ফের প্রায় ১ লক্ষে পৌঁছে গেল ভারতের দৈনিক করোনা সংক্রমণের ঘটনা। রবিবার সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হিসাবে নতুন সনাক্ত হয়েছেন ৯৩,২৪৯ জন। আর এই সময়কালে করোনা জনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ৫১৩ জনের।

গত বছর ১৬ সেপ্টেম্বর ভারতের দৈনিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যা পৌঁছেছিল ৯৭,৮৯৪-তে। সেটিই এখনও পর্যন্ত একদিনে ভারতের সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড। তবে সেপ্টেম্ববরের মাঝামাঝি শিখর ছোঁয়য়ার পর থেকে ধীরে ধীরে সংক্রমণের তীব্রতা কমছিল। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি তা নেমে এসেছিল দশ হাজারেরও নিচে, ৯,১২১-এ। কিন্তু মার্চ মাসের শুরু থেকে আবার একটানা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে সংক্রমণের মাত্রা। এক মাসের মধ্যেই অবস্থাটা ফের পাল্টে গিয়েছে।    

সব মিলিয়ে বর্তমানে ভারতের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ১,২৪,৮৫,৫০৯-এ। আর করোনার কারণে মোট মৃত্যু হয়েছে ১,৬৪,৬২৩ জনের। করোনা জয় করেছেন মোট ১,১৬,২৯,২৮৯ জন। আর বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬,৯১,৫৯৭ জন।

শনিবার অবশ্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছিল করোনা ফের ভারতে রুদ্রমূর্তি ধারণ করলেও নতুন সংক্রমণের ঘটনার ৮১ শতাংশেরও বেশি ঘটছে এখনও মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, ছত্তিশগড়, দিল্লি, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ, পঞ্জাব এবং মধ্যপ্রদেশ - এই আটটি রাজ্যে।
এর মধ্যে মহারাষ্ট্রে গত একমাস ধরে করোনভাইরাস সংক্রমণ সবচেয়ে ভয়ানক অবস্থায় রয়েছে। গত ২০০ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল তারিখের মধ্যে এই রাজ্যে নতুন করে ৪,৮২,০৫৫ জন করোনা আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে।

এই অবস্থায় কোভিড-১৯ মোকাবিলা এবং টিকাকরণ অভিযান সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে আলোচনার জন্য রবিবার সকালেই মন্ত্রিসভার সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, সহ বিভিন্ন দফতর ও বিভাগের সকল উর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।