Asianet News BanglaAsianet News Bangla

GST-মহার্ঘ হচ্ছে জামাকাপড়, জুতো,নতুন বছরে GST বাড়ছে ১২ শতাংশ

জামাকাপড়, টেক্সটাইল ও জুতোর ওপর জিএসটি ৫ শতাংশ থেকে বেড়ে হচ্ছে ১২ শতাংশ। ১৮ নভেম্বর CBIC-র তরফে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে বর্ধিত করের বিষয়ে।

GST Increases 12% From 5% On Garments, Footwear and Textile From 2022
Author
Kolkata, First Published Nov 21, 2021, 2:39 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

একদিকে যখন অগ্নিমূল্য সবজী বাজার, হাত পুড়ছে পেট্রলের বর্ধিত দামে তখন আরও চাপ পড়ার আশঙ্কা মধ্যবিত্তের পকেটে। এবারের চাপ সৃষ্টি করতে কোমড় বেঁধে ময়দানে নামছে টেক্সটাইল(textile) ও ফুটওয়ার(Footwear) বিভাগ। নতুন বছরের শুরুতে(New Year)ই গোঁদের ওপর বিষফোঁড়ার মত কাজ করবে জিএসটি বৃদ্ধির হার(GST Increases)। জামাকাপড়(Garments), টেক্সটাইল(Textile) ও জুতোর(Footwear) ওপর একলাফে গুডস অ্যান্ড সার্ভিস ট্যাক্স(GST) বা জিএসটি ৫ শতাংশ(5%) থেকে বেড়ে হতে চলেছে ১২ শতাংশ(12%)। সুতরাং বেশ অনেকটাই মহার্ঘ হচ্ছে জামাকাপড়, জুতোর মত নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলো। এই ধরনের জিনিসের ওপর যখন কেন্দ্রের তরফে জিএসটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তখন খুব স্বাভাবিকভাবেই চাপ পড়ে মধ্যবিত্তের পকেটে। ১৮ নভেম্বর দ্য সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ইনডিরেক্ট  ট্যাক্সেস অ্যান্ড কাস্টমস বা CBIC-র তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। সেই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে ২০২২ সালের জানুয়ারি থেকেই বেশ অনেকটাই দামী হতে চলেছে জামাকাপড়, টেক্সটাইল ও জুতো। পুরনো দামের ভিত্তিতে অর্থাৎ আগে ১০০০ টাকার বেশি জিনিসে ৫ শতাংশ পর্যন্ত জিএসটি ধার্য করা হত। 

জামাকাপড়ের ওপর ৫ শতাংশ জিএসটি বেড়ে ২০২২ সালের জানুয়ারিতে হয়ে যাবে ১২ শতাংশ। টেক্সটাইলের অন্তর্গত ওভেন ফেব্রিকস, সিন্থেটিক ইয়ার্ন, পাইল ফেব্রিকস, কম্বল, তাবু সহ অন্যান্য জিনিস যেমন টেবিলক্লথ, পাপোশের ওপর জিএসটি ৫ শতাংশ থেকে বেড়ে হয়েছে ১২ শতাংশ। একইভাবে জুতোর ওপরও জিএসটি ৫ শতাংশ থেকে একলাফে জিএসটি বেড়েছে ১২ শতাংশ। সুত্রের খবর অনুযায়ী,এই জিএসটি বৃদ্ধিতে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে ক্লোদিং ম্যানুফ্যাকচরস অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া বা CMAI ।  এককথায় এই ঘটনাকে হতাশজনক বলে ব্যাখা করা হয়েছে। ১৯ নভেম্বর সরকারের সঙ্গে জিএসটি বিষয় আলোচনা করার পরই হতাশা প্রকাশ করেছে ক্লোদিং ম্যানুফ্যাকচরস অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া।  CMAI-এর তরফে জানানো হয়েছে, এই শিল্পে এমনিতেই কাঁচামালের দাম বৃদ্ধির জেরে সংকটের মধ্যে দিয়ে চলেছে। এরমধ্যে প্যাকেজিং সামগ্রী এবং মাল বহনের খরচও বেড়েছে। তার ওপর জিএসটি-র কালো মেঘের ঘনঘটা। একটি সূত্র দাবি করছে  জিএসটি কাউন্সিলের (GST Council) সুপারিশের ভিত্তিতেই এই GST হার বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে, CMAI আশঙ্কা করছে এরফলে আখেরে সাধারণ মানুষের পকেটেই টান পড়বে।

Tax High for Garments Business-কর বাড়ছে স্বল্প দামের পোষাকে, ভারতে কর্মহীন হতে পারে ১৪ লাখ মানুষ

Taxable Crypto-ক্রিপটোকারেন্সিতে বসতে পারে কর,সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে আগামী বাজেটে

হোশিয়ারি শিল্পের অভিযোগ, করোনাকালে এমনিতেই ব্যাবসার হাল মন্দ তার ওপর এই সিদ্ধান্ত একেবারে শিরে সংক্রান্তির মত। এর ফলে সস্তার জামা-কাপড়েরও(Low Cost Garments) বেশ খানিকটা দাম বেড়ে যাবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কমবে বিক্রির চাহিদা। আর এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই ধাক্কা খাবে উৎপাদন। পুঁজিরও অভাব হওয়ার একটা আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পোশাক তৈরিতে যুক্ত ক্ষুদ্র-ছোট-মাঝারি সংস্থাগুলি(Small and Medium Organization)। কর বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত কাড়তে পারে বস্ত্র শিল্পে যুক্ত ১৪ লক্ষ মানুষের কাজ। শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গেই কাজ হারাতে পারে ১ লক্ষ(1 Lakh) মানুষ। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios