এনআরএস হাসপাতালে তরুণ চিকিৎসক পরিবহ মুখোপাধ্যায়ের ওপর রোগীর পরিবারের হামলার ঘটনায় উত্তাল রাজ্য-রাজনীতি। চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনায় প্রতিবাদ শুরু করেছেন গোটা চিকিৎসক মহল। কর্মক্ষেত্রে চিকিৎসকদের সুরক্ষা নিশ্চিত করাই তাঁদের একমাত্র উদ্দেশ্য।  

তারই মধ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের মন্তব্যেরও করা হচ্ছে তুমুল সমালোচনা। চিকিৎসক নিগ্রহের পর মুখ্যমন্ত্রী হুশিয়ার করে দেন যে, তার ঘন্টার মধ্য যদি চিকিৎসকরা কাজে যোগ না দেন, তাহলে তাঁদের হস্টেল ছেড়ে দিতে হবে। আর তাঁর এই মন্তব্যের পরও জারি রয়েছে চিকিৎসকদের কর্মবিরতি। চিকিৎসকদের অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রী যদি নিঃস্বার্থ ক্ষমা প্রার্থনা না করেন তাহলে চিকিৎসকদের কর্মবিরতি জারি থাকবে।

 

আর এরপরই চিকিৎসকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তৃণমুল সাংসদ দেব। এদিন টুইট করে দেব লেখেন, ''যারা আমাদের প্রাণ বাঁচান তাঁরা কেন বারবার মার খাবেন? তাঁদের সুরক্ষার দায়িত্ব আমাদের। আবার তারই সঙ্গে লক্ষ লক্ষ অসুস্থ মানুষ ডাক্তারবাবুদের দিকে তাকিয়ে, আপনারা পাশে না দাঁড়ালে তারা অসহায়। সবার শুভবুদ্ধি ফিরে আসুক, সমস্যার সমাধান চাই।'' মাননীয়ার মুখে যখন হুশিয়ারির আওয়াজ তখন তৃণমুল সাংসদের এরকম পোস্ট জল্পনা বাড়িয়ে দিচ্ছে। 

 

দেব-এর পাশাপাশি টুইট করেছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তীও। তিনি লেখেন, আমাদের সমাজের জন্য চিকিৎসদের অবদান সবকিছুর ঊর্ধ্বে। যার সঙ্গে কোনও কিছুরই তুলনা চলে না। ডঃ পরিবহ মুখার্জীর সঙ্গে যা হয়েছে তাতে তিনি লজ্জিত। প্রতি দিন প্রতি মুহূর্তে মানবিকতা যেন একটু একটু করে তলানিতে এসে ঠেকেছে। তাই একজন সাধারণ মানুষ হিসাবে তাঁর বিনীত অনুরোধ যে বিষয়টির যেন মীমাংসা করা হয়।