Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Taxable Crypto-ক্রিপটোকারেন্সিতে বসতে পারে কর,সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে আগামী বাজেটে

সরকার ডিজিটাল কয়েনকে করের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই আয়কর বিভাগ আইন বদলের চেষ্টা করছে। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হতে পারে পরবর্তী বাজেটে।

Govt may tax cryptocurrency gains in next Union Budget
Author
Kolkata, First Published Nov 20, 2021, 6:37 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ডিজিটাল মুদ্রা(Digital Coin) বা ক্রিপ্টোকারেন্সি(Cryptocurrency) নিয়ে জটিলতা এখনও কাটেনি। তার মধ্যেই রাজস্ব সচিব তরুণ বাজাজ বললেনRevenue Secretary Tarun Bajaj),সরকার ডিজিটাল কয়েনকে করের(Income Tax law) আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই আয়কর বিভাগ আইন বদলের চেষ্টা করছে। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হতে পারে পরবর্তী বাজেটে(Next Budget)।
তবে সংশ্লিষ্ট মহলের বক্তব্য, কর বসানোর(Tax) সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ডিজিটাল মুদ্রা(digital Coin) নিয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রকে। নিয়ন্ত্রণ মাফিক ডিজিটাল মুদ্রাকে সরকারি স্বীকৃতি দেওয়ার ইঙ্গিত থাকক্িলেও, স্পষ্টভাবে এখনও কিছুই জানা যায়নি। ডিজিটাল কয়েন লেনদেনের মুদ্রা হিসাবে নাকি শেয়ার হিসাবে সোনার মতো সম্পদ হিসাবে গণ্য হবে সেই বিষয়টা নিয়েও ধন্দ এখনও জারি রয়েছে। তরুণ বাজাজের(Tarun bajaj) দাবি, বিটকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সি(Cryptocurrency) লেনদেন থেকে আয় হচ্ছে অনেকেরই। তাই আয়কর আদায়ের আইন না-থাকলেও একাংশ কর দিচ্ছেন। যদিও সরকারি স্বীকৃতি না-থাকলে কী ভাবে সেটা সম্ভব তার ব্যাখ্যা অবশ্য মেলেনি। তবে বিটকয়েন বিশেষজ্ঞেরা জানান, ভারতে(India) ডিজিটাল কয়েনের লেনদেন হয় টাকায়। সেই আয়ে কর না-দিলে তা কালো টাকা হিসাবেই ধার্য করা হয়। সেই জন্যই ডিজিটাল কয়েন ব্যবহারকারীদেকর একাংশ কর মিটিয়ে থাকেন। বাজাজ আরও জানান, শেয়ার লেনদেনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেনে জড়িত ব্রোকার, লেনদেনের পরিকাঠামো বা প্ল্যাটফর্ম পরিচালনার সঙ্গে জড়িত সংস্থা বা কর্তৃপক্ষের থেকে ১ শতাংশ জিএসটি(1% GST) আদায়ের কথাও ভাবছে সরকার(Govt)।

Crypto risk-ক্রিপটো সংক্রান্ত কোনও সমস্যায় পাওনা যাবে না আইনি সাহায্য, জানাল RBI

HUSKYX Returns 45000%-কম প্রচলিত ডিজিটাল কারেন্সি হাস্কিক্স, ২৪ ঘন্টায় রিটার্ন দিয়েছে ৪৫,০০০%

 বলা বাহুল্য, সপ্তাহের শুরুতেই সংসদীয় স্থায়ী কমিটির(Parliamentary Standing Committee)অর্থ বিভাগ(Finance) একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে যে ক্রিপটোকারেন্সি নিয়ন্ত্রনের জন্য একটি ব্যবস্থা স্থাপন করা উচিত। উল্লেখ্য, প্রতিনিয়তই জনপ্রিয় হচ্ছে ক্রিপটোকারেন্সির(Cryptocurrency) দুনিয়া। সম্প্রতি ২৪ ঘন্টায় ৩ ট্রিলিয়ন রেকর্ড (3 Trillion Record) গড়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে ক্রিপটো মার্কেট(Crypto Market)। কিন্তু দেশের অর্থনীতির সুরক্ষার জন্য ক্রিপটোর রমারমা বাজার ডেকে আনতে পারে বিপদ। সম্প্রতি এমনই সবুজ সংকেত দিয়েছেন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার গর্ভনর শক্তিকান্ত দাস(Shaktikanta Das,RBI Governor)। তার দু-একদিনের মধ্যেই ক্রিপটোর বারবাড়ন্ত দেখে নড়েচড়ে বসেছে কন্দ্রীয় সরকার, থুরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ক্রিপটোকারেন্সি নিয়ে (Cryptocurrency) সংসদে আসন্ন শীতকালীন অধিবেশন বিল আনতে পারে সরকার। সেখানে ক্রিপটোকারেন্সি(Cryptocurrency০ থেকে আয়ে কর চাপানোর প্রস্তাবের কথা উল্লেখ থাকতে পারে। শেষ অবধি ক্রিপটোকারেন্সি কোন দিকে মোড় নেয় এখন সেটাই বিবেচ্য বিষয়। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios