ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া চলছে পুরোদমে। তার মধ্যে যত দিন যাচ্ছে ততই বঙ্গে বেড়ে চলেছে কোভিডের দাপট। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১১ এপ্রিল দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা মহামারির আগমনের শুরু থেকে এখনও অবধি সর্বোচ্চ, ৪,৩৯৮। এর আগে এই রেকর্ড ঘটেছিল গত বছরের ২২ অক্টোবর, ওইদিন রাজ্যের দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছিল ৪,১৩৭।

বর্তমানে রাজ্যের চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ২৩,৯৮১। এই দিকেও সর্বোচ্চ রেকর্ড ভাঙার দিকে এগোচ্ছে রাজ্য। এর আগে ২২ অক্টোবরই রাজ্যের চিকিৎসাধীন করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল সর্বোচ্চ, ৩৭,১৯০। সেই সময় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেয়েছিল রাজ্য স্বাস্থ্য পরিষেবা। অবস্থা ক্রমে সেইদিকে এগোচ্ছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

গত এক সপ্তাহে রাজ্যে মোট ২৩,৯৮১ জন নতুন করোনা রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। সব মিলিয়ে মহামারির শুরু থেকে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬,১৪,৮৯৬। গত এক সপ্তাহে রাজ্যে করোনা জনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ৫৬ জনের।  বাংলার কোভিড পজিটিভিটির হার (ভারত - ৫.২১%, পশ্চিমবঙ্গ - ৬.৪৭%) এবং করোনায় মৃত্যুর হার (ভারত - ১.২৭%, পশ্চিমবঙ্গ - ১.৬৯%), দুটোই দেশের গড়ের থেকে বেশি।

সংক্রমণ এই মূহূর্তে সবথেকে দ্রুত ছড়াচ্ছে রাজ্যের ১০ জেলায়। আর এই সবকটিতেই সদ্য ভোটগ্রহণ হয়েছে। এরমধ্যে ৩ জেলায় চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়েছে। হাওড়ায় চিকিৎসাধীন - ১৮০৭ জন, হুগলীতে ১,০১৭ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগণায় ১,৪৬১ জন। তিন জেলাতেই দৈনিক গড় নতুন সংক্রমণের সংখ্যাও ১৫০-এর বেশি।