ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চতুর্থ টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৬০ রানের লিড ভারতীয় দল। টিম ইন্ডিয়ার প্রথম ইনিংস শেষ হল ৩৬৫ রানে। বড় রানের লিড নিয়ে স্বস্তি থাকলেও, আফশোস ওয়াশিংটন সুন্দরের সেঞ্চুরি হাতছাড়া হওয়া। টেলেন্ডাররা একেবারেই খাতা খুলতে না পারায় ৯৬ রানে অপরাজিত থেকে যান সুন্দর। তবে দ্বিতীয় দিনে ১৪৬ রানে ৬ উইকেট পড়ে যাওয়ায় যে চাপ তৈরি হয়েছিল, ঋষভ পন্থের অনবদ্য সেঞ্চুরু ও ওয়াশিংটন সুন্দরদের দুরন্ত ব্যাটিংয়ে ম্যাচে চালকের আসনে টিম ইন্ডিয়া।

এদিন ২৯৪ রানে ৭ উইকেট থেকে খেলা শুরু করে ভারতীয় দল। শুরুর থেকেই আক্রমণাত্বক ভঙ্গিতে ব্যাট করতে শুরু করেন ওয়াশিংটন সুন্দর ও অক্ষর প্যাটেল। অষ্টম উইকেটে ১০৬ রানের পার্টনারশিপ করেন তারা। বেশ কিছু অনবদ্য শটও খেলেন দুই বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান। ধীরে ধীরে নিজের সেঞ্চুরির দিকেও এগোচ্ছিলেন সুন্দর। কিন্তু দলের ৩৬৫ রানের মাথায় রান আউট হয়ে যান অক্ষর প্যাটেল। ৪৩ রান করেন তিনি। কিন্তু এরপর কাতা না খুলেই আউট হয়ে যান ইশান্ত শর্মা ও মহম্মদ সিরাজ। দুটি উইকেট নেন বেন স্টোকস। ৩৬৫ রানে শেষ হয় ভারতের প্রথম ইনিংস। ৯৬ রানে অপরাজিত থাকেন ওয়াশিংটন সুন্দর।

১৬০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছে ইংল্যান্ড। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মতে, আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামের উইকেটে ১৬০ রানের লিড অনেক বড়। যার ফলে এই লিড পেরিয়ে ইংল্যান্ড কত বড় স্কোর করতে পারবে ভারতীয় স্পিনারদের সামলে, তা নিয়ে রয়েছে সন্দেহ। ফলে চতুর্থ টেস্টে ভারতীয় দল যে চালকের আসনে রয়েছে তা একপ্রকার পরিস্কার। এবার দেখার বিষয় কতটা লড়াই দিতে পারে ডো রুটে দল।