Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Earn Excise Revenue-কমেছে বেআইনি মদের বিক্রি,সময়ের আগেই মোট রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যপূরণ সরকারের

বিলিতি মদের ওপর আবগারি সুল্ক কমানো হয়েছে। সস্তা হয়েছে দেশী মদ। সব মিলিয়ে কমেছে বেআইনি মদের বিক্রি। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই সরকারের ১২ কোটি রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যপূরণ

Due To Reduce Illegal Liquor sell Excise Department To Earn More Excise Revenue
Author
Kolkata, First Published Dec 18, 2021, 12:53 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

মদ(Liquor) থেকে সরকারের রাজস্বের(Excise Revenue) পরিমান যে বৃদ্ধি পায় সে কথা কিন্তু বলার অপেক্ষা রাখে না। আর ঠিক সেই কারনেই করোনা পরিস্থিতিতে যখন অফিস থেকে কর্মপ্রতিষ্ঠান সব কিছুতেই তালা ঝুলছে, তখন মদের দোকানে লম্বা লাইন। কারন কিন্তু সেই একটাই। সরকারের রাজস্ব(Excise Revenue) সংগ্রহ। অতিমারি করোনা পরিস্থিতিতে যখন সরকারের রাজস্বে টান পড়েছিল, তখন অগত্যা বাধ্য হয়েই খুলে দেওয়া হয়েছিল মদের দোকান(Liquor shop)। বলা বাহুল্য, সেই সময় মদের ওপর কর বেশ কিছুটা বাড়িয়ে দেওয়া হলেও বিক্রিতে কিন্তু মোটেই ঘাটতি দেখা যায়নি। তাই সরকারের রাজস্বে পরিমানও বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে(To earn More Revenue From Liquor)। বলা ভাল, রাজ্য সরকারের একাধিক পদক্ষেপে এবার রেকর্ড আয়ের মুখ দেখছে আবগারি দফতর। কমছে অবৈধ মদ বিক্রির পরিমাণ( To Reduce illegal Liquor Sell)। মূলত, বেআইনি মদের বিক্রি কমায় সেই লাভ ঘরে তুলছে সরকার। উল্লেখ্য, মদের ওপর বিভিন্ন রাজ্য আবগারি শুল্কে(Excise Duty) বিশেষ ছাড় দিয়েছে। তার ফলে বেশ খানিকটা সস্তায় মিলছে সুরা। 

রাজ্যে মদ বিক্রির পরিমাণ ক্রমশ বাড়ছে। স্বাভাবিকভাবেই সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সরকারের রাজস্ব আয়ের পরিমাণও। চলতি বছরে মদ বিক্রি করে রেকর্ড পরিমাণে রাজস্ব সংগ্রহ করেছে রাজ্যের আবগারি দফতর। চলতি অর্থবর্ষে আবগারি দফতরের লক্ষ্য ছিল ১২ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করা। কিন্তু সময়ের আগেই একেবারে বাজিমাত। মাত্র সাড়ে ৮ মাসেই ১২ হাজার কোটির টার্গেট পূরণ করে ফেলল আবগারি দফতর। একদিকে রাজস্ব বৃদ্ধি করতে ও অন্যদিকে  বেআইনি মদের বিক্রিতে লাগাম টানতে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছিল রাজ্য সরকার। বিশেষজ্ঞদের মতে, সেই পদক্ষেপেরই প্রতফলন এটি। প্রসঙ্গত, চোলাই মদের কারবার রুখতে সস্তায় মদ এনেছে এই রাজ্য। ২৩ টাকা থেকে ৩০ টাকার মধ্যে সাধারণের হাতে চলে আসছে তাঁদের পছন্দের পানীয়টি। সঙ্গে দোসর মহুয়ার ফ্লেভার। ফলে চোরাই মদ বা বেআইনি মদের বিক্রিতে ভাটা পড়ে। সস্তায় সুরালাভের ফলে এখন সুরাপ্রেমীরা আর চোলাই মদের দিকে বেশি ঝুকছেন না। স্বল্প মূল্যের দেশি মদেই ভরসা রাখতে পছন্দ করছেন তাঁরা। আর তার ফলস্বরূপ ফুলে ফেঁপে উঠেছে সরকারের রাজস্ব থুরি,  রাজ্যের আবগারি দফতরে রাজস্ব। 

আরও পড়ুন-Special Duty-নববর্ষের আগেই সস্তায় সুরাপানের সুযোগ,বিলিতি মদের ওপর বিশেষ শুল্কে ছাড় মহারাষ্ট্র সরকারের

আরও পড়ুন-Liquor-সুরাপ্রেমীদের জন্য সুখবর,রাজ্য সরকারের অনলাইন পোর্টাল থেকেই জানা যাবে সুরার দাম,জেনে নিন কিভাবে

আরও পড়ুন-Excise Duty-সুরাপ্রেমীদের জন্য সুখবর,ইমর্পোটেড মদের ওপর আবগারি শুল্ক কমাল মহারাষ্ট্র সরকার

গত মাস থেকেই এই রাজ্যে কমানো হয় বিলিতি মদের দাম। সার্বিকভাবে আবগারি রাজস্ব আদায় বৃদ্ধির জন্যই এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। রাজস্ব বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিলিতি মদের দাম ২৫ শতাংশ কম করা হয়। অনেকই এক্ষেত্রে আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছিলেন, মদের দাম কমলে তো সরকারের মোট আবগারি রাজস্ব আদায় কমে যাবে। তবে আবগারি দফতরের আধিকারিকদের বক্তব্য ছিল, মদের দাম কমলে বিক্রি বাড়বে। আর সেখান থেকেই রাজ্যের আবগারি দফতর মোটা টাকা রাজস্ব আদায়ের সুযোগ পাবে। লকডাউন পরিস্থিতিতে যে পরিমান মদ বিক্রি হয়েছে, তার ওপর ভরসা রেখেই আবগারি দফতরের আধিকারিররা বুদ্ধিদীপ্ততা ও দূরদর্শিতার সঙ্গে তাঁদের মত ব্যাক্ত করেছিলেন। আর আজ একেবারে হাতে না হাতে তার ফল মিলল। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই গোটা বছরের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যে উপনীত হয়েছে রাজ্য সরকারের আবগারি দফতর। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios