তিন প্রান্তে আক্রান্ত হলেন রাজ্য বিজেপির তিন প্রধান মুখ। উত্তর কলকাতার আমহার্সট স্ট্রিট অঞ্চলে বাবা-মাকে নিয়ে ভোট দিতে যাওয়ার সময় বিক্ষোভের মুখে পড়েন বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর গাড়ি ভাঙচুর করে বিরোধীরা। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই যাদবপুরে ভাঙচুর চালানো হয় বিজেপি প্রার্থী অনুপম হাজরার গাড়িতেও।অন্য দিকে ডোঙারিয়া অঞ্চলে ডায়মন্ড হারবারের প্রার্থী নীলাঞ্জন রায়ের গাড়িও ভাঙচুর করা হয়েছে।

রাজ্যে চলছে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফা। বেলা যত বাড়ছে ততই আসছে হিংসার খবর। পক্ষপাতের অভিযোগ তুলে নির্বাচন কমিশনের কাছে নিজেই চিঠি লিখে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অথচ এদিন ভোট শুরু হওয়ার পর থেকে বারবার হিংসা ও নৈরাজ্যের অভিযোগ উঠছে তাঁর দলের সমর্থকদের বিরুদ্ধেই। 

এদিন সকাল থেকেই নানা জায়গা থেকে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের খবর আসতে শুরু করে। রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় ইসলামপুর। বহিরাগতদের তাণ্ডবে আক্রান্ত হন ইলেকট্রনিক সংবাদমাধ্যমের কর্মীও। রবীন্দ্র সরণিতেও হামলা চালিয়েছে একদল দুষ্কৃতি।

সর্বশেষ পাওয়া খবরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। কামারহাটি। সেখানে অভিযোগ ‌সরাসরি নিরাপত্তাবাহিনীর বিরুদ্ধে।