কোনও ভাবেই তাঁর মনে জমা বরফ গলানো যাচ্ছে না। দলের গুরু দায়িত্ব ছাড়তে মরিয়া রাহুল গান্ধী।
সূত্রের খবর, শেষবারের মতো তাঁকে বোঝাতে এদিন ভোরে তাঁর সঙ্গে দেখা করেছেন বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভ়ডরা।  এদিন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, রাজস্থানের ডেপুটি মুখ্যমন্ত্রী শচীন পাইলট এবং কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজওয়.আলা রাহুল গান্ধীর ১২ তুঘলক লেনের বাড়িতে সকালবেলা আসেন।  সেখানেই স্থির হয়, আগামী ৩-৪ দিনের মধ্যে কংগ্রেসের নেতৃত্ব স্থির করতে ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক হবে। 

চলে ভাই বোনের মধ্যে কয়েক প্রস্থ কথাবার্তাও।  কিন্তু এর কিছুক্ষণ পরেই সাংবাদিক মহলে খবর, রাহুল চাইছেন দলের লোকজনের সঙ্গে এদিন বিকেলেই দেখা করতে।

গত শনিবারই রাহুল গান্ধী জানিয়ে দিয়েছিলেন, তিনি দলের  সভাপতির পদত্যাগ করতে চান।  তারপর থেকে চলে কয়েক প্রস্থের মানভঞ্জন এর পালা।  লোকসভা ভোটে গোটা দল মুখ থুবড়ে পড়ার পর রাহুল গান্ধীর এই সিদ্ধান্তে কোনও ভাবেই কোন বদল আসেনি। 

সূত্রের খবর, কেসি বেনুগোপাল এবং আহমেদ প্যাটেলের সঙ্গে ইস্তফা সংক্রান্ত বিষয়ে কয়েক প্রস্তুত কথাও হয় রাহুলের।


 কিন্তু রাহুলের অনুপস্থিতিতে এত বড় গুরুভার কে সামলাবে কংগ্রেসে? দায়িত্ব কি গান্ধী পরিবার থেকে বেরিয়ে অন্য কারও হাতে যাবে নাকি প্রিয়ঙ্কা সেই গুরু ভার কাঁধে তুলে নেবেন? এই নিয়ে আলোচনার আগে শেষবার ভাইয়ের মানভঞ্জন করানোর জন্য তার বাড়িতে গেলেন বোন। 

যদিও কংগ্রেসের জেনারেল সেক্রেটারি কে সি ভেনুগোপাল এই গোপন সাক্ষাতের কথা উড়িয়ে দিয়েছেন

সর্বশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী ভাই বোনের এই মুখোমুখি কথোপকথনের পরে রাহুল বিকেল ৪.৩০ এ কংগ্রেসের নেতাদের সঙ্গে দেখা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।