টুইটে বলেছিলেন অল লুজারস আর নট লুজারস। কিন্তু সাংবাদিক সম্মেলনে দেখা গেল এক অন্য মমতাকে। সেই  মার খাওয়া তেজি মেয়ে , সেই ধর্ণা দেওয়া  বিরোধী নেত্রীর পিঠ আজ সত্যি দেওয়ালে ঠেকে গিয়েছে। গেরুয়া আগ্রাসনে যেন হা-ক্লান্ত মমতা।  এদিন তাঁর ভাবভঙ্গি তাই বলল।

চাতুরি বিশ্বাসঘাতকতা আর পেশিশক্তির এই খেলায় তিনি আর থাকতে চান না। এমনটাই মত তাঁর। "আমি একা হয়ে গিয়েছি , কাজ করার ইচ্ছে নেই। আমায় দলীয় কর্মীরা ছাড়ছে না"

মমতা এদিন মন্ত্রীসভা গঠনের গোটা প্রক্রিয়াটাকে নিয়েই সন্দেহ প্রকাশ করেন। বলেন, রাজীব গান্ধী ৪০০ আসন পেয়েছিলেন কেউ সন্দেহ করেনি। 

মমতার অভিযোগ, সরকারে থাকলেও পাঁচ-ছ' মাস কাজ করতে দেওয়া হয়নি তাঁকে।গলায় অভিমানের সঙ্গেই ফিরে ফিরে আসছে সেই ঝাঁঝ। তাঁর সাফ কথা, "একা থাকতে হলেও বিভাজন মানব না। বিধানসভায় আমরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ।" 
 
নির্বাচন পরবর্তী অশান্তি নিয়েও ক্রুদ্ধ তিনি। বলছেন "বিভিন্ন জায়গায় ঝান্ডা-ডাণ্ডা নিয়ে গিয়ে অত্যাচার করছে। এত অহংকার ভাল নয়।"