করোনা আবহে এই বছর আরব আমিরশাহির মাটিতে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে বসতে চলেছে আইপিএল ২০২০-র আসর। প্রতিযোগিত চলবে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত। কিন্তু করোনা আবহে প্লেয়ারদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কোনও রকম ঝুঁকি নিতে নারাজ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। তাই আইপিএলের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত এসওপি তৈরী করে ফেলেছে বিসিসিআই। সবাই যাতে সুস্থ থাকেন ও কোনও ভাবে সংক্রমণ যাতে না ছড়ায়, তার জন্য বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। বিসিসিআই-এর পাঠানো প্রস্তুতির খসড়া অনুসারে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে প্রশিক্ষণ শুরুর আগে ভারতীয় ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফদের কমপক্ষে পাঁচ বার কোভিড-১৯ টেস্ট দিতে হবে৷ শুধু তাই নয়, তাদের সেই রিপোর্ট নেগেটিভ হতে হবে৷ এছাড়াও আইপিএল চলাকালীন প্রতি পাঁচ দিন অন্তর এই পরীক্ষা করা হবে।

আরও পড়ুনঃআইপিএলের স্পনসর থেকে সরে দাঁড়াল ভিভো, নতুন স্পনসরেরর খোঁজে বিসিসিআই

বিসিসিআইয়ের আধিকারিক সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, সব খেলোয়াড় ও সাপোর্ট স্টাফকে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার আগে দুইবার কোভিড টেস্ট করতে হবে ২৪ ঘণ্টার অন্তরে। এরপর দলের সঙ্গে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। আর যদি কারও টেস্ট পজেটিভ আসে তাকে ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে যেতে হবে। কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষে ফের তাকে দুবার করোনা পরীক্ষা দিতে হবে। ফল নেগেটিভ আসলেই তাকে দুবাইয়ের বিমানে ওঠার অনুমতি দেওয়া হবে। সেখানে গিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে খেলোয়াড় ও স্টাফদের তিনবার পরীক্ষা করা হবে কম করে। সেগুলি নেগেটিভ এলে তবেই জৈব সুরক্ষিত বাবলে প্রবেশ করতে পারবেন ক্রিকেটাররা। 

আরও পড়ুনঃনিজের গ্লাভস জোড়া তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি ইকের ক্যাসিয়াস

আরও পড়ুনঃজাতীয় স্তরে একাধিক সোনা জয়ী অ্যাথলিট, বর্তমানে অর্থাভাবে দিনমজুরের কাজ করছেন

অনেক বিদেশি ক্রিকেটার আবার সরাসরি মরু দেশে যাবেন। তাদের জন্যও আলাদা পরিকল্পনা রয়েছে বিসিসিআইয়ের। বিসিসিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে,'সমস্ত বিদেশী খেলোয়াড় এবং সহায়তা কর্মীদেরও আমিরাশীহর বিমান ধরার আগে দু’টি কোভিড ১৯ আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে৷ পরীক্ষাগুলি নেতিবাচক হলেই বিমানে উঠতে পারবে৷ যদি না-হয় তবে একইভাবে তাদেরও ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবে হবে৷ পরে দু’টি নেগেটিভ রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর আমিরশাহীর ফ্লাইট ধরতে সক্ষম হবে৷’ পাশাপাশি ২০ অগাস্টের আগে দলগুলিকে আরব দেশে যেতে মানা করা হয়েছে। যাতে সমস্ত প্রক্রিয়া সঠিকভাবে করা যায়। একইসঙ্গে প্রতিটি দল ও আরব আমিরশাহির সরকার যা নিয়ম করবে সেগুলিও প্রতিটি প্লেয়ারকে মেনে চলতে হবে বলে জানানো হয়েছে।