এই বছরের শেষ ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়লো ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা। লাতিন আমেরিকান বিশ্বকাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বে এই দুই দল বাকিদের চেয়ে অনেক এগিয়ে রয়েছে। বুধবার ভোররাতে দুই দল মাঠে নেমেছিল। আর্জেন্টিনা মাঠে দুর্বল পেরুর বিরুদ্ধে। ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ ছিল শক্তিশালী উরুগুয়ে। শেষপর্যন্ত দুই দলই একই ব্যবধানে ম্যাচ জিতেছে। ২-০ ফলে নিজেদের খেলায় জয় পেয়েছে লাতিন আমেরিকার দুই মহাশক্তি। 

ব্রাজিল ম্যাচে নেমেছিল নেইমার, কুটিনহো, ক্যাসেমিরোর মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ তারকাকে ছাড়াই। অপরদিকে উরুগুয়ে দলে করোনা সংক্রমণের কারণে ছিলেন না লুইস সুয়ারেজ। জুভেন্তাস মিডফিল্ডার আর্থার এবং এভার্টন স্ট্রাইকার রিচার্লিসনের গোলে উরুগুয়েকে হারায় ব্রাজিল। ম্যাচের মধ্যে ৭০ মিনিটে বিপজ্জনক ট্যাকল করে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল উরুগুয়ের তারকা স্ট্রাইকার এডিনসন কাভানিকে। ফলে উরুগুয়ের ফেরার আর কোনও উপায় ছিল না। 

পেরুকে ০-২ গোলে হারিয়ে জয়ে ফিরল লিওনেল স্কলোনির আর্জেন্তিনাও। এই জয়ের পর পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে রইলো মেসিরা। মেসি গোল না পেলেও জিততে অসুবিধা হয়নি আর্জেন্টিনার। পেরুর রাজধানী লিমায় গনঞ্জালেস গোল করে্ আর্জেন্তিনাকে এগিয়ে দেয়। পরে ব্যবধান বাড়ায় লাউতারো মার্টিনেজ। গত ম্যাচে প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে ড্র-এর পর এই জয়ে স্বস্তি পেল আর্জেন্টিনা সমর্থকরা। ৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে লিওনেল স্কালোনির দল। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে সবকটি জিতে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ব্রাজিল। পরের বছর মার্চ মাসে এক অপরের মুখোমুখি হবে দুই দল।