২০১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেওয়ার পর ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব নিয়ে বহু মতবিরোধ তৈরি হয়েছিল। এমনকী, বিরাট কোহলিকে ভারতীয় দলের অধিনায়ক রাখা উচিত না কি নতুন কোনও অধিনায়ক বেছে নেওয়া উচিত, তা নিয়েও উঠেছিল একাধিক প্রশ্ন। 

আগামী ওয়েস্টইন্ডিজ সফরে ৩ ফরম্যাটেই ভারতীয় দলের অধিনায়ক করা হয়েছে বিরাট কোহলিকে। সেই বিষয়ে প্রশ্নও তুলেছিলেন ভারতের  প্রাক্তন অধিনায়ক সুনিল গাভাস্কর। সম্প্রতি এক সংবাদপত্রে তিনি লিখেছিলেন, বিশ্বকাপ পর্যন্তই অধিনায়কত্বের দায়িত্বে ছিলেন বিরাট। তার পরে ফের নতুন করে অধিনায়ক নির্বাচনের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওয়েস্টইন্ডিজ সফরের আগে কোনওরকম বৈঠক ছাড়াই বিরাটকে দলের অধিনায়ক হিসবে বেছে নিয়েছেন জাতীয় নির্বাচকরা। কোহলিকে অধিনায়ক হিসাবে পুনর্বহাল করতে হলে নির্বাচকদের অন্তত পাঁচ মিনিটের জন্য হলেও বৈঠকে বসা উচিত ছিল বলে জানিয়েছিলেন কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান। 

তাঁর এই বক্তব্যের সঙ্গে সহমত হননি আর এক প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মঞ্জরেকর। সোমবার টুইট করে এই বিষয়ে নিজস্ব মতামত জানিয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপে ভারতের পারফরম্যান্স নিয়ে তিনি লিখেছেন, ভারতীয় নির্বাচক এবং বিরাটের অধিনায়কত্বের বিষয়ে গাভাস্করের মন্তব্যের সঙ্গে তিনি একমত নন। বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের পারফরম্যান্স খারাপ নয় বলেই মত তাঁর। গোটা টুর্নামেন্টে ভারত যে মোট সাতটি ম্যাচ জিতেছে এবং মাত্র দু'টিতে হেরেছে, সেকথাও মনে করিয়ে দেন মঞ্জরেকর। সেমিফাইনালেও  অল্পের জন্য জয় হাতছাড়া হয়। অসাধারণ এই  পারফরম্যান্সের পরে অধিনায়কের দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন করাটা খুবই অযৌক্তিক বলেই মনে করেন মঞ্জরেকর। এছাড়াও তিনি লিখেছেন, ক্রিকেটার হিসাবে জাতীয় নির্বাচকরা খুব স্বনামধন্য না হলেও দলের প্রতি তাঁদের যথেষ্ট দায়বদ্ধতা রয়েছে। নির্বাচকদের সততার সঙ্গে কাজ করাটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার।