈরি হচ্ছে না বলে জানালেন কংগ্রেস নেতা শশী থারুর।

2:37 PM IST

'সময়োপযোগী বাজেট'

বাজেটে প্রত্যাশা পূরণ করেছেন অর্থমন্ত্রী। এই বাজেট সময়োপযোগী এবং ভারতের প্রবৃদ্ধির দিকে তাকিয়ে তৈরি করা হয়েছে বলে জানালেন নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমার।

2:34 PM IST

‘কৃষক বিদ্রোহী’ বাজেট

কংগ্রেস দল বাজেট পেশের পর কৃষি সমস্যাগুলি সমাধান করতে ব্যর্থতার জন্য কেন্দ্রের সমালোচনা করেছে। কেন্দ্রীয় বাজেটকে ‘কৃষক বিদ্রোহী’ বলে আখ্যায়িত করেছে।

2:22 PM IST

বাড়ল সেনসেক্স, নিফটি

২০০০ পয়েন্ট বাড়ল সেনসেক্স ৪৮,৩৪৬.৮৮-এ দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে নিফটি-ও ১৯১.৮৫ পয়েন্ট বেড়ে বর্তমানে ১৩,৮২৬.৪৫-এ পৌঁছেছে।

2:22 PM IST

আয়করে কী কী বদল

বাজেটে কী কী বদল এল আয়করে

2:16 PM IST

কী পেল কৃষিক্ষেত্র

কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-এ কী কী পেল কৃষিক্ষেত্র

1:35 PM IST

পেট্রোল ও ডি়জেলে কৃষি সেস

আয় বাড়াতে পেট্রো পন্যে কৃষি সেস বসালো মোদী সরকার। ডিজেলে ৪ টাকা প্রতি লিটার এবং পোট্রোলে ২.৫ টাকা প্রতি লিটার হিসাবে সেস বসানো হল। ফলে নিত্য ব্যবহার্য সকল পন্যের দাম আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

1:06 PM IST

শেষ হল বাজেট পেশ

শেষ হল কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ।

1:06 PM IST

বদলালো আমদানি শুল্ক

তামার ছাঁটের আমদানি শুল্ক কমিয়ে ২.৫ শতাংশ করা হল। ন্যাপথার শুল্কও কমে ২.৫ শতাংশ হল। সোনা ও রূপার আমদানী শুল্ক যৌক্তিক করা হচ্ছে। সৌরশক্তি চালিত ইনভার্টার, সৌর লণ্ঠনেরও আমদানি শুল্ক বেড়েছে। সমস্ত নাইলন পণ্যের আমদানি শুল্ক ৫ শতাংশ হয়েছে। টানেল বোরিং মেশিন-এর আমদানি শুল্ক ৭ শতাংশ।

12:59 PM IST

জিএসটি, কাস্টমস

গত দুই মাসে রেকর্ড পরিমাণ জিএসটি সংগ্রহ হয়েছে। জিএসটি কাঠামোকে আরও মসৃণ করার এবং অসঙ্গতিগুলি দূর করার চেষ্টা চলছে। একটি নতুন কাস্টমস শুল্ক কাঠামো তৈরি হরা হবে।

12:55 PM IST

প্রভিডেন্ট ফান্ড

নিয়োগকর্তারা অনেকসময় কর্মচারীদের বেতন থেকে  প্রভিডেন্ট ফান্ড এবং অন্যান্য সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের অবদানগুলি কেটে নিলেও সময়মতো তাদের অর্থ প্রদান করেন না। এই অর্থ সময়মতো জমা দেওয়া নিশ্চিত করতে দেরিতে জমা দেওয়ার বিষয়টি নিয়োগকর্তাদের ছাড় হিসাবে ধরা হবে না।

12:48 PM IST

আবাসন ক্ষেত্রে ছাড়

সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রকল্পগুলি এক বছরের জন্য ট্যাক্সের ছুটি পাবে। এছাড়া নতুন ফ্ল্যাট কিনলে দেড় লক্ষ টাকা আয়করে ছাড় মিলবে ২০২২ সালের মার্চ পর্যন্ত। শেয়ারের ডিভিডেন্ট থেকেও টিডিএস কাটা হবে না।

 

12:38 PM IST

৭৫-ঊর্ধ্বদের সম্পূর্ণ কর ছাড়

করদাতাদের চাপ কমাতে, বিশেষত বয়স্কদের কথা মাথায় রেখে ৭৫-ঊর্ধ্ব বয়সী পেনশনভোগীদের প্রাপ্ত সূদ সম্পূর্ণ করমুক্ত করা হল। তাদের আয়কর রিটার্নও জমা দিতে হবে না।

12:34 PM IST

আর্থিক ঘাটতি জিডিপির ৯.৫ শতাংশ

গত আর্থিক বছরে আর্থিক ঘাটতি জিডিপির ৯.৫ শতাংশ ধরা হয়েছে। সরকারী ঋণ, বহুপক্ষীয় তহবিল এবং স্বল্পমেয়াদী ঋণ গ্রহণের মাধ্যমে এই ঘাটতি মেটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আরও ৮০,০০০ কোটি টাকা প্রয়োজন। ২০২১-২২'এ জিডিপির ৬.৮ শতাংশ আর্থিক ঘাটতি হতে পরে বলে অনুমান করা হয়েছে। এর জন্য বাজার থেকে ঋণ গ্রহণ করা হবে ১২ লক্ষ কোটি টাকা।

12:26 PM IST

চাশ্রমিকদের জন্য ১ হাজার কোটি

অসম ও বাংলার চা বগানের শ্রমিকদের জন্য বাজেটে ১ হাজদার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হল।

12:26 PM IST

প্রথম ডিজিটাল আদমশুমারি

আসন্ন আদমশুমারি হবে প্রথম ডিজিটাল জনগণনা। এর জন্য, এই বছর ৩,৭৫৮ কোটি টাকা বরাদ্দ।

 

12:22 PM IST

অসংগঠিত শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা

অসংগঠিত শ্রমিক এবং নির্মাণ কর্মীদের তথ্য রাখার জন্য একটি পোর্টাল চালু করা হবে। এতে উপকৃত হবেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। এছাড়া এই কর্মীদের সামাজিক সুরক্ষা বাড়ানো হবে। এটি চারটি নতুন শ্রম কোড আনা হবে। মহিলা শ্রমিকদের পর্যাপ্ত সুরক্ষা সহ রাতে কাজ করার অনুমতি দেওয়া হবে।

12:16 PM IST

মানবসম্পদ উন্নয়ন

১৫ হাজার স্কুলকে নতুন শিক্ষা নীতির আওতায় আনা হচ্ছে। এছাড়া তৈরি করা হবে একচি উচ্চ শিক্ষা কমিশন। এর আওতায় থাকবে ভরতের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। সেইসঙ্গে আদিবাসী এলাকায় ৭৫৮টি নতুন স্কতুল তৈরি করা হবে।

12:09 PM IST

এক দেশ এক রেশন কার্ড

পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য চালু হচ্ছে এক দেশ এক রেশনকার্ড প্রকল্প। প্রাথমিকভাবে ৩২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে চালু হচ্ছে, পরবর্তী ক্ষেত্রে বাকি ৪টি রাজ্যেও এই প্রকল্প চালু হবে। 

12:04 PM IST

বেসরকারিকরণ

জ্যগুলিকে বিপুল পরিমাণ পড়ে তাকা সরকারি জমি বিক্রির নির্দেশ। এই অর্থ প্রকল্পের কাজে বিনিয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এয়ার ইন্ডিয়া, পবনহংস, বিপিসিএল-এর মতো অলাভজনক সংস্থআ বিক্রি করে দেওয়া হবে। এলআইসির শেয়ারও বেসরকারিকরণ হবে। 

11:58 AM IST

ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের আশ্বাস

উৎপাদন মূল্যের দেড়গুণ অর্থ দেওযা হবে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বা MSP হিসাবে। আশ্বাস দিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এছাড়া ৪৩.৬ লক্ষ কৃষক ৭৫ হাজার কোটি টাকা পাবেন। সেইসঙ্গে, ১ লক্ষ ৭২ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হবে শস্য সংগ্রহে। 

11:45 AM IST

উজ্জ্বলা প্রকল্প এবং গ্যাস বন্টন

উজ্জ্বলা প্রকল্পের আওতায় আরও ১ কোটি মানুষকে আনা হবে। শহরাঞ্চলে উন্নয়ন ঘটানো হবে গ্যাস বন্টনে।

11:45 AM IST

সৌর শক্তিতে ১ হাজার কোটি

১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ সৌরশক্তি উৎপাদন খাতে। বিদ্যুৎ সরবরাহের দায়িত্ব পাবে একের বেশি সংস্থা।

11:45 AM IST

বিমা আইনে বদল

৪৯ শতাংশের বদলে ৭৪ শতাংশ পর্যন্ত বিজদেশি বিনিয়োগে অনুমোদন।

11:45 AM IST

বন্দর বেসরকারিকরণ

সমুদ্র বন্দরগুলির ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে সরকার ভর্তুকিও দেবে। এছাড়া জাপান থেকে জাহাজ এনে পুনর্নির্মাণ করা হবে, যাতে ১.৫ লক্ষ কর্মসংস্খান হবে বলে আশা করা হচ্চে।

11:43 AM IST

রেলে বরাদ্দ ১ লক্ষ ২৫ হাজার কোটি

রেল খাতে বরাদ্দ করা হয়েছে ১ লক্ষ ২৫ হাজার কোটি টাকা। মূলধন খাতে ব্যয় করা হবে ১ লক্ষ কোটি টাকা। রেলের জন্য তৈরি করা হয়েছে জাতীয় রেল পরিকল্পনা। খড়গপুর থেকে বিজয়ওয়ারা পর্যন্ত তৈরি করা হবে ফ্রেইট করিডোর। এছাড়া মেট্রো নিউ এবং মেট্র্রো লাইট নামে দুটি নতুন রেল প্রকল্প চালু করা হবে। এতে করে যুব সমাজের কর্মসংস্থানের আশা করা হচ্ছে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST

সম্পত্তির নগদীকরণ

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:29 AM IST

পশ্চিমবঙ্গে ৬৭৫ কিমি রাস্তা

পশ্চিমবঙ্গে ৬৭৫ কিলোমিটার স্টেট হাইওয়ে তৈরি করা হবে। কলকাতা শিলিগুড়ি রাস্তার মেরামত করা হবে। এর জন্য বরাদ্দ ২৫ হাজার কোটি টাকা।

11:26 AM IST

বস্ত্রশিল্প পার্ক

তৈরি করা হবে বস্ত্রশিল্পের পার্ক। থাকবে রফতানির বিশ্বমানের পরিকাঠামো। হবে কর্মসংস্থান।

11:24 AM IST

টিকারকরণ

করোনা টিকারকরণ অভিযানের জন্য বরাদ্দ হয়েছে ৩৫ হাজার কোটি টাকা।

11:22 AM IST

বাজেট লাইভ সারসরি সংসদ থেকে

11:18 AM IST

স্বাস্থ খাতে ২ লক্ষ ৮৩ হাজার কোটি

স্বাস্থ খাতে বাজেটে বরাজদ্দ করা হল ২ লক্ষ ৮৩ হাজার কোটি টাকা। উপকৃত হবে ১৭ হাজার গ্রাম। ২০ বড় শহরে হবে স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান। বরাদ্দ বৃদ্ধি ১৩৭ শতাংশ।

 

আত্মনির্ভর প্রকল্পে মোট বরাদ্দ জিডিপি-র ১৩ শতাংশ।

11:16 AM IST

প্রথমেই আত্মনির্ভর ভারত

প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীর আত্মনির্ভর ভারত গঠনের স্বপ্ন সফলে বাজেট বরাদ্দের বিষয়ে জানাচ্ছেন নির্মলা সীতারমণ।

11:01 AM IST

শুরু হল অধিবেশন

শুরু হল লোকসভার অধিবেশন। বাজেট ২০২১-২২ পেশ করা শুরু করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ।

10:55 AM IST

অনুমোদন মন্ত্রিসভার

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিল অর্থমন্ত্রকের তৈরি কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-২২'কে।

10:24 AM IST

সংসদে পৌঁছলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

10:22 AM IST

বাজেটের লাল খাতা নিয়ে সংসদে নির্মলা

10:01 AM IST

প্রথামেনে রাষ্ট্রপতি ভবনে নির্মলা সীতারামণ

9:23 AM IST

অর্থমন্ত্রক থেকে সংসদ ভবনের পথে নির্মলা ও তাঁর টিম

9:20 AM IST

চাঙ্গা শেয়ার বাজার

9:14 AM IST

অর্থমন্ত্রকে পৌঁছলেন নির্মলা সীতারামণ

8:51 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্প

২০২০ সালের বাজেটের অন্যতম প্রধান বিষয় ছিল 'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্প। যে সমস্ত শুল্কপ্রদান নিয়ে বিতর্ক রয়েছে, সেগুলির ক্ষেত্রে ১০০ শতাংশ মিটিয়ে শুল্ক মিটিয়ে দিলে সুদ ও জরিমানা ছাড়াই মামলাগুলির নিষ্পত্তি করবে সরকার। এইভাবে রাজস্ব বাড়বে বলে জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। মহামারির কারণে এই প্রকল্পের কাজ বেশি এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেনি সরকার। এইবার আরও বেশি করদাতাকে এই প্রকল্পের সুবিধা গ্রহণ করার বিষয়ে আকৃষ্ট করতে সরকার এই প্রকল্পের সুবিধা আরও বাড়াতে পারে বলে অনেকেই মনে করছেন। কারণ মহামারি পরবর্তী ক্ষেত্রে রাজস্ব বৃদ্ধিই এখন মোদী সরকারের আশু লক্ষ্য। 

8:45 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

রিয়েল এস্টেট ক্ষেত্রে সংস্কার

মহামারির আগেই ঝিমিয়ে ছিল রিয়েল এস্টেট ক্ষেত্র। মহামারি এবং লকডাউনের ফলে দারুণ ভাবে পড়ে গিয়েছে বাড়ি-জমির ন্যায্য বাজার মূল্য। তবে এ জাতীয় সম্পত্তির স্ট্যাম্প শুল্ক মূল্য ও সার্কেলের হার একই রয়েছে। ফলে কোনও স্থাবর সম্পত্তি ন্যায্য বাজার মূল্যে বিক্রি করা হলেও, আয়কর আইনের অধীনে অপব্যবহার বিরোধী বিধির আওতায় সেগুলির কর স্ট্যাম্প শুল্ক মূল্যেই গণনা করা হয়। এই ক্ষেত্রে সরকারের ওই বিধান সংস্কারের বিষয়ে বিবেচনা করা উচিত বলে মনে করছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

8:43 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

গবেষণা ও উন্নয়নের জন্য বড় মাপের কর ছাড়

কোভিড মহামারি সকলকে বৈজ্ঞানিক গবেষণা এবং উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের গুরুত্ব চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। কাজেই বৈজ্ঞানিক গবেষণা ও উন্নয়ন ব্যয়ের জন্য, বিশেষ করে রোগ বিষয়ক গবেষণা ও নিরাময়ের টিকা বিকাশের ক্ষেত্রে ব্যয়ভার কমানোর জন্য এই ক্ষেত্রে সরকার বড় মাপের কর ছাড়ের কথা বিবেচনা করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

8:41 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

লভ্যাংশ আয়ের করের ক্ষেত্রে বৈষম্য দূর

২০২০ সালের বাজেটের লভ্যাংশ বিতরণ কর বাতিল করা হয়েছিল। এরফলে লভ্যাংশ আয়করের ক্ষেত্রে অনাবাসী এবং ভারতে বসবাসকারীদের প্রদত্ত আয়করের মধ্যে একটি অনিয়ন্ত্রিত বৈষম্য তৈরি হয়েছে। অনাবাসীদের উপার্জিত লভ্যাংশের উপর আয়করের দিতে হয় ২০ শতাংশ হারে। এরমধ্যে আবার বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে ভারতের কর বিষয়ক চুক্তি রয়েছে, সেইসব দেশের বাসিন্দা হলে এই করের হার পড়ে ৫ থেকে ১৫ শতাংশ। সেখানে ভারতে বসবাসকারীদের ক্ষেত্রে একই লভ্যাংশ আয়ের করের হার ৩৫.৮৮ শতাংশ (প্রযোজ্য সারচার্জ এবং সেস সহ)। এই বিষয়ে একটা সামঞ্জস্য় আনবে সরকার, এমনটাই আশা করা হচ্ছে।

8:37 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

চাপে থাকা শিল্পক্ষেত্রকে সহায়তা

লকডাউনের সময় কার্যত কোনও চাহিদাই না থাকায় উড়ান, পর্যটন, খাদ্য ও পানীয়ের মতো বেশ কয়েকটি শিল্পক্ষেত্রের শুধু ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে তাইই নয়, এই ক্ষেত্রগুলির প্রাক-কোভিড স্তরের চাহিদা অর্জন করতে এখনও অনেক সময় লাগবে বলে জানাচ্ছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তাই এই ক্শিল্পক্ষেত্রগুলিকে সম্পূর্ণরূপে আগের অবস্থায় ফেরানোর জন্য সরকার তাদের ৮ বছর দীর্ঘ লস-ক্যারিং-ফরোয়ার্ড ব্যবস্থার মেয়াদ আরও অন্তত এক বছর বাড়াবে বলে আশা করা হচ্ছে।

8:35 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

আবাসিক অবস্থা

আয়কর না দিয়ে বছরে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত দেশে থাকার অনুমতি দেওয়া হয় অনাবাসী ভারতীয়দের। গত বছর করোনার কারণে দেশব্যাপী লকডাউন এবং বিমান পরিবহন বন্ধ থাকার কারণে, অনেক অনাবাসী ভারতীয়ই সেই নির্দিষ্ট সময় পার করে ফেলেছিলেন। কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ ট্যাক্স বোর্ড এই অনাবাসীদের 'অনৈচ্ছিক অবস্থানের' জন্য এই ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছে। কিন্তু তা ছিল এক বছরের জন্য। এছাড়া এই সময়ে বহু বিদেশী সংস্থার কর্মীও ভারতে তাদের বাড়ি থেকে কাজ করেছেন। যার ফলে তাদের ভারতের 'স্থায়ী প্রতিষ্ঠান' হিসাবে বিবেচিত হওয়ার এবং করের আওতায় পড়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছিল। সেখানেও ছাড় দেওয়া হয়েছিল। এই দুই ক্ষেত্রেও আগামী অর্থবর্ষেও উপযুক্ত ছাড় দেওয়ার প্রত্যাশা করছেন অনাবাসীরা।

8:31 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

বীমা ক্ষেত্রে উদ্দীপনা

ভারতে বীমা ক্ষেত্রে মানুষের যোগদান খুবই কম। মহামারি চলাকালীন চিকিত্সা উচ্চ ব্যয় অনেককেই বীমামুখী করবে বলে আশা করা হচ্চএ। এই অবস্থায় বীমা ক্ষেত্রের ভারতের যোগদান বৃদ্ধির জন্য জীবন বীমা ও স্বাস্থ্য বীমা করানোর জন্য করদাতাদের আরও উৎসাহিত করতে কর ছাড়ের সীমা বাড়ানো হতে পারে। এছাড়া কর্পোরেট গোষ্ঠীগুলিকে তাদের কর্মীদের জন্য গ্রুপ চিকিত্সা বীমার জন্য উচ্চতর করের সুবিধাও দেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। 

8:29 AM IST

কী কী প্রত্যাশা করদাতাদের

কর্পোরেট কর ছাড়
মহামারির আগে কর্পোরেট করের হার সংস্থাগুলির জন্য ২২ শতাংশ এবং উত্পাদনকারীদের জন্য ১৫ শতংশে নামিয়ে আনা হয়েছিল। এই ক্ষেত্রে কর হ্রাস কার্যত অসম্ভব বলে মনে হলেও, লকডাউনের সময় যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা মোকাবিলা করতে সরকারি সহায়তা হিসাবে বিনিয়োগভিত্তিক আর্থিক ত্রাণ এবং আগের বছরের ক্ষয়ক্ষতি সামঞ্জস্য করার ক্ষেত্রে নমনীয়তা আশা করা হচ্ছে।

8:04 AM IST

আজ বাজেটে কোন কোন বিষয়ে থাকবে নজর

yesআয়করের কোনও নতুন বিন্যাস হয় কি না, বিশেষ করে মধ্যবিত্তি আয়কারীদের কর ছাড়ে কী সুবিধা মিলবে, সঞ্চয়ের সুদ এই মুহূর্তে একটা বড় ইস্যু, আমানতকারীর আমানত জমা রেখে কীভাবে বাড়তি সুদ পেতে পারেন- এই নিয়ে অর্থমন্ত্রক কোনও পরিকল্পনা নিয়ে আসে কি না,

yesঅতিমারির জেরে গরিবের হাতে টাকা নেই, ফলে গরিবের হাতে আর্থিক অনুদান আসাটা খুবই প্রয়োজন, এর জন্য ধনকুবেরদের উপরে বাড়তি সেস বসানোর সম্ভাবনা রয়েছে, বাস্তবে কোনও পথে কেন্দ্রের মোদী সরকার হাঁটবে- সেটাই এখন দেখার

yesপ্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে তেলের দাম, পেট্রোল থেকে ডিজেলের দরে আগুন, এমতাবস্থায় কেন্দ্রের কী পরিকল্পনা হয় জ্বানানির দাম কমাতে, সেদিকেও নজর রাখছে দেশবাসী

yesবাজারে ক্রমশই তলানিতে এসে ঠেকেছে চাহিদা, প্রায় একবছর মানুষ কার্যত গৃহবন্দি, আয় কমেছে, কমেছে কর্মসংস্থান, যার প্রভাব পড়েছে চাহিদায়, এই পরিস্থিতিতে চাহিদাকে চাঙ্গা করতে কোন মন্ত্রের সুরাহা দেবেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন

yesঅতিমারির জেরে পরিকাঠামো ক্ষেত্রে গত এক বছরে সেভাবে কাজ হয়নি, এই মুহূর্তে এই খাতে বিপুল সরকারি বিনিয়োগ দরকার,  বাজেটে এর জন্য কোন সুরাহা দেওয়া হয়, সেদিকেও নজর থাকবে

yesঅর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে বাজারে লিকুইড ক্যাসের জোগান বাড়ানো হতে পারে, এর জন্য কী কী পরিকল্পনা সরকার নেয়- তাতে নজর থাকছে, ত্রাণ প্রকল্পকে কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে সেদিকেও নজর থাকছে, অনেকে মনে করছেন ত্রাণের স্থানে সরকার সস্তায় ঋণের প্রস্তাবকে ফের সামনে নিয়ে আসতে পারে

yesএই মুহূর্তে সরকারি ব্যয় এবং বেলাগাম ঘাটতি কেন্দ্রের কাছে সবচেয়ে বড় মাথাব্যাথা, এরমধ্যে পশ্চিমবঙ্গ-সহ বেশকিছু রাজ্যে ভোট রয়েছে, সুতরাং, এই জায়গায়া কিন্তু ভালোরকম চ্যালেঞ্জের মুখে নির্মলা সীতারামণ

7:41 AM IST

আজ থেকে ফের চালু হল ইউটিএস মোবাইল অ্যাপে অসংক্ষিত রেল টিকিট পাওয়ার সুবিধা, তবে এই সুবিধা এই মুহূর্তে শুধু চেন্নাই-এর জন্য

7:39 AM IST

কনস্ট্যান্ট প্রাইসে কৃষিক্ষেত্রে ৩.৪% বৃদ্ধি, জানাল আর্থিক সমীক্ষা

7:35 AM IST

জিএসটি-র রেকর্ড কালেকশন, টুইট অর্থমন্ত্রকের

10:09 PM IST

জানুয়ারিতে GST-তে রেকর্ড

জানুয়ারিতে জিএসটি আদায় হয়েছে ১.১৯ লক্ষ কোটি টাকা 

8:30 PM IST

২০২১-২২-এ ভারতে গড় বৃদ্ধির হার ১১শতাংশে পৌঁছবে বলে দাবি

8:28 PM IST

কীভাবে ক্যাপিট্যাল এক্সপেনডিচারের মাধ্যমে অতিমারিতে অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার পরিকল্পনা হচ্ছে, জানালেন সঞ্জীব স্যান্যাল

8:26 PM IST

কীভাবে পাওয়া যাবে বাজেট লাইভ, টুইট করে জানাল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীক

8:20 PM IST

রাত পেরোলেই বাজেট ২০২১-২২, তার আগে ফোটো সেশন অর্থমন্ত্রীর

3:45 PM IST:

ভেকধারী সরকারের ফেকধারী বাজেট - এমন ভাবেই কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-২২ বাজেটকে ব্যাখ্যা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন কৃষক মানুষ বিরোধী এই বাজেট। আরও দাবি করলেন, কলকাতা থেকে শিলিগুড়ির রাস্তা তাঁরাই বানিয়ে দিয়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন করে কিছু করার নেই।

3:40 PM IST:

এই বাজেট ভারতে এবং বিশ্বে আত্মবিশ্বাস জাগিয়ে তুলবে। বাজেটের স্বাবলম্বনের দৃষ্টি রয়েছে এবং এতে সমাজের প্রতিটি বিভাগের কথা রয়েছে। কৃষকদের আয় বাড়ানোর দিকে জোর দেওয়া হয়েছে। কৃষকরা সহজেই ঋণ পাবেন।

2:40 PM IST:

'রোড ফর ভোট', অর্থাৎ ভোটের কথা মাায় রেখে রাস্তা তৈরি। এক কথায় কেন্দ্রীয় বাজেটকে এভাবেইব ব্যখ্যা করলেন কংগ্রেস পরিষদীয় দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী।

2:39 PM IST:

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ভারতের অর্থনীতির পুনরুদ্ধারের বিষয়ে বিশ্বাস রাখতে বলছেন। কিন্তু বিশ্বাস তৈরি হয় ট্র্যাক রেকর্ড থেকে। মোদী সরকারের ট্র্যাক রেকর্ডে সেই বিশ্বাস তৈরি হচ্ছে না বলে জানালেন কংগ্রেস নেতা শশী থারুর।

2:37 PM IST:

বাজেটে প্রত্যাশা পূরণ করেছেন অর্থমন্ত্রী। এই বাজেট সময়োপযোগী এবং ভারতের প্রবৃদ্ধির দিকে তাকিয়ে তৈরি করা হয়েছে বলে জানালেন নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমার।

2:34 PM IST:

কংগ্রেস দল বাজেট পেশের পর কৃষি সমস্যাগুলি সমাধান করতে ব্যর্থতার জন্য কেন্দ্রের সমালোচনা করেছে। কেন্দ্রীয় বাজেটকে ‘কৃষক বিদ্রোহী’ বলে আখ্যায়িত করেছে।

2:32 PM IST:

২০০০ পয়েন্ট বাড়ল সেনসেক্স ৪৮,৩৪৬.৮৮-এ দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে নিফটি-ও ১৯১.৮৫ পয়েন্ট বেড়ে বর্তমানে ১৩,৮২৬.৪৫-এ পৌঁছেছে।

2:23 PM IST:

বাজেটে কী কী বদল এল আয়করে

2:21 PM IST:

কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-এ কী কী পেল কৃষিক্ষেত্র

1:35 PM IST:

আয় বাড়াতে পেট্রো পন্যে কৃষি সেস বসালো মোদী সরকার। ডিজেলে ৪ টাকা প্রতি লিটার এবং পোট্রোলে ২.৫ টাকা প্রতি লিটার হিসাবে সেস বসানো হল। ফলে নিত্য ব্যবহার্য সকল পন্যের দাম আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

1:07 PM IST:

শেষ হল কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ।

1:06 PM IST:

তামার ছাঁটের আমদানি শুল্ক কমিয়ে ২.৫ শতাংশ করা হল। ন্যাপথার শুল্কও কমে ২.৫ শতাংশ হল। সোনা ও রূপার আমদানী শুল্ক যৌক্তিক করা হচ্ছে। সৌরশক্তি চালিত ইনভার্টার, সৌর লণ্ঠনেরও আমদানি শুল্ক বেড়েছে। সমস্ত নাইলন পণ্যের আমদানি শুল্ক ৫ শতাংশ হয়েছে। টানেল বোরিং মেশিন-এর আমদানি শুল্ক ৭ শতাংশ।

12:59 PM IST:

গত দুই মাসে রেকর্ড পরিমাণ জিএসটি সংগ্রহ হয়েছে। জিএসটি কাঠামোকে আরও মসৃণ করার এবং অসঙ্গতিগুলি দূর করার চেষ্টা চলছে। একটি নতুন কাস্টমস শুল্ক কাঠামো তৈরি হরা হবে।

12:55 PM IST:

নিয়োগকর্তারা অনেকসময় কর্মচারীদের বেতন থেকে  প্রভিডেন্ট ফান্ড এবং অন্যান্য সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের অবদানগুলি কেটে নিলেও সময়মতো তাদের অর্থ প্রদান করেন না। এই অর্থ সময়মতো জমা দেওয়া নিশ্চিত করতে দেরিতে জমা দেওয়ার বিষয়টি নিয়োগকর্তাদের ছাড় হিসাবে ধরা হবে না।

12:49 PM IST:

সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রকল্পগুলি এক বছরের জন্য ট্যাক্সের ছুটি পাবে। এছাড়া নতুন ফ্ল্যাট কিনলে দেড় লক্ষ টাকা আয়করে ছাড় মিলবে ২০২২ সালের মার্চ পর্যন্ত। শেয়ারের ডিভিডেন্ট থেকেও টিডিএস কাটা হবে না।

 

12:38 PM IST:

করদাতাদের চাপ কমাতে, বিশেষত বয়স্কদের কথা মাথায় রেখে ৭৫-ঊর্ধ্ব বয়সী পেনশনভোগীদের প্রাপ্ত সূদ সম্পূর্ণ করমুক্ত করা হল। তাদের আয়কর রিটার্নও জমা দিতে হবে না।

12:33 PM IST:

গত আর্থিক বছরে আর্থিক ঘাটতি জিডিপির ৯.৫ শতাংশ ধরা হয়েছে। সরকারী ঋণ, বহুপক্ষীয় তহবিল এবং স্বল্পমেয়াদী ঋণ গ্রহণের মাধ্যমে এই ঘাটতি মেটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আরও ৮০,০০০ কোটি টাকা প্রয়োজন। ২০২১-২২'এ জিডিপির ৬.৮ শতাংশ আর্থিক ঘাটতি হতে পরে বলে অনুমান করা হয়েছে। এর জন্য বাজার থেকে ঋণ গ্রহণ করা হবে ১২ লক্ষ কোটি টাকা।

12:27 PM IST:

অসম ও বাংলার চা বগানের শ্রমিকদের জন্য বাজেটে ১ হাজদার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হল।

12:26 PM IST:

আসন্ন আদমশুমারি হবে প্রথম ডিজিটাল জনগণনা। এর জন্য, এই বছর ৩,৭৫৮ কোটি টাকা বরাদ্দ।

 

12:22 PM IST:

অসংগঠিত শ্রমিক এবং নির্মাণ কর্মীদের তথ্য রাখার জন্য একটি পোর্টাল চালু করা হবে। এতে উপকৃত হবেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। এছাড়া এই কর্মীদের সামাজিক সুরক্ষা বাড়ানো হবে। এটি চারটি নতুন শ্রম কোড আনা হবে। মহিলা শ্রমিকদের পর্যাপ্ত সুরক্ষা সহ রাতে কাজ করার অনুমতি দেওয়া হবে।

12:16 PM IST:

১৫ হাজার স্কুলকে নতুন শিক্ষা নীতির আওতায় আনা হচ্ছে। এছাড়া তৈরি করা হবে একচি উচ্চ শিক্ষা কমিশন। এর আওতায় থাকবে ভরতের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। সেইসঙ্গে আদিবাসী এলাকায় ৭৫৮টি নতুন স্কতুল তৈরি করা হবে।

12:10 PM IST:

পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য চালু হচ্ছে এক দেশ এক রেশনকার্ড প্রকল্প। প্রাথমিকভাবে ৩২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে চালু হচ্ছে, পরবর্তী ক্ষেত্রে বাকি ৪টি রাজ্যেও এই প্রকল্প চালু হবে। 

12:05 PM IST:

জ্যগুলিকে বিপুল পরিমাণ পড়ে তাকা সরকারি জমি বিক্রির নির্দেশ। এই অর্থ প্রকল্পের কাজে বিনিয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এয়ার ইন্ডিয়া, পবনহংস, বিপিসিএল-এর মতো অলাভজনক সংস্থআ বিক্রি করে দেওয়া হবে। এলআইসির শেয়ারও বেসরকারিকরণ হবে। 

12:12 PM IST:

উৎপাদন মূল্যের দেড়গুণ অর্থ দেওযা হবে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বা MSP হিসাবে। আশ্বাস দিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এছাড়া ৪৩.৬ লক্ষ কৃষক ৭৫ হাজার কোটি টাকা পাবেন। সেইসঙ্গে, ১ লক্ষ ৭২ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হবে শস্য সংগ্রহে। 

11:51 AM IST:

উজ্জ্বলা প্রকল্পের আওতায় আরও ১ কোটি মানুষকে আনা হবে। শহরাঞ্চলে উন্নয়ন ঘটানো হবে গ্যাস বন্টনে।

11:52 AM IST:

১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ সৌরশক্তি উৎপাদন খাতে। বিদ্যুৎ সরবরাহের দায়িত্ব পাবে একের বেশি সংস্থা।

11:49 AM IST:

৪৯ শতাংশের বদলে ৭৪ শতাংশ পর্যন্ত বিজদেশি বিনিয়োগে অনুমোদন।

11:51 AM IST:

সমুদ্র বন্দরগুলির ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে সরকার ভর্তুকিও দেবে। এছাড়া জাপান থেকে জাহাজ এনে পুনর্নির্মাণ করা হবে, যাতে ১.৫ লক্ষ কর্মসংস্খান হবে বলে আশা করা হচ্চে।

11:43 AM IST:

রেল খাতে বরাদ্দ করা হয়েছে ১ লক্ষ ২৫ হাজার কোটি টাকা। মূলধন খাতে ব্যয় করা হবে ১ লক্ষ কোটি টাকা। রেলের জন্য তৈরি করা হয়েছে জাতীয় রেল পরিকল্পনা। খড়গপুর থেকে বিজয়ওয়ারা পর্যন্ত তৈরি করা হবে ফ্রেইট করিডোর। এছাড়া মেট্রো নিউ এবং মেট্র্রো লাইট নামে দুটি নতুন রেল প্রকল্প চালু করা হবে। এতে করে যুব সমাজের কর্মসংস্থানের আশা করা হচ্ছে।

11:36 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:35 AM IST:

অ্যাসেট মনিটাইজেশন বা সম্পত্তির নগদীকরণের জন্য একটি জাতীয় মুদ্রাঞ্চল পাইপলাইন চালু করা হবে এবং এর জন্য একটি ড্যাশবোর্ড তৈরি করা হবে।

11:38 AM IST:

পশ্চিমবঙ্গে ৬৭৫ কিলোমিটার স্টেট হাইওয়ে তৈরি করা হবে। কলকাতা শিলিগুড়ি রাস্তার মেরামত করা হবে। এর জন্য বরাদ্দ ২৫ হাজার কোটি টাকা।

11:27 AM IST:

তৈরি করা হবে বস্ত্রশিল্পের পার্ক। থাকবে রফতানির বিশ্বমানের পরিকাঠামো। হবে কর্মসংস্থান।

11:25 AM IST:

করোনা টিকারকরণ অভিযানের জন্য বরাদ্দ হয়েছে ৩৫ হাজার কোটি টাকা।

11:23 AM IST:

11:23 AM IST:

স্বাস্থ খাতে বাজেটে বরাজদ্দ করা হল ২ লক্ষ ৮৩ হাজার কোটি টাকা। উপকৃত হবে ১৭ হাজার গ্রাম। ২০ বড় শহরে হবে স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান। বরাদ্দ বৃদ্ধি ১৩৭ শতাংশ।

 

আত্মনির্ভর প্রকল্পে মোট বরাদ্দ জিডিপি-র ১৩ শতাংশ।

11:17 AM IST:

প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীর আত্মনির্ভর ভারত গঠনের স্বপ্ন সফলে বাজেট বরাদ্দের বিষয়ে জানাচ্ছেন নির্মলা সীতারমণ।

11:02 AM IST:

শুরু হল লোকসভার অধিবেশন। বাজেট ২০২১-২২ পেশ করা শুরু করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ।

10:57 AM IST:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিল অর্থমন্ত্রকের তৈরি কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-২২'কে।

10:22 AM IST:

10:21 AM IST:

9:59 AM IST:

9:22 AM IST:

9:18 AM IST:

9:15 AM IST:

8:42 AM IST:

'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্প

২০২০ সালের বাজেটের অন্যতম প্রধান বিষয় ছিল 'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্প। যে সমস্ত শুল্কপ্রদান নিয়ে বিতর্ক রয়েছে, সেগুলির ক্ষেত্রে ১০০ শতাংশ মিটিয়ে শুল্ক মিটিয়ে দিলে সুদ ও জরিমানা ছাড়াই মামলাগুলির নিষ্পত্তি করবে সরকার। এইভাবে রাজস্ব বাড়বে বলে জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। মহামারির কারণে এই প্রকল্পের কাজ বেশি এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেনি সরকার। এইবার আরও বেশি করদাতাকে এই প্রকল্পের সুবিধা গ্রহণ করার বিষয়ে আকৃষ্ট করতে সরকার এই প্রকল্পের সুবিধা আরও বাড়াতে পারে বলে অনেকেই মনে করছেন। কারণ মহামারি পরবর্তী ক্ষেত্রে রাজস্ব বৃদ্ধিই এখন মোদী সরকারের আশু লক্ষ্য। 

8:39 AM IST:

রিয়েল এস্টেট ক্ষেত্রে সংস্কার

মহামারির আগেই ঝিমিয়ে ছিল রিয়েল এস্টেট ক্ষেত্র। মহামারি এবং লকডাউনের ফলে দারুণ ভাবে পড়ে গিয়েছে বাড়ি-জমির ন্যায্য বাজার মূল্য। তবে এ জাতীয় সম্পত্তির স্ট্যাম্প শুল্ক মূল্য ও সার্কেলের হার একই রয়েছে। ফলে কোনও স্থাবর সম্পত্তি ন্যায্য বাজার মূল্যে বিক্রি করা হলেও, আয়কর আইনের অধীনে অপব্যবহার বিরোধী বিধির আওতায় সেগুলির কর স্ট্যাম্প শুল্ক মূল্যেই গণনা করা হয়। এই ক্ষেত্রে সরকারের ওই বিধান সংস্কারের বিষয়ে বিবেচনা করা উচিত বলে মনে করছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

8:39 AM IST:

গবেষণা ও উন্নয়নের জন্য বড় মাপের কর ছাড়

কোভিড মহামারি সকলকে বৈজ্ঞানিক গবেষণা এবং উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের গুরুত্ব চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। কাজেই বৈজ্ঞানিক গবেষণা ও উন্নয়ন ব্যয়ের জন্য, বিশেষ করে রোগ বিষয়ক গবেষণা ও নিরাময়ের টিকা বিকাশের ক্ষেত্রে ব্যয়ভার কমানোর জন্য এই ক্ষেত্রে সরকার বড় মাপের কর ছাড়ের কথা বিবেচনা করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

8:35 AM IST:

লভ্যাংশ আয়ের করের ক্ষেত্রে বৈষম্য দূর

২০২০ সালের বাজেটের লভ্যাংশ বিতরণ কর বাতিল করা হয়েছিল। এরফলে লভ্যাংশ আয়করের ক্ষেত্রে অনাবাসী এবং ভারতে বসবাসকারীদের প্রদত্ত আয়করের মধ্যে একটি অনিয়ন্ত্রিত বৈষম্য তৈরি হয়েছে। অনাবাসীদের উপার্জিত লভ্যাংশের উপর আয়করের দিতে হয় ২০ শতাংশ হারে। এরমধ্যে আবার বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে ভারতের কর বিষয়ক চুক্তি রয়েছে, সেইসব দেশের বাসিন্দা হলে এই করের হার পড়ে ৫ থেকে ১৫ শতাংশ। সেখানে ভারতে বসবাসকারীদের ক্ষেত্রে একই লভ্যাংশ আয়ের করের হার ৩৫.৮৮ শতাংশ (প্রযোজ্য সারচার্জ এবং সেস সহ)। এই বিষয়ে একটা সামঞ্জস্য় আনবে সরকার, এমনটাই আশা করা হচ্ছে।

8:34 AM IST:

চাপে থাকা শিল্পক্ষেত্রকে সহায়তা

লকডাউনের সময় কার্যত কোনও চাহিদাই না থাকায় উড়ান, পর্যটন, খাদ্য ও পানীয়ের মতো বেশ কয়েকটি শিল্পক্ষেত্রের শুধু ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে তাইই নয়, এই ক্ষেত্রগুলির প্রাক-কোভিড স্তরের চাহিদা অর্জন করতে এখনও অনেক সময় লাগবে বলে জানাচ্ছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তাই এই ক্শিল্পক্ষেত্রগুলিকে সম্পূর্ণরূপে আগের অবস্থায় ফেরানোর জন্য সরকার তাদের ৮ বছর দীর্ঘ লস-ক্যারিং-ফরোয়ার্ড ব্যবস্থার মেয়াদ আরও অন্তত এক বছর বাড়াবে বলে আশা করা হচ্ছে।

8:32 AM IST:

আবাসিক অবস্থা

আয়কর না দিয়ে বছরে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত দেশে থাকার অনুমতি দেওয়া হয় অনাবাসী ভারতীয়দের। গত বছর করোনার কারণে দেশব্যাপী লকডাউন এবং বিমান পরিবহন বন্ধ থাকার কারণে, অনেক অনাবাসী ভারতীয়ই সেই নির্দিষ্ট সময় পার করে ফেলেছিলেন। কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ ট্যাক্স বোর্ড এই অনাবাসীদের 'অনৈচ্ছিক অবস্থানের' জন্য এই ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছে। কিন্তু তা ছিল এক বছরের জন্য। এছাড়া এই সময়ে বহু বিদেশী সংস্থার কর্মীও ভারতে তাদের বাড়ি থেকে কাজ করেছেন। যার ফলে তাদের ভারতের 'স্থায়ী প্রতিষ্ঠান' হিসাবে বিবেচিত হওয়ার এবং করের আওতায় পড়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছিল। সেখানেও ছাড় দেওয়া হয়েছিল। এই দুই ক্ষেত্রেও আগামী অর্থবর্ষেও উপযুক্ত ছাড় দেওয়ার প্রত্যাশা করছেন অনাবাসীরা।

8:30 AM IST:

বীমা ক্ষেত্রে উদ্দীপনা

ভারতে বীমা ক্ষেত্রে মানুষের যোগদান খুবই কম। মহামারি চলাকালীন চিকিত্সা উচ্চ ব্যয় অনেককেই বীমামুখী করবে বলে আশা করা হচ্চএ। এই অবস্থায় বীমা ক্ষেত্রের ভারতের যোগদান বৃদ্ধির জন্য জীবন বীমা ও স্বাস্থ্য বীমা করানোর জন্য করদাতাদের আরও উৎসাহিত করতে কর ছাড়ের সীমা বাড়ানো হতে পারে। এছাড়া কর্পোরেট গোষ্ঠীগুলিকে তাদের কর্মীদের জন্য গ্রুপ চিকিত্সা বীমার জন্য উচ্চতর করের সুবিধাও দেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। 

8:29 AM IST:

কর্পোরেট কর ছাড়
মহামারির আগে কর্পোরেট করের হার সংস্থাগুলির জন্য ২২ শতাংশ এবং উত্পাদনকারীদের জন্য ১৫ শতংশে নামিয়ে আনা হয়েছিল। এই ক্ষেত্রে কর হ্রাস কার্যত অসম্ভব বলে মনে হলেও, লকডাউনের সময় যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা মোকাবিলা করতে সরকারি সহায়তা হিসাবে বিনিয়োগভিত্তিক আর্থিক ত্রাণ এবং আগের বছরের ক্ষয়ক্ষতি সামঞ্জস্য করার ক্ষেত্রে নমনীয়তা আশা করা হচ্ছে।

8:24 AM IST:

yesআয়করের কোনও নতুন বিন্যাস হয় কি না, বিশেষ করে মধ্যবিত্তি আয়কারীদের কর ছাড়ে কী সুবিধা মিলবে, সঞ্চয়ের সুদ এই মুহূর্তে একটা বড় ইস্যু, আমানতকারীর আমানত জমা রেখে কীভাবে বাড়তি সুদ পেতে পারেন- এই নিয়ে অর্থমন্ত্রক কোনও পরিকল্পনা নিয়ে আসে কি না,

yesঅতিমারির জেরে গরিবের হাতে টাকা নেই, ফলে গরিবের হাতে আর্থিক অনুদান আসাটা খুবই প্রয়োজন, এর জন্য ধনকুবেরদের উপরে বাড়তি সেস বসানোর সম্ভাবনা রয়েছে, বাস্তবে কোনও পথে কেন্দ্রের মোদী সরকার হাঁটবে- সেটাই এখন দেখার

yesপ্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে তেলের দাম, পেট্রোল থেকে ডিজেলের দরে আগুন, এমতাবস্থায় কেন্দ্রের কী পরিকল্পনা হয় জ্বানানির দাম কমাতে, সেদিকেও নজর রাখছে দেশবাসী

yesবাজারে ক্রমশই তলানিতে এসে ঠেকেছে চাহিদা, প্রায় একবছর মানুষ কার্যত গৃহবন্দি, আয় কমেছে, কমেছে কর্মসংস্থান, যার প্রভাব পড়েছে চাহিদায়, এই পরিস্থিতিতে চাহিদাকে চাঙ্গা করতে কোন মন্ত্রের সুরাহা দেবেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন

yesঅতিমারির জেরে পরিকাঠামো ক্ষেত্রে গত এক বছরে সেভাবে কাজ হয়নি, এই মুহূর্তে এই খাতে বিপুল সরকারি বিনিয়োগ দরকার,  বাজেটে এর জন্য কোন সুরাহা দেওয়া হয়, সেদিকেও নজর থাকবে

yesঅর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে বাজারে লিকুইড ক্যাসের জোগান বাড়ানো হতে পারে, এর জন্য কী কী পরিকল্পনা সরকার নেয়- তাতে নজর থাকছে, ত্রাণ প্রকল্পকে কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে সেদিকেও নজর থাকছে, অনেকে মনে করছেন ত্রাণের স্থানে সরকার সস্তায় ঋণের প্রস্তাবকে ফের সামনে নিয়ে আসতে পারে

yesএই মুহূর্তে সরকারি ব্যয় এবং বেলাগাম ঘাটতি কেন্দ্রের কাছে সবচেয়ে বড় মাথাব্যাথা, এরমধ্যে পশ্চিমবঙ্গ-সহ বেশকিছু রাজ্যে ভোট রয়েছে, সুতরাং, এই জায়গায়া কিন্তু ভালোরকম চ্যালেঞ্জের মুখে নির্মলা সীতারামণ

7:46 AM IST:

7:39 AM IST:

7:36 AM IST:

10:12 PM IST:

জানুয়ারিতে জিএসটি আদায় হয়েছে ১.১৯ লক্ষ কোটি টাকা 

8:29 PM IST:

8:27 PM IST:

8:25 PM IST:

8:21 PM IST:

অতিমারির মধ্যে শেষ হয়ে গিয়েছে একটি অর্থবর্ষ। এই এক বছরের আর্থিক ঘাটতির হার বাড়তে বাড়তে ধরাছোঁয়ার বাইরে। এই অবস্থা শুধু ভারতবর্ষের নয়, গোটা বিশ্বই এখন প্রবলভাবে ধাক্কা খেয়েছে করোনাভাইরাস নামক অতিমারিতে। দীর্ঘ লকডাউনের যাত্রা বেরিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার দিকে তাকিয়ে রয়েছে ভারত-সহ বিশ্ব। ভারতে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে আনলক পর্ব। ধীরে ধীরে জীবনযাত্রাকে স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে। এহেন এক পরিস্থিতিতে পেশ হতে চলেছে সাধারণ বাজেট ২০২১-২২। অতিমারি-তে যে আর্থিক মন্দা হয়েছে তার বিরুদ্ধে লড়াই করে অর্থনীতিকে কীভাবে চাঙ্গা করা যায় এখন সেদিকেই ফোকাস করতে চাইছে নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। এই মুহূর্তে যে বিষয়গুলি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে, সেটা হল কর্মসংস্থান এবং আর্থিক মন্দা কাটানোর চ্যালেঞ্জ।