Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Gold Hallmarking-হলমার্কযুক্ত গয়না বিক্রি বাধ্যতামূলক, প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাতে নতুন আইন কেন্দ্রের

হলমার্ক ছাড়া সোনার গয়না বিক্রি নিয়ে দেশের ২৫৬টি শহরে তদন্ত শুরু করেছে ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ডস। বেআইনিভাবে হলমার্ক ছাড়া সোনার গয়না বিক্রির অভিযোগে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা বা ১ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। 
 

Selling Jewelry Without Hallmark Is  Punishable Offense, New Law issued By Central Govt
Author
Kolkata, First Published Dec 3, 2021, 1:48 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বিভিন্ন গয়নার দোকানে ২২ ক্যারেট সোনা দাবি করে ১৮ ক্যারেট সোনা বিক্রির একটা প্রবণতা প্রায়ই দেখা যেত। তাই চলতি বছরের ১৬ জুন থেকে ভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রণালয়, খাদ্য ও পাবলিক ডিস্ট্রিবিউশন তরফে ১৫ জুন একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছিল চলতি বছরের ১৬ জুন থেকেগয়নার ওপর হলমার্ক থাকা বাধ্যতামূলক। প্রেস বিজ্ঞতি অনুসারে, হলমার্ক বাধ্যতামূলক করার ফলে জুয়েলারি বিক্রেতাদের বার্ষিক ৪০ লাখ পর্যন্ত টার্নওভার পাওয়া থেকে নিষ্কৃতি পাবে। অন্যদিকে প্রেস বিজ্ঞতি অনুযায়ী,সেনার গয়নাতে ২০,২৩ এবং ২৪  ক্যারেট-ও হলমার্ক গয়নার আওয়াত আসবে। অর্থাৎ আপনি যদি ২৩ ক্যারেটের একটি সোনার বালা কেনেন তাহলে সেটি হলমার্ক জুয়েলারি হিসাবেই মান্যতা দেওয়া হবে। 

হলমার্ক (Hallmarking)ছাড়া সোনার গয়না বিক্রি নিয়ে দেশের ২৫৬টি শহরে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ডস (BIS)। বেআইনিভাবে হলমার্কবিহীন গয়না (Gold Jewellery) রাখার দায়ে ১ ডিসেম্বর থেকে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। ভারতে নতুন গ্রাহক সুরক্ষা আইন ২০১৯ (New Consumer Protection Act 2019) চালু করা হয়েছে যার অধীনে দেশের একাধিক শহরে হলমার্ক ছাড়া সোনার গয়না রাখা এবং বিক্রি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। উপভোক্তা সুরক্ষা আইন ২০১৯ অনুযায়ী, বেআইনিভাবে হলমার্ক ছাড়া সোনার গয়না বিক্রির অভিযোগে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা বা ১ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। কেন্দ্রীয় উপভোক্তা মন্ত্রক চলতি বছরের ১৬ জুন থেকে ২৫৬টি শহরে হলমার্কযুক্ত গয়নার বিক্রি বাধ্যতামূলক করে এবং সঙ্গে পুরনো হলমার্ক ছাড়া গয়নাকে হলমার্কযুক্ত গয়নায় পরিবর্তন করার জন্য ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছিল। চলতি মাসের শুরুতেই সেই মেয়াদ শেষ হয়েছে। যদি স্বর্ণকাররা ২২ ক্যারেট সোনা দাবি করে গ্রাহকদের ১৮ ক্যারেট সোনা বিক্রি করে তবে বিক্রেতার জরিমানা সহ জেল পর্যন্ত হতে পারে। উপভোক্তাদের প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাতে কেন্দ্র এই নতুন আইন প্রস্তাবিত করেছে।

উল্লেখ্য, হলমার্কযুক্ত গয়নায় ক্যারেট বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সোনার মানের পাশাপাশি গয়নার দামের পার্থক্যও দেখা যায়। ক্যারেট যত বেশি হবে দামও তত বাড়বে। কেন্দ্রীয় উপভোক্তা মন্ত্রকের মতে, গ্রাহকরা যখনই সোনা কিনতে যাবেন, হলমার্ক দেখেই সোনা কিনবেন। হলমার্ক হল এক ধরনের সরকারি গ্যারান্টি এবং এটি ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড দ্বারা নির্ধারিত করা হয়। হলমার্ক সোনা কেনার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল অদূর ভবিষ্যতে যখনই বিক্রি করতে যাবেন আসল দাম পাবেন। সোনার দাম কমে যাবে না। ২০২০ সালের ১৫ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় সরকার এই নতুন নিয়মের মর্মে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে। এই আইন চালু হওয়ার পর পুরনো গয়নাকে হলমার্কে রূপান্তরিত করার জন্য সরকার স্বর্ণকারদের ১ বছরের সময় দেয়। পরে এই মেয়াদ আরও বাড়িয়ে দেওয়া হয়। সোনা বিক্রেতারা যাতে তাদের পুরনো স্টক খালি করতে পারে এবং তাদের যাতে কোনও লোকসান না হয় সেই উদ্দেশ্যেই এই মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। 

আরও পড়ুন-Gold Price Today : হু হু কমছে রূপোর দাম, লক্ষ্মীবারে ১০ গ্রাম সোনার দাম বাড়ল না কমল

আরও পড়ুন-Gold Price Today : বিয়েতে উপহারের জন্য সোনা কিনবেন ভাবছেন, জেনে নিন আজকের ২২ ক্যারেটের দর

কল্যান জুয়েলার্সের এক্সজিকিউটিভ ডিরেক্টর রমেশ কল্যানরমনের মতে,(Ramesh Kalyanaraman)হলমার্কিং বাধ্যতামূলক করার ফলে স্বর্ণের গহনার বিশুদ্ধতাকে মানসম্মত করবে এবং শিল্পকে আরও সুগঠিত করার পাশাপাশি জুয়েলারি ব্যবসাকে আরও উন্নত করা সহজ হবে। সেই সঙ্গে গ্রাহকদের ভরসাও যোগানো যাবে। নতুন আইন জারির ফলে, গ্রাহকরা তাঁদের ন্যাহ্য মূল্যে সোনর গয়না কিনতে পারবে । শুধু তাই নয়, পুরনো গয়না এক্সচেঞ্জ  করলেও সেখানে গয়নার মান ও মূল্য নিয়ে কোনও দ্বিমত প্রকাশের অবকাশ থাকবে না। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios