Asianet News Bangla

রাজ্যে শুরু হচ্ছে শিশুদের শরীরে করোনা টিকা পরীক্ষা, জানুন বিস্তারিত

  • রাজ্যে শুরু হচ্ছে শিশুদের ওপর কোভিড টিকার ট্রায়াল 
  • বেছে নেওয়া হবে ১০০ জন শিশুকে 
  • পার্ক সার্কাসের ইনস্টিটিউট অব চাইল্ড হেলথে হবে পরীক্ষা 
  • গোটা দেশে ৫০এর বেশি কেন্দ্রে হবে পরীক্ষা 
coronavirus children covid vaccine trail in bengal to start from friday bsm
Author
Kolkata, First Published Jun 15, 2021, 6:54 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বিহার, দিল্লির পর এবার পশ্চিমবঙ্গে শুরু হচ্ছে শিশুদের করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের ট্রায়াল। পরীক্ষামূলকভাবে শিশুদের শরীরে এবার কোভিনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে। সূত্রের খবর ১২-১৮ বছরে মধ্যে যাঁদের বয়স তাঁদেরই প্রথম পর্যায়ে বেছে নেওয়া হবে ট্রায়ালের জন্য। জাইডাস ক্যাডিসা (Zydus Cadila)সংস্থার ভ্যাকসিন দিয়ে এই রাজ্য শিশুদের কোভিড ভ্যাকসিনের ট্রায়ার শুরু করতে চলেছে। সূত্রের খবর শুক্রবার থেকেই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হতে  পারে। পার্ক সার্কাসে ইনস্টিটিউট অব চাইল্ড হেলথে শুরু হবে ট্রায়াল। ১০০ জনকে নিয়েই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হবে। 

গালওয়ান সংঘর্ষের এক বছর পরেও অনড় চিনা সেনা, এক নজরে পূর্ব লাদাখ সেক্টরে ভারত-চিনের অবস্থান ...
একই দিনে গোটা দেশে ৫৪টি কেন্দ্রীয় শিশুদের ওপর পরীক্ষামূলকভাবে করোনাভারাসের টিকা প্রয়োগ করা হবে। তবে এই রাজ্যে শুধুমাত্র পার্ক সার্কাসের ইন্সটিটিউট অব চাইল্ড হেলথেই  ক্লিনিক্যাল ট্রায়ল হবে। মাত্র ১৫ দিনেই এইক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শেষ হবে। জাইডাস ক্যাডিলা সংস্থাটি তাদের প্রস্তাবিত করোনা টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালাচ্ছে দেশের ২৮ হাজার মানুষের ওপর। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রাজ্যে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালও শুরু হয়ে গেছে। এই ট্রায়ালের শেষ পর্যায়ে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের ওপর কোভিড টিকার পরীক্ষা করা হচ্ছে। 

আবারও বজ্রাঘাতে মৃত্যু রাজ্যে, পূর্ব বর্ধমানে গত ১৪ দিনে মৃত ৭

এবার কি আরও দামি হবে কোভ্যাক্সিন, কোভিড টিকা নিয়ে ভারত বায়োটেকের মন্তব্য ঘিরে জল্পনা ...

অন্যদিকে দিল্লিতে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সে শিশুদের ওপর ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা পরীক্ষা শুরু করেছে। সেখানে ৬-১২ বছর বয়সীদের ওপর করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ করা হচ্ছে মঙ্গলবার থেকেই নাম নথিভুক্ত করার প্রক্রিয়াশুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত এই দেশের মোট জনসংখ্যা প্রায় ১৩০ কোটি। যার মধ্যে ৮০ শতাংশই ১২-১৮ বছর বয়সীদের মধ্যে পড়ে। আর সেই করাণেই করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ১২-১৮ বছর বয়সীদের টিকাকরণ করার ওপর জোর দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। আর সেই কারণেই একাধিক পরিকল্পনাও গ্রহণ করা হয়েছে। দ্বিতীয় তরঙ্গে এই এই বয়সীদের বেশিরভাগই করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিল। আর তৃতীয় তরঙ্গে আছড়ে পড়ার আগেই শিশুদের সুরক্ষিত করার ওপরই মনোনিবেশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios