Asianet News Bangla

প্রয়োজনে ক্যানসার আক্রান্তদের দেওয়া হতে পারে করোনা টিকার ৩টি ডোজ, বলছে সমীক্ষা

  • করোনা ভাইরাস নিয়ে এখনও পরীক্ষা চলছে
  • এরই মধ্যে সামনে এল এক নতুন সমীক্ষা
  • ক্যানসার আক্রান্তদের শরীরে কাজ করছে না করোনা টিকার ২টি ডোজ
  • প্রয়োজনে তাঁদের টিকার ৩টি ডোজ দেওয়া হবে
Extra Covid vaccine may help protect transplant patients reveals study bmm
Author
Kolkata, First Published Jun 17, 2021, 7:32 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

করোনা ভাইরাস নিয়ে এখনও পরীক্ষা চলছে। প্রতিদিনই কোনও না কোনও নতুন তথ্য পাচ্ছেন গবেষকরা। আর এই পরিস্থিতিতেই অঙ্গ প্রতিস্থাপন হয়েছে বা ক্যানসার আক্রান্তদের টিকা দেওয়া নিয়ে সামনে এল এক নতুন সমীক্ষা। 

অঙ্গ প্রতিস্থাপন হয়েছে বা ক্যানসার আক্রান্ত কোনও মানুষের শরীরে করোনার টিকা কতটা কার্যকরী তা নিয়ে প্রশ্ন ছিলই। একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে এই সব মানুষের বেশিরভাগের শরীরেই করোনা টিকার দুটি ডোজ নেওয়ার পরও পর্যাপ্ত পরিমাণ অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছিল না। তবে এক্ষেত্রে চিন্তার কোনও কারণ নেই। কারণ গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে টিকার দুটি ডোজের পরিবর্তে তাঁদের তিনটি ডোজ প্রয়োজন। আর টিকার তিনটি ডোজ নেওয়ার পর তাঁদের শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ অ্য়ান্টিবডি তৈরি হচ্ছে।  

আরও পড়ুন- করোনাকালে Green Fungus-সংক্রমণ বড় বিপদ, সবুজ ছত্রাকের কারণ আর লক্ষণগুলি জেনে নিন

অঙ্গ প্রতিস্থাপন হয়েছে এমন ৩০ জন মানুষের উপর একটি গবেষণা করেছিলেন জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। তাতে দেখা গিয়েছে, করোনার দুটি ডোজ নেওয়ার পরও তাঁদের বেশিরভাগের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়নি। আর যাঁদের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে তার পরিমাণ খুবই কম। তবে এক্ষেত্রে এই সব রোগীদের ভেঙে না পড়ার পরামর্শ দিয়েছেন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক ডোরি সেগেভ। তিনি বলেন, "এমনটা ধরে নেওয়ার অর্থ নেই যে দুটি টিকার পরেও অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছে না মানে সেখানে আর কোনও আশা নেই।" কারণ ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সমীক্ষাতেই দেখা গিয়েছে এই সব রোগীদের দুটির পরিবর্তে টিকার তিনটি ডোজ দিলে তবেই অ্যান্টিবডির পরিমাণ বাড়ছে। তবে তিনটি ডোজ নেওয়ার বিষয়ে এখনও অনুমোদন দেওয়া হয়নি। এনিয়ে গবেষণা চলছে। শীঘ্রই এবিষয় সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী ডোরি। 

তবে সাধারণ মানুষকে কয়েকটি বিষয়ে সতর্ক করেছেন ডোরি। এখন টিকা নেওয়ার পর অনেকেই সাধারণ জীবনযাপন শুরু করে দিয়েছেন। অনেকের ধারণা যে এখন তাঁরা পুরোপুরি নিরাপদ। করোনা এখন আর তাঁদের ছুঁতে পারবে না। কিন্তু, এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। টিকা নেওয়ার আগে যে বিষয়গুলি মেনে চলছিলেন, সেগুলিই মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন ডোরি। মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা খুবই জরুরি। 

আরও পড়ুন- একসঙ্গে এল জোড়া স্পনসর, টোকিও অলিম্পিকে মিটল ভারতীয় দলের সমস্যা

এছাড়া ক্যানসার ও অঙ্গ প্রতিস্থাপন হওয়া রোগীদের অনেক বেশি ওষুধ নিতে হয়। এমনকী, তাঁদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও অনেকটা কম থাকে। সেই কারণে করোনার টিকা নেওয়ার আগে তাঁরা অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কারণ কারও শরীরে টিকা কার্যকর হবে কি না এই বিষয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। না হলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনা থাকে। আর এই গবেষণা যদি সফল হয় তাহলে আগামীদিনে অঙ্গ প্রতিস্থাপন হওয়া বা ক্যানসার আক্রান্ত রোগীদের করোনা টিকা নেওয়ার বিষয়ে কিছু পরিবর্তন আসতে পারে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios