কোথায় পাবেন ভ্যাকসিন। এই প্রশ্নের উত্তরে রাতের ঘুম ওড়ার দশা মানুষের। এবার কলকাতা পুরসভার উদ্যোগে শহর কলকাতায় করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ভ্রাম্যমান ভ্যাক্সিনেশন সেন্টার শুরু হল। করোনা সংক্রমণে অভিনব ব্যবস্থা গ্রহণ করল কলকাতা পুরসভা। শহরের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সবজি বিক্রেতা, অটোরিকশা চালক, বাস চালক, দোকানদার, হকাররা এখানে ভ্যাকসিন পাবেন। 

পুরসভার তরফ থেকে জানানো হয়েছে সুপার স্প্রেডার গ্রুপের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত সমস্ত মানুষদের জন্য এই ভ্রাম্যমাণ শীততাপ নিয়ন্ত্রিত বাসে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু করা হলো। অনেক সময়ই দেখা যাচ্ছে কাজের চাপে এই শ্রেণীর মানুষরা সময়মতো টিকাকরন কেন্দ্রগুলিতে পৌঁছাতে না পারার কারণে তারা ভ্যাকসিন দেওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এই কারণেই রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার বর্তমান প্রশাসক মন্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিমের উদ্যোগে এই ব্যবস্থা চালু হল। 

রাজ্য পরিবহণ নিগমের শীততাপ নিয়ন্ত্রিত বাসের মাধ্যমে টিকাকরণের কাজ এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হল বলে এদিন জানান ফিরহাদ। আগামী দিনে শহর কলকাতায় এ ধরনের শীততাপ নিয়ন্ত্রিত আরো বেশ কয়েকটি বাসকে প্রস্তুত করে টিকাকরণের কাজ শুরু করার জন্য রাস্তায় নামানো হবে বলেও জানান তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে সময় মতো ও চাহিদামত টিকার যোগান যদি পাওয়া যায় তবে এ ধরনের একাধিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে, দ্রুত টিকাকরনের কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হবে বলেও এ দিন জানান ফিরহাদ।