মাত্র ১৭ বছর ১৫৩ দিনে সর্ব কণিষ্ঠতম উইকেট রক্ষক হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটেছিল পার্থিব প্যাটেলের। ২০০২ সালে ট্রেন্ট ব্রিজে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের অধিনায়কত্বে অভিষেক হয়েছিল ছোটখাটো চেহারার, শিশুসুলভ মুখের পার্থিব প্য়াটেলের। ধোনি যুগে আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে তেমনভাবে দাগ না কাটতে পারলেও, যখনই সুযোগ পেয়েছেন নিজেকে প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন। অবশেষে ১৮ বছর পর সমস্ত ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করলেন বাঁ-হাতি উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান।

 

 

বুধবার সকালে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অবসরেরর ঘোষণা করেন পার্থিব প্যাটেল। সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিদায় জানান তিনি। ট্যুইটারে লেখেন, 'আজ থেকে ১৮ বছরের ক্রিকেট কেরিয়ারের ইতি টানলাম। সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিচ্ছি। ‘বিসিসিআই ১৭ বছরের একজন কিশোরকে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার যোগ্য মনে করেছিল এবং উদারতার সঙ্গে বিশ্বাস রেখেছিল। তরুণ বয়সে কেরিয়ার গড়ে তোলার সময় আমার হাত ধরে যথাযথ দিকনির্দেশ করার জন্য বোর্ডের প্রতি আমি অত্যন্ত কৃতজ্ঞ।' ক্রিকেট কেরিয়ারে তার সঙ্গে যুক্ত সকলকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন পার্থিব প্যাটেল।

 

 

জাতীয় দলের হয়ে ২৫ টেস্টে তাঁর সংগ্রহ ৯৩৪ রান। উইকেটের পিছনে শিকার ৭২টি। ৩৮টি ওয়ানডে’তে ৭৩৬ রান করেছেন পার্থিব। উইকেটের পিছনে ক্যাচ এবং স্ট্যাম্পিং মিলিয়ে শিকার করেছেন ৩৯টি। মেন ইন ব্লু’র হয়ে টি-২০ খেলেছেন মাত্র ২টি।  আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোনও শতরান না থাকলেও রয়েছে ১০টি হাফ সেঞ্চুরি। পার্থিব শেষবার দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন ২০১৮ সালে। জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে কেরিয়ারের শেষ টেস্টে মাঠে নামেন তিনি। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে রয়েছে ২৭টি শতরান। একাধিক ম্যাচ উইনিং ইনিংসও খেলেছেন গপজরাতের হয়ে। অবশেষে ক্রিকেট কেরিয়ারের যবনিকা টানলেন তিনি। আগামি ভবিষ্যতের জন্য তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ক্রিকেট মহল।