দ্রুত গতিতে ভারত এবং সারা বিশ্ব ছড়িয়ে পড়ছে করোনা ভাইরাস। মারাত্মক এই করোনা ভাইরাসের জেরে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে পরবর্তী নোটিশ না আসা পর্যন্ত সমস্ত ঘরোয়া টুর্নামেন্ট স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে বিসিসিআই। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ২০২০ এর উপর লাগল সাময়িক স্থগিতাদেশ। একইসাথে ১৫ই মার্চ লখনউতে এবং ১৮ই মার্চ কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে অনুষ্ঠিত হতে চলা ওয়ান-ডে ম্যাচগুলি আপাতত হয়েছে বাতিল। সেই দুটি ওয়ান-ডের নতুন সূচি শীঘ্রই ঘোষিত হবে।

 নোভেল কারোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের জেরে   পেটিএম ইরানী কাপের সমস্ত ম্যাচ, সিনিয়র মহিলা ওয়ান-ডে নক আউট, সিনিয়র মহিলা ওয়ান-ডে চ্যালেঞ্জার, মহিলা অনূর্ধ্ব ১৯ ওয়ান-ডে নক আউট, মহিলা অনূর্ধ্ব ১৯ টি-টোয়েন্টি লিগ, সুপার লিগ এবং নক আউট, মহিলা অনূর্ধ্ব ১৯ টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জার ট্রফি, মহিলাদের অনূর্ধ্ব ২৩ ওয়ান-ডে নকআউট, মহিলা অনূর্ধ্ব ২৩ ওয়ান-ডে চ্যালেঞ্জার ট্রফি গুলির জন্য পরবর্তী নোটিশ না আসা অবধি সেগুলি স্থগিত রাখার নির্দেশ ঘোষণা করেছে বিসিসিআই। 

শনিবার বিসিসিআই আইপিএল দলের মালিকদের সাথে আইপিএল ২০২০ এর ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনায় বসেছে। বৈঠক শেষ হওয়ার পর জানা গেছে যে সকল ফ্রাঞ্চাইজি মালিকই আইপিএল পিছিয়ে দেওয়ার ব্যাপারটি নিয়ে কোনোরকম আপত্তি জানাননি। 

এরই মধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় চলছিল চ্যাপেল-হ্যাডলি সিরিজ। মুখোমুখি হয়েছিল দুই প্রতিবেশী দেশ অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড। প্রথম ম্যাচটি হয়েছিল দর্শকশুন্য সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের জেরে আপাতত সিরিজটিই স্থগিত রাখতে বলা হল। ভারত - দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের মতোই বাতিল হল শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ড সিরিজ। শ্রীলঙ্কায় টেস্ট খেলতে আসার কথা ছিল ইংল্যান্ড দলের।