Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Liquor Cheaper-সুরাপ্রেমীদের জন্য সুখবর,২৫ শতাংশ কমছে বিলেতি মদের দাম, ১৬ নভেম্বর থেকে চালু হবে নতুন দাম

আগামি ১৬ নভেম্বর মঙ্গলবার থেকে সাধ্যের মধ্যে স্বাদ পূরণের জন্য কমানো হয়েছে বিলেতি মদের দাম। শুধু বিলেতি মদই ময়, বেশ খানিকটা সস্তা হবে চিল্ড বিয়ারওবিলিতি মদের দাম এখনকার তুলনায় দাম প্রায় ২৫ শতাংশ কমবে।  

Good News For Wine Lover, ,25% Decrease Excise duty, Liquor May Be Cheaper by 25% from 16th Nov
Author
Kolkata, First Published Nov 12, 2021, 2:13 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দো পেগ মার অওর ভুল যা....হাতে  পছন্দের সুরার গ্লাস আর এই রক মিউজিকের মিশেল হালকা শীতের আমেজে একটা পরিপূর্ণ প্যাকেজ। কিন্তু বিলেতি মদের(Wine) চড়া দামে কপালে চিন্তার ভাঁজ পরেছিল সুরাপ্রেমীদের(wine Lover)। তবে এবার এক চুটকিতে সেই চিন্তা দূর করে ফেলুন। কারন আগামি ১৬ নভেম্বর মঙ্গলবার থেকে সাধ্যের মধ্যে স্বাদ পূরণের জন্য কমানো হয়েছে বিলেতি মদের দাম। শুধু বিলেতি মদই ময়, বেশ খানিকটা সস্তা হবে চিল্ড বিয়ারও।  তাই এক কথায় বলাই যায় আগামি মঙ্গলবার(Tuesday) হতে চলেছে সুরাপ্রেমীদের জন্য একটা গ্রেট ডে।  রাজ্য সরকার আবগারি শুল্ক(excise Duty) কমানোর জন্যই এই দাম কমছে। এর ফলে বাজারের স্বাভাবিক নিয়মে বিলিতি মদ ও বিয়ার বিক্রির পরিমাণ উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়বে। তাই রাজ্যের সার্বিক আবগারি রাজস্ব (Excise revenue)আদায়ও বাড়ার আশা করছে প্রশাসন। রাজ্য অর্থ দফতরের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি  অনুযায়ী সরকার আবগারি শুল্কের (excise Duty) হার সংশোধন করেছে। এর জেরে ভারতে উৎপাদিত সমস্ত বিলিতি মদ ও বিয়ারের দাম কমবে রাজ্যে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, বিলিতি মদের দাম এখনকার তুলনায় দাম প্রায় ২৫ শতাংশ কমবে(25% Cheaper)।  সর্বোচ্চ ২,০০০ টাকা এমআরপি পর্যন্ত দাম ১০০ থেকে ৪৫০ টাকা মতো কমবে। আর ২,২০০-২,৩০০ টাকা এমআরপি-র ক্ষেত্রে দাম ৫০০-৬০০ টাকা পর্যন্ত কমতে পারে।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক, ভিন্নস্বাদের ৭৫০ মিলিলিটার বোতলের দাম ১৬ তারিখ থেকে কত হবে--

রয়্যাল স্ট্যাগ ৯৮০ টাকা ৭১০ টাকা
রয়্যাল চ্যালেঞ্জ ১০০০ টাকা ৭৩০ টাকা
ব্লেন্ডার্স প্রাইড ১৩৫০ টাকা ৯২০ টাকা
ম্যাকডয়েল সেলিব্রেশন রাম ৬৪০ টাকা ৫৪০ টাকা
অ্যান্টিকুইটি ব্লু ১৬১০ টাকা ১২০০ টাকা

Parenting Tips: ক্রমে নেশা গ্রাস করছে যুব সমাজকে, জেনে নিন সন্তানকে রক্ষা করবে কী করে

তবে বলা বাহুল্য, পুরনো স্টক শেষ না হওয়া পর্যন্ত নতুন দামের স্টক তুলবে না দোকানগুলি। কিন্তু, মদের দাম কমলে তো সরকারের মোট আবগারি রাজস্ব আদায় কমে যাবে। ফলে দৈনন্দিন খরচ ও মূলধনী ব্যয়ের জন্য রাজ্য এই আর্থিক ঘাটতি কি করে পূরণ করবে সেই বিষয়ে এক প্রশাসনিক কর্তার মত, রাজস্ব আদায় কমবে না। বরং, দাম কমলে বিক্রি বাড়বে এবং তাতে আবগারি রাজস্ব সংগ্রহও এখনকার তুলনায় অবশ্যই বৃদ্ধি পাবে। করোনা-লকডাউনের জন্য গত বছর মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকে প্রায় সমস্ত খাতে রাজ্যের রাজস্ব সংগ্রহ একেবারে থমকে গিয়েছিল। ফলে বাধ্য হয়েই সরকার মদের উপর প্রথমে ৩০ শতাংশ বিক্রয় কর বসিয়েছিল, যা পরে অতিরিক্ত আবগারি শুল্কে পরিবর্তিত করা হয়। এর ফলে বিলিতি মদের দাম বেশ খানিকটা বেড়ে যাওয়ায় লিটার হিসাবে বিক্রির পরিমাণ অনেক কমে যায়। যার প্রতিফলন পড়ে ২০২০-২১ সালের সরকারের মোট আবগারি রাজস্ব সংগ্রহে। সরকারি সূত্রের খবর, ধীরে ধীরে পশ্চিমবঙ্গে দেশি মদের বদলে সম্পূর্ণ বিলিতি মদ বিক্রির পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে রাজ্য সরকার।  বিলিতি মদের গুণমান ভালো এবং তাতে শুল্কের হার বেশি হওয়ায় কোষাগারে বাড়তি অর্থ আসবে। সরকারি কর্তা আরও বলেন, চলতি অর্থ বছরের বাজেটে আবগারি রাজস্ব সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে ১৬,১০০ কোটি টাকা। ২০১৯-২০ সালের তুলনায় বিলিতি মদের বিক্রি কম। দাম কমলে বিক্রি অবশ্যই বাড়বে। রাজ্য প্রশাসনের এক পদস্থ আধিকারিক বলেন, চলতি অর্থ বছরের মধ্যেই কম স্ট্রেংথের বিলিতি মদ বাজারে আসতে পারে। বোতলের দাম পড়বে ২০০-২৫০ টাকা। প্রসঙ্গত, বেআইনি চোলাই মদের বিক্রি সম্পূর্ণ বন্ধ করার লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই অপেক্ষাকৃত কম দামি ৭০ ডিগ্রি আন্ডার প্রুফের দেশি মদ বাজারে বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে রাজ্য।

 


 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios