আইপিএল ও টি২০ বিশ্বকাপ একসঙ্গে জোড়া চাপ সামলাতে রীতিমত নাজেহাল হতে হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। করোনার কারণে আইপিএল দেশের মাটিতে স্থগিত হলেও, আরব আমিরশাহিতে বাকি ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই। জানা যাচ্ছে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত মরুদেশে হবে ২০২১ আইপিএলের বাকি ৩১টি ম্য়াচ। তবে এই পরিস্থিতিতে ভারতের মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ নিয়ে তৈরি হয়েছে ঘোর অনিশ্চিয়তা।

ভারতের মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপের আয়োজনের জন্য সিদ্ধান্ত জানাতে বিসিসিআই ২৮ জুন পর্যন্ত সময় দিয়েছে আইসিসি। কিন্তু যতদূর জানা যাচ্ছে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে ভারতে টি২০ বিশ্বকাপ না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তবে সেক্ষেত্রেও আরব আমিরশাহিকে তৈরি থাকতে বলেছে আইসিসি। তবে হঠাৎই টি২০ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে উঠে আসছে প্রতিবেশী দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কার নাম। ইতিম্যেই শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড বিশ্বকাপ আয়োজন করতে আগ্রহী কিনা সেবিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে বিসিসিআইয়ের তরফে।

বেশ কয়েকটি কারণের জন্যই ডার্ক হর্স হিসেবে উঠে এসেছে শ্রীলঙ্কার নাম। মরুদেশে ২৫ দিনের উইন্ডোতে তিনটি মাঠে হবে আইপিএলের ম্যাচগুলি। ১৫ অক্টোবর আইপিএলের ফাইনাল ও ১৮ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়ার কথা বিশ্বকাপ। কিন্তু আইসিসির নিয়ম অনুসারে প্রতিযোগিতা শুরুর ১৫ দিন আগে মাঠ আইসিসির হাতে সপে দিতে হয়। এছাড়া তিনটি মাঠে আইপিএলের ম্যাত, পিএসএলের ম্যাচ, পাকিস্কানের ম্যাচ আয়োজন করার ফলে বিশ্বকাপের মত টুর্নামেন্টে পিচ নিয়েও দেখা দিতে পারে সমস্যা। তাই শ্রীলঙ্কার নাম উঠে এসেছে টি২০ বিশ্বকাপের আয়য়োজক হিসেবে। তবে সরকারিভাবে এখখনও কোনও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়নি।