ফের মানবিকতার নজির। লকডাউনের শহরে এবার ত্রাতার ভূমিকায় কলকাতা পুলিশ। বিপদের সময়ে স্কুলপড়ুয়ার পাশে দাঁড়ালেন খোদ পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। বাড়িতে গিয়ে পুলিশকর্মীরাই ল্যাপটপের বন্দোবস্ত করে দিলেন। 

ঘটনাটি ঠিক কী? অনলাইনে কলেজে ভর্তির প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিল কৃষ্ণাভ নামে দ্বাদশ শ্রেণির এক পড়ুয়া। শনিবার সকালে আচমকাই তাঁর ল্যাপটপটি খারাপ হয়ে যায়। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। কারণ, ল্যাপটপ যদি কাজ না করে, তাহলে কলেজের ভর্তির পরীক্ষার বসা যাবে না। নষ্ট হয়ে যাবে গোটা একটা বছর। অন্য সময়ে হলে না হয় দোকানে নিয়ে ল্যাপটপটি সারিয়ে নেওয়া যেত, কিন্তু লকডাউনের জেরে সে উপায়ও নেই। নিরুপায় হয়ে কলকাতা পুলিশ ও সিপি অনুজ শর্মাকে ট্যাগ করে সাহায্য চেয়ে টুইট করে কৃষ্ণাভ।  কিছুক্ষণের মধ্যেই উত্তর দেন অনুজ শর্মা। এমনকী, তিনি নিজে আবার টুইটটি কলকাতা পুলিশকে ট্যাগও করে দেন। ফল মেলে হাতনাতে।

 

 

 কলকাতা পুলিশের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে কৃষ্ণাভের বাড়ির ঠিকানা জানতে চাওয়া হয়। তাঁর বাড়িতে পৌঁছতে খুব বেশি সময় নেননি পুলিশকর্মীরা। ব্যবস্থা করে দেন ল্যাপটপেরও। পুলিশের হস্তক্ষেপে যে এত দ্রুত সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, তা ভাবতেই পারেননি ওই স্কুল পড়ুয়া ও তাঁর পরিবারের লোকেরা। কলকাতা পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁরা।