করোনাভাইরাসের ধ্বস্ত ভারতের আশার আলো দেখাল আমেরিকান ফার্মাসিউটিক্যালসের কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন ফাইজার। সংস্থার পক্ষ থেকে ভারতকে জানান হয়েছে, ভারতে যে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে তাদের তৈরি টিকা রীতিমত কার্যকর।একই সঙ্গে সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে তাদের তৈরি টিকা ১২ বছর বা তারও বেশি বয়স্কদের জন্য উপযুক্ত। জরুরি ভিত্তিতে অনুমোদন দেওয়ার অনুরোধরও করা হয়েছে। 

ফাইজারের পক্ষ থেকে স্পষ্ট করে কেন্দ্রীয় সরকারকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে তাদের তৈরি করোনা টিকা ১২ বছর বা তারও বেশি বেশি বয়স্কদ- সকলের জন্যই উপযুক্ত। এটি এক মাসের জন্য ২-৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা যেতে পারে। সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, ভারতের চলমান করোনা মহামারি মোকাবিলায় একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করতে পারবে। কারণ একাধিক পরীক্ষায় দেখা গেছে তাদের করোনা টিকা ভারতে পাওয়া কোডিভ স্ট্রেইনের বিরুদ্ধে কার্যকর। বলা হয়েছে সম্প্রতিক তথ্য পয়েন্টগুলি BNT 621B2-এর (এটি টিকার প্রযুক্তিগত নাম) উচ্চ কার্যকারিতা নিশ্চিত করে।করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে এই ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ গ্রহণ করতে হবে। 

পাব্লিক হেলফ ইংল্যন্ড সম্প্রতি একটি পর্যবেক্ষণ চালিয়ে ছিল। এই সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ২৬ শতাংশ ছিল ভারতীয় অথবা ব্রিটিশ ভারতীয়। ১.৪ শতাংশ বাংলাদেশি ও ৫.৯ শতাংশ পাকিস্তানি অংশ নিয়েছিলেন। মোটের ওপর ৫.৭ শতাংশ মানুষ ছিলেন যাঁরা এশিয়ার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত। ২২ মে শেষ হওয়ায় সেই সমীক্ষায় দেখা গেছে তাদের টিকা B.1.617.2 ভাইরেন্টের বিরুদ্ধে ৮৭.৯ শতাংশ কার্যকর। ভাতীয়দের এই টিকা করোনা থেকে সুরক্ষা দেবে বলেও আশা করা হচ্ছে।