Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Disinvestment-৬ টি রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থার বিলগ্নিকরণের উদ্যোগ,ইঙ্গিত মিলল গ্লোবাল ইকনমিক পলিসি সামিটের মঞ্চে

আগামী ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসের মধ্যে আরও ৬ টি রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থার বিলগ্নিকরণের সবুজ সংকেত। গ্লোবাল ইকনমিক পলিসি সামিটের মঞ্চ থেকে সেই কথাই জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট দফতরের সচিব তুহিন কান্ত।

Govt Aims to Disinvestment 5-6 State-owned Organizations in FY22
Author
Kolkata, First Published Nov 21, 2021, 11:58 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

১৭ ও ১৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়েছে  গ্লোবাল ইকোনমিক পলিসি সামিট(Global Economic policy Summit)। আগামী ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসের মধ্যে আরও ৬ টি রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থার বিলগ্নিকরণের উদ্দেশ্যপূরণে দরপত্র আহ্বান করবে কেন্দ্রীয় সরকার।  চলতি আর্থিক বর্ষেই সেই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার চেষ্টা হবে বলে কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের অধীনস্থ বিলগ্নিকরণ এবং রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা নিয়ন্ত্রণ দফতর(DIPAM) সূত্রের খবর। গত মাসে সরকারি বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়া-র (AI) বিলগ্নিকরণের(Disinvestment)মাধ্যমে যে ধারার সূত্রপাত হয়েছে, সেটাই আরও সম্প্রসারিত হতে চলেছে আগামী দিনে। বুধবার গ্লোবাল ইকনমিক পলিসি সামিটের(Global Economic policy Summit) মঞ্চ থেকে সেই কথাই জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট দফতরের সচিব তুহিন কান্ত পাণ্ডে(Tuhin Kanta Pandey)। তিনি জানিয়েছেন, এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হলে প্রায় ১৯ বছর পরে ৫-৬টি রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থার বিলগ্নিকরণ বাস্তবায়িত হবে। অবশ্য অর্থ মন্ত্রকের কর্তাদের একাংশের বক্তব্য, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির বিলগ্নিকরণের(Disinvestment) বিষয়টি গত ফেব্রুয়ারি মাসেই পরিষ্কার করে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি(Modi)। বিলগ্নিকরণের মাধ্যমে অর্থ সংস্থানের পাশাপাশি সামগ্রিক ব্যবস্থার আধুনিকীকরণের দিকেও লক্ষ্য রাখা হয়েছে।

গ্লোবাল ইকনমিক পলিসি সামিটের মঞ্চে তুহিন কান্ত পাণ্ডে জানিয়েছেন, ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন সহ , শিপিং কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া, পবনহংস, সেন্ট্রাল ইলেকট্রনিক্স, নীলাচল ইস্পাত নিগমের মতো রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থাগুলির বিলগ্নিকরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেডের বিলগ্নিকরণের প্রক্রিয়াও অনেকটা দূর এগিয়ে গেছে। ইতিমধ্যেই ৩ টি সংস্থা  ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেডকে নেওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তুহিন কান্তের কথা অনুযায়ী, এই রাষ্ট্রায়াত্ব সংস্থাগুলির বিলগ্নিকরণের দরপত্র চূড়ান্ত হওয়ার প্রক্রিয়া আগামী ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসের মধ্যে হয়ে যাবে এবং চলতি আর্থিক বর্ষের মধ্যে বিলগ্নিকরণের সামগ্রিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

আরও পড়ুন-Murshidabad: মিলেছে নবান্নের সবুজ সঙ্কেত, ভাগীরথীর উপর সেতু সংস্কারের কাজ শুরু মুর্শিদাবাদে

আরও পড়ুন-Indian Army-না হারার গল্প, ভারতীয় সেনায় যোগ কাশ্মীরে শহিদ মেজরের স্ত্রীর

বিলগ্নিকরণের সামগ্রিক প্রক্রিয়া দ্রুত করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত স্তরে চেষ্টা করা হলেও এই প্রক্রিয়ার আরও সরলীকরণ সম্ভব কিনা, তার চেষ্টাও করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সচিব । আগামী জানুয়ারি থেকে মার্চ মাসের মধ্যে লাইফ ইন্সিওরেন্স কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া-র (এলআইসি) ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং (আইপিও) বাজারে আনা হবে বলে বিলগ্নিকরণ এবং রাষ্ট্রায়াত্ত্ব সংস্থা নিয়ন্ত্রণ দফতর সূত্রের খবর। এই দফতরের এক কর্তার কথায়, এই আসন্ন আইপিও অর্থনৈতিক বাজারের ক্ষেত্রে নিঃসন্দেহে একটি নজরকারা ঘটনা হতে চলেছে। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের এই আর্থিক নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে বিরোধীরা। রাষ্ট্রায়াত্ব সংস্থাকে যেভাবে একের পর এক বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার, তাতে দেশের সম্পদ নিয়ে ছেলেখেলা চলছে বলে মত প্রকাশ করেছে তাঁরা। তাই কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে একজোট হওয়ারও ডাক দিয়েছে তারা। যদিও সে সব অভিযোগ অস্বীকার করে নরেন্দ্র মোদী সরকার জানিয়েছে, বিলগ্নিকরণ নিয়ে বিরোধীদের সমালোচনা ও উদ্বেগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios