২০ ওভারের না হলেও ঠিক হয়েছিল ম্য়াচ হবে ৫ ওভারের। কিন্তু গ্রাউন্ডসম্যানদের অসাবধানতার জন্য বাতিল হয়ে গেল ভারত-শ্রীলঙ্কা প্রথম টি-২০ ম্য়াচ।

রবিবার প্রথম থেকেই বৃষ্টির জন্য ম্যাচ বাতিল হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল গুয়াহাটির বর্ষাপাড়া ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। টসের পরেই গুয়াহাটিতে প্রবল বৃষ্টি শুরু হওয়ায় ভারত-শ্রীলঙ্কা প্রথম টি২০ শুরু করা যায়নি। দু'বার মাঠ ঘুরে দেখেও ম্য়াচের ঝুঁকি নেননি আম্পায়াররা। এক সময় ২০ ওভারের না হলেও ১০ বা ৫ ওভারে ম্যাচ খেলানোর কথা ভাবেন আম্পায়াররা। কিন্তু ততবারই আবার বৃষ্টি প্রবল বেগে শুরু হয়।

৯টার সময় মাঠ পরিদর্শন করেও খেলা শুরু করা যায়নি। আবার ৯.৩০-এ মাঠ পরিদর্শন করার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ম্যাচ বাতিলের। যদি ৯.৪৫-এ খেলা শুরু করা যেত তা হলে ৫-৫ ওভারের খেলা হতো। কিন্তু সেটাএও সম্ভব হয়নি। শেষে হতাশা নিয়েই ফিরতে হয়েছে দর্শকদের। জানা গেছে, সময় অসাবধানতাবশত পিচের উপর বাড়তি জল গড়িয়ে পড়ায় ৫ ওভারের ম্য়াচও করা যায়নি।

এদিন বৃষ্টি থামলে পিচের উপর থেকে কভার তোলার সময় ভুল করে বসেন মাঠের কর্মীরা। কভার থেকে জল গড়িয়ে পড়ে পিচে। আউটফিল্ড শুকনো করা গেলেও শেষ পর্যন্ত পিচ ভিজে স্পটগুলিকে শুকনো করা যায়নি৷ যার জেরেই হতাশ হতে হয়েছে দর্শকদের। শেষে নিজে এসে পিচের খবর নেন বিরাট কোহলি। কিন্তু পিচের কিছু ভিজে স্পট হতাস করে তাঁকে। শেষে প্য়াভিলিয়নে ফিরে যান  তিনিও। সোশ্য়াল মিডিয়ায় টুইট করে কমেন্টেটর হর্ষ ভোগলে লিখেছেন, আশা করি এই ঘটনা আর ঘটবে না।