দীর্ঘ কেরিয়ারের শেষটা যেমন হওয়া উচিত ছিল সেরকমটা হয়তো হল না। তবু স্বামী শোয়েব মালিকের একদিনের ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্তে আবেগতাড়িত হয়ে পড়লেন স্ত্রী সানিয়া মির্জা। 

শুক্রবার লর্ডসে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে পাকিস্তান বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ খেলার পরেই একদিনের ক্রিকেটকে বিদায় জানান পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শোয়েব মালিক। পাকিস্তান বাংলাদেশকে হারালেও ওই ম্যাচে অবশ্য প্রথম এগারোয় সুযোগ হয়নি শোয়েবের। কিন্তু খেলার শেষে পাকিস্তান দলের সব ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফরা মিলেই শোয়েবকে অভিনন্দন জানান। 

ভারতের বিরুদ্ধে হার তো আছেই, ব্যক্তিগত ভাবেও এই বিশ্বকাপে ভাল পারফরম্যান্স করতে ব্যর্থ শোয়েব। এবারের বিশ্বকাপে তিন ম্যাচে মাত্র আট রান করেছেন শোয়েব। তার মধ্যে দুটো ম্যাচেই শূন্য করে আউট হন তিনি। ভারতের বিরুদ্ধে হারের পরেই দল থেকে বাদ দেওয়া হয় তাঁকে। তার উপর গ্রুপ পর্যায় থেকেই ছিটকে যেতে হয়েছে পাকিস্তানকেও। ফলে, শোয়েবের বিদায় মুহূর্তটা যে খুব স্মরণীয় হয়ে থাকল, এমনটা নয়। 

এসবে অবশ্য এতটুকু বিচলতি নন সানিয়া। বরং স্বামীকে নিয়ে তিনি গর্বিত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয় টেনিস সুন্দরী লিখেছেন, 'সব কাহিনিরই একটা শেষ থাকে। কিন্তু জীবনে প্রতিটি শেষের পরে একটা  নতুন শুরুও হয়। দেশের হয়ে তুমি কুড়ি বছর খেলেছো এবং এখনও সম্মান এবং বিনম্রতার সঙ্গেই তা করে যাবে। তুমি যে যে কৃতিত্ব অর্জন করেছো, তাতে আমি এবং ইজান গর্বিত।'

পাকিস্তানের হয়ে ২৮৭ ম্যাচে ৩৪.৫ গড়ে ৭৫৩৪ রান করেছেন শোয়েব। ১৫৮টি উইকেটও নিয়েছেন তিনি। একদিনের ম্যাচ থেকে বিদায় নিলেও পাকিস্তানের হয়ে টি টোয়েন্টিতে খেলবেন এই অলরাউন্ডার।